প্রকাশিত: ০৭/১১/২০১৬ ৮:২৬ পিএম
unnamed-2-1কুমিল্লা প্রতিনিধি:

মিল্লায় প্রেমে ফাঁদে ফেলে সম্পদ, ব্যবসা বাণিজ্য, সংসার নষ্ট করেছে ‘বীনা’ নামের এক যুবতি নারী। তার খপ্পড়ে পড়ে অনেকেই সর্বশান্ত হয়ে পথে পথে ঘুরছে। মুখ লজ্জা ও মান সম্মানের কারণে অনেকে মুখ খুলতে সাহস পাচ্ছে না। ওই যুবতি নারী ‘বীনা’ কুমিল্লার নাঙ্গলকোট উপজেলার উপজেলার রায়কোট উত্তর ইউনিয়নের রায়কোট গ্রামের মতিন হাজারীর মেয়ে বীনা।
জানা যায়- প্রেমের ছলনায় বীনার বিষাক্ত ছোবলের শিকার নাঙ্গলকোট উপজেলার বিভিন্ন গ্রামের বেশ কয়েকজন যুবক। এ নারীর প্রেমের জালে আটকা পড়ে কেউ হারিয়েছেন সম্পদ, কেউ হারিয়েছেন ব্যবসা বানিজ্য। এমনকি বিদেশ ফেরত যুবকও তার হাস থেকে রক্ষা পায়নি। স্থানীয় সূত্রে, মতিন হাজারীর ৫ মেয়ে ও ২ ছেলের সংসার। সবার ছোট মেয়ে বিনা ২০১১ সালে মাহিনী উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পাশের লাইফ থেকেই বিভিন্ন ছেলের সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে। বিগত ০৫ বছর পূর্বে পাশ্ববর্তী কাদবা গ্রামের আলমগীরের সাথে বিনার বিয়ে সম্পন্ন হয় এবং তাদের সংসারে ০৪ বছর বয়সী একটি ছেলে রয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ৫ বছর পূর্বে অনৈতিক কাজে জড়ির থাকার কথা প্রকাশ পেলে গণ্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ স্থানীয় এক মসজিদে আলমগীরের সাথে বিনার বিয়ে সম্পন্ন করেন। বিয়ের পরও তার চারিত্রিক অবস্থার পরিবর্তন না হওয়ায় এবং একাধিক ছেলের সাথে সম্পর্ক থাকায় বেশ পূর্ব থেকেই আলমগীর বিনার সাথে সম্পর্ক ভাঙ্গার চেষ্টা করে আসছে। এই অবস্থায় উল্টো বিনা বাদী হয়ে কোর্টে প্রতারনার মামলা দায়ের করে আলমগীরের নিকটও প্রথমে ৫ লক্ষ পরবর্তীতে ২ লক্ষাধীক টাকা দাবী করে আসছে। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সামাজিকভাবে পরবর্তীতে দেড় লক্ষ টাকায় বিবাহের সম্পর্ক ভাঙ্গা হয়।
এমনই এক প্রেমের জালে বিদ্ধ হয় বাঙ্গড্ডা ইউনিয়নের গান্ধাচী গ্রামের রাসেল (ছদ্বনাম) নামের এক যুবক। ভুক্তভোগী যুবক জানায়, তার নিকট থেকে বিভিন্ন সময় বিনা প্রতারনার মাধ্যমে টাকা পয়সা ও মোবাইল হাতিয়ে নেয়। সর্বশেষ ২ মাস পূর্বে ধারের কথা বলে ৩০ হাজার টাকা নিয়ে যায় বিনা। টাকা না পেয়ে রাসেল বিনার পরিবার ও সমাজপতিতের ধারে ধারে ঘুরেও বিচার পায় নি। প্রেমের ফাঁদের আরেক শিকার বাঙ্গড্ডা পপুলার ফার্মেসীর মালিক পাশ্ববর্তী চারজানিয়া গ্রামের রাফসান (ছদ্বনাম)। তার নিকট থেকেও প্রেম ও মেলামেলার লোভ দেখিয়ে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নিয়েছে বিনা। ২০১৪ সালে বিনা জনৈক এক ছেলের সাথে প্রেমের সম্পর্ক করে এবং ছেলের সাথে পালিয়ে যায়। ঐ ছেলের সাথে পালিয়ে যাবার পর ৩ মাস পর তার বিনা তার নিজ বাড়ীতে ফিরে আসেন। এছাড়াও বাঙ্গড্ডা কলেজে পড়া অবস্থায় বিনা জনৈক এক ছেলের সাথে শারীরিক সম্পর্কে জড়ায়। এছাড়াও চৌদ্দগ্রাম উপজেলার মুন্সিরহাট ইউনিয়নের মোস্তফা (ছদ্বনাম) নামের এক যুবক সরাসরি এসে জানান বিনার হাতে প্রেমের ফাঁদে পড়ে প্রতারিত হওয়ার কথা। বিনা কুমিল্লায় বাসা ভাড়া নিয়ে তার নিকট থেকে বাসার খাট, বালিশ, তোশকসহ বিভিন্ন আসবাবপত্র কেনান। যার আনুমানিক মূল্য প্রায় ৪০ হাজার টাকা। চাকুরী পাওয়ার কথা বলে বিনা উল্লেখিত ২ যুবক থেকে একসাথে নেন ২৫ হাজার টাকা। পরে তাদের সাথেও প্রতারনা করে যোগাযোগ বন্ধ করে দেন।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এমনি আরও বেশ কয়েকজন যুবক জানান, বিনার হাতে প্রতারিত হওয়া কথা। চক্ষুলজ্জার ভয়ে তারা বিনার হাতে প্রতারিত হওয়ার কথা সরাসরি প্রকাশ করার সুযোগ পাচ্ছে না। ইতিমধ্যেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও বিনার বিভিন্ন ধরনের অশ্লীল ছবিও ভিডিও পোষ্ট হয়েছে। ফেসবুক আইডিতে বিভিন্ন ছেলে তার বিভিন্ন অনেক নেতিবাচক কথাও বলছে। বিনার হাতে প্রতারিত কাতার প্রবাসী এক যুবক ফেসবুকে তার কষ্টের পোষ্ট শেয়ার করে বলেন, বিনা তার বোনের বাড়ীর পরিচয়ে বাঙ্গড্ডা বাজারস্থ এক মাষ্টার বাড়ীতে থাকা অবস্থায় একেকদিন একেক ছেলের সাথে ঘুরতে দেখা যায় বিনাকে।
স্থানীয়রা মাতাব্বরসহ বেশ কয়েকজন ব্যাক্তি নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানায়, বিনা উঠটি বয়স থেকে চারিত্রিকভাবেই খারাপ। তার বিষয়ে ইতিপূর্বে বিভিন্ন সময় গ্রামে বিচার আচার এসেছে। তারা আরো জানায়, বিচার আচারে অতিষ্ঠ হয়ে পরিবারের লোকজনও তার কোন অপরাধের বিষয়ে কথা বলতে অপারগতা প্রকাশ করে। গ্রামসূত্রে আরো জানা যায়, সামজিক বাঁধায় বর্তমানে বিনা এলাকায়ও প্রবেশ করে না। ১ মাস পূর্ব থেকে বিনা উধাও অবস্থায় আছে।
প্রতারনার বিষয়ে বিনার সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করলে বিনার ব্যবহৃত ২টি মোবাইল নাম্বারই বন্ধ পাওয়া যায়। তার ফোনে প্রতিবেদক বার বার ফোন করেও তাকে পাওয়া যায় নাই।
এই বিষয়ে স্থানীয় ইউপি সদস্য নুরুল হক হাজারীকে ফোন করলে তিনি জানান, বিনা ও আলমগীরের সাংসারিক জীবনের বিভিন্ন সমস্যার কথা শুনেছি। তবে এসবের দরবার কিংবা আপোষ মিমাংশার বিষয়ে আমাদেরকে কোন পক্ষই ডাকে নাই বিধায় এর বেশি বলতে পারব না।

পাঠকের মতামত

মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংকের ভল্ট ঘিরে রেখেছে পুলিশ

রাজধানী‌র ধোলাইখা‌লে মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংকে লাগা আগুন নিয়ন্ত্রণে এ‌নে‌ছে ফায়ার সা‌র্ভিস। আগুন নিয়ন্ত্রণের পর ব্যাংকের ...