প্রকাশিত: ১৬/০৮/২০১৬ ৭:০৬ পিএম

ডেস্ক রিপোর্ট ::

সাত বছরের প্রেম। প্রেমিকের সর্বশেষ প্রতিশ্রুতি ছিল এলাকার মেম্বার হয়েই প্রেমিকাকে বিয়ের মাধ্যমে বউ করে ঘরে তোলবেন। প্রেমিকা বউ হওয়ার স্বপ্ন নিয়ে প্রেমিককে এলাকার মেম্বার নির্বাচিত করতে ধার-দেনা করে ষাট হাজার টাকাও দিয়েছেন। সম্প্রতি নির্বাচনে প্রেমিক মেম্বার হওয়ার পর বিয়ে করতে বলে প্রেমিকা। একাদিকবার চাপ সৃষ্টি করে পরে নিজেকে ব্যর্থ মনে হলে পরিবার, আত্মীয় ও এলাকাবাসিকে নিয়ে চাপ সৃষ্টি করে প্রেমিকা। এমনকি এই নিয়ে স্থানীয় ভাবে বৈঠকও হয় বেশ কয়েকবার। কোন সারা মেলেনি প্রেমিক মেম্বারের কাছ থেকে। অবশেষে প্রেমিক মেম্বার প্রেমিকাকে আপদ মনে করে ঘরে ইয়াবা রেখে গতকাল সোমবার রাত ১১টায় পুলিশ দিয়ে মা-মেয়েকে ধরিয়ে থানায় আনে। এভাবেই সম্পূর্ণ ঘটনার বর্ণনা দিলেন প্রেমিকার মামা ইকবাল হোসন। আজ মঙ্গলবার সকালে এ ঘটনাটি এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে নিরিহ বাপমরা মেয়ের ওপর এত বড় জুলুম?- এই প্রশ্ন এখন এলাকার সাধারণ মানুষদের মুখে মুখে। এ ঘটনাটি ঘটেছে কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার বাঙ্গরা থানার টনকী ইউনিয়নের বাইড়া গ্রামে।

প্রতারক প্রেমিক ওই ইউপির ৮নম্বর ওয়ার্ডের নবনির্বাচিত মেম্বার রাশেদ বাইড়া গ্রামের মৃত মনু মেম্বাররের ছেলে। আর প্রেমিকা রুজিনা (২৬) একই গ্রামের মৃত আহমদ হোসেনের মেয়ে।

রুজিনার মামা ইকবাল হোসেন বলেন, বাপমরা মেয়ের ঘরে একটি মাত্র প্রতিবন্ধী ভাই। আমাদের সাহায্য- সহযোগিতা নিয়ে আমার বোনের পরিবারটি কোন রকম চলে। আমার ভাগনি রুজিনা দেখাশুনায় ভালো। সেই সুবাদে ভালো ঘর থেকে তার স্বমন্দ আসতো। রুজিনা আমাদের প্রস্তাবে রাজি হতো না। এক পর্যায়ে রুজিনা জানালো মনু মেম্বারের ছেলে রাশেদের সাথে তার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠেছে। রুজিনা আমাদেরকে জানায়, রাশেদ তাকে কথা দিয়েছে মেম্বার নির্বাচিত হয়েই বিয়ে করবে তাকে। আমরা শেষ মেস পরিবার থেকে বিষয়টি মেনে নিয়েছি। সেই সুবাদে রাশেদ আমার বোনের বাড়িতে সময়ে-অসময়ে আসা-যাওয়া করত। রাশেদ মেম্বার হওয়ার পর বিয়ের জন্য রুজিনা চাপ সৃষ্টি করলে তাতে সে ক্ষিপ্ততা দেখায়। পরে আমরা কয়েক গ্রামের সাহেব-সরদার দিয়ে দরবারে বসলে রাশেদ কিছু দিনের সময় নেয়। সেই সময় শেষ হওয়ার আগেই গতকাল সোমবার রাতে পুলিশ ঘরে ইয়াবা দিয়ে মা-মেয়েকে ধরিয়ে দিয়েছেন রাশেদ।

