উখিয়া নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৮/০৯/২০২২ ৭:৩৩ এএম

বান্দরবানের জেলা প্রশাসক ইয়াছমিন পারভীন তিবরীজি বলেছেন, সরকার এ মুহূর্তে জনগণের নিরাপত্তার বিষয়টিকে সর্বাধিক গুরুত্ব দিচ্ছে। মিয়ানমার-বাংলাদেশ সীমান্তে আমরা কঠোর অবস্থানে রয়েছি।

শনিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এসব কথা বলেন। খবর বাসসের।

জেলা প্রশাসক বলেন, ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, মেম্বার, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের এলার্ট (সতর্ক) করা হয়েছে, তারা যেন জনগণকে নিরাপদে থাকার নির্দেশনা দেন।

উখিয়া নিউজ ডটকমের   সর্বশেষ খবর পেতে Google News অনুসরণ করুন

তিনি বলেন, এখন জরুরি সভার আহ্বান করা হয়েছে। সবাই মিলে বসে সিদ্ধান্ত নেব। সীমান্তের মানুষদের আরও কীভাবে নিরাপদে রাখা যায়, সে বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এলাকাবাসীর নিরাপত্তার বিষয়টি চিন্তা করে ঘুমধুমের এসএসসি পরীক্ষার কেন্দ্র পরিবর্তন করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

শুক্রবার রাতে বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ির তুমব্রু কোনারপাড়া সীমান্তে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর ছোড়া চারটি মর্টারশেল এসে পড়ে। এতে শূন্যরেখার রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ইকবাল নামে এক রোহিঙ্গা যুবক নিহত হন। আহত হন আরও চারজন।

পাঠকের মতামত

মাতৃভূমি রক্ষায় প্রতিটি সদস্য আত্মত্যাগের জন্য সদা প্রস্তুত: কক্সবাজারে সেনাপ্রধান

বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর প্রধান জেনারেল এস এম শফিউদ্দিন আহমেদ বলেন, সেনাবাহিনীর প্রতিটি সদস্য সততা-নিষ্ঠার সঙ্গে দেশের ...

রোহিঙ্গা ইস্যুকে বিস্মৃত সংকট হতে দেবে না যুক্তরাষ্ট্র

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সফররত জনসংখ্যা, শরণার্থী ও অভিবাসন ব্যুরোর অ্যাসিস্ট্যান্ট সেক্রেটারি জুলিয়েটা ভালস নোয়েস বলেছেন, তার ...