প্রকাশিত: ১৯/০৮/২০১৭ ৭:৪৯ এএম , আপডেট: ১৭/০৮/২০১৮ ২:৫৫ পিএম
ফাইল ছবি

নিউজ ডেস্ক::

ফাইল ছবি
২০ লাখ ইয়াবা উদ্ধারের মামলায় অভিযোগপত্র দিয়েছে র‍্যাব। এতে আসামি করা হয়েছে ইয়াবা ব্যবসায়ী মো. মোজাহেরসহ ১২ জনকে। ঠিকানা না পাওয়ায় জড়িত অপর তিনজনকে অব্যাহতির সুপারিশ করা হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার র‍্যাব-৭ চট্টগ্রামের সহকারী পুলিশ সুপার মো. জালাল উদ্দিন আহাম্মদ চট্টগ্রাম আদালতে এই অভিযোগপত্র জমা দেন।

চলতি বছরের ১৫ এপ্রিল বঙ্গোপসাগরে একটি মাছ ধরার ট্রলার থেকে ২০ লাখ ইয়াবা উদ্ধার করে র‍্যাব। একই সঙ্গে শীর্ষ ইয়াবা ব্যবসায়ী মোজাহেরসহ ৯ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়। এই ঘটনায় নগরের পতেঙ্গা থানায় মামলা করে র‍্যাব। প্রথমে মামলাটি তদন্ত করে পতেঙ্গা থানার পুলিশ। পরে র‍্যাব তদন্ত করে।

র‍্যাবের দেওয়া অভিযোগপত্রে বলা হয়েছে, ইয়াবা পাচারে জড়িত থাকায় আসামি মোজাহের মিয়া, তাঁর সহযোগী মকতুল হোসেন, মো. নুর, মো. হেলাল উদ্দিন, আবদুল খালেক, জানে আলম, মো. লোকমান, এনায়েত উল্লাহ, নুরুল মোস্তফা, আবদুল জলিল, আবুল কাশেম ও আবদুন নুরকে আসামি করা হয়েছে। এর মধে৵ আবদুল খালেক, জানে আলমসহ ছয় আসামি আদালতে ইয়াবা পাচারের বিস্তারিত বিবরণ দিয়ে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। পলাতক রয়েছেন আবদুল জলিল, আবুল কাশেম ও আবদুন নুর।

অভিযোগ প্রমাণিত হলেও মামলার এজাহারে থাকা আসামি মো. শুক্কুর, মো. লাল ও সেঙ্গুর সঠিক ঠিকানা না পাওয়ায় তাঁদের মামলা থেকে অব্যাহতির সুপারিশ করা হয়। তবে ভবিষ্যতে পাওয়া গেলে তাঁদের বিরুদ্ধে সম্পূরক অভিযোগপত্র দেওয়া হবে জানানো হয়।

চট্টগ্রাম নগর পুলিশের অতিরিক্ত উপকমিশনার (প্রসিকিউশন) নির্মলেন্দু বিকাশ চক্রবর্তী প্রথম আলোকে বলেন, র‍্যাবের দেওয়া অভিযোগপত্রটি গ্রহণের শুনানির জন্য এখনো তারিখ পড়েনি।

পাঠকের মতামত

সেন্টমার্টিনের মানুষের মনের আতঙ্ক দূর করার আহ্বান ইবরাহিমের

সেন্টমার্টিনের মানুষের মনের আতঙ্ক দূর করতে পদক্ষেপ নিতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান ...

রামুতে ১১৭ জন কৃতি শিক্ষার্থীকে সংবর্ধিত করলো ‘প্রতিশ্রুতি’

কক্সবাজার জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মো. নাছির উদ্দিন বলেছেন, গুণগত শিক্ষাই শিক্ষার্থীদের স্বপ্নপূরণে এগিয়ে নেবে। ...

ভুয়া চিকিৎসক আটক

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল (ঢামেক) থেকে এক ভুয়া চিকিৎসককে আটক করা হয়েছে। তার নাম রিপা ...