পুলিশ ঘরে ইয়াবা দিয়েছেন আপনি কেমনে নিশ্চিত হলেন ? এমন প্রশ্নের জবাবে ইকবাল হোসেন বলেন, সকালে থানায় গিয়ে আমার বোন-ভাগনির সাথে কথা বললে তারা বলেন, ঘরে ঢোকেই এক পুলিশ বিছানার তোসক উলটিয়ে দেখেন, আরেক পুলিশ একটা পোটলা হাত থেকে রেখে বলেন, স্যার এইতো একটা কিসের যেন পোটলা। পুলিশ এই কথা বলার সাথে সাথে মেয়ে রুজিনা পুলিশকে বলে উঠেন, এই পোটলাটা এই মাত্র আপনি রাখলেন। এটা বলাতে ওই পুলিশ জোরে এক দমক দিয়ে বলেন চুপথাক মেয়ে নইলে গুলি করব।

এদিকে সরজমিনে গেলে সাংবাদিক পরিচয় জানতে পেয়ে ভয়ে মুখ খুলতে চায়নি এলাকাবাসী। তবে নাম প্রকাশ না করার শর্তে স্থানীয়রা বলেন, রাশেদ মেম্বারের সাথে রুজিনার সর্ম্পক ছিল।

রুজিনা বা তার মা মাদক নিতেন বা বিক্রি করতেন কিনা? এ প্রশ্নে এলাকার ২৫ জন ব্যক্তিকে জিজ্ঞাসা করলে তারা বলেন, মা-মেয়ে মাদক নিতেনও না বিক্রিও করতেন না। সকালে শুনলাম গভীর রাতে ঘরে ইয়াবা পেয়ে রুজিনা ও তার মাকে পুলিশে নিয়ে গেছে। এই ঘটনায় এলাকার ভয় সঞ্চার হচ্ছে আর নীরবে ক্ষোভ হচ্ছে সাধারণ মানুষের মনে।

এ প্রসঙ্গে কথা বলার জন্য প্রেমিক রাশেদের মুঠোফোনে কয়েকবার ফোন করলেও তিনি ফোন ধরেননি।

এ ব্যাপারে বাঙ্গরা থানার ওসি মোয়াজ্জেম জানান, ‘প্রাথমিক ভাবে জানতে পেরেছি মেম্বার রাশেদের সাথে আটককৃত রুজিনার সম্পর্ক আছে। তবে যেহেতু তাদের ঘরের তোসকের নিচে এসআই জসিম ২২টি ইয়াবা পেয়েছে সেহেতু তাদেরকে মাদক মামলা দিয়ে জেলহাজতে প্রেরণের কার্যক্রম চলছে।

এ সময় মেম্বার রাশেদর প্ররোচনায় পুলিশ ঘরে ইয়াবা রেখে তাদের গ্রেপ্তার করেছে কিনা জানতে চাইলে ওসি মোয়াজ্জেম এ অভিযোগ অস্বীকার করেন। সুত্র: কালেরকন্ঠ

 

পাঠকের মতামত

রেমিট্যান্সে হুন্ডির থাবা

দেশের রেমিট্যান্স বা প্রবাসী আয়ের প্রধান উৎসগুলোতে শক্ত ঘাঁটি গেড়েছে হুন্ডিচক্র। দেশীয় অর্থ পাচারকারীদের ছত্রছায়ায় ...

রোহিঙ্গাদের জন্য ৬৯ মিলিয়ন ডলারের সহায়তা দিচ্ছে জাপান

বাংলাদেশে আশ্রিত রোহিঙ্গাদের সহায়তায় জাতিসংঘের তিনটি সংস্থাকে পৃথকভাবে ৬৯ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের সহায়তা দিচ্ছে জাপান ...

রোহিঙ্গাদের জন্য ৭ হাজার কোটি টাকা অনুদান ঘোষণা বিশ্বব্যাংক এমডির

রোহিঙ্গাদের জন্য ৬৫ কোটি ডলার অনুদান নিয়ে আলোচনা করেছেন বিশ্বব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) অ্যানা বেজার্ড। ...