প্রকাশিত: ১২/০৯/২০১৬ ১১:৫৮ এএম

salaউখিয়া নিউজ ডেস্ক::

বিএনপির সদ্য ঘোষিত স্থায়ী কমিটির সদস্য এবং কক্সবাজার জেলা বিএনপির প্রভাবশালী নেতা ও সাবেক যোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী সালাহউদ্দিন আহমেদ ভারতের শিলংয়ে প্রায় ১৬ মাস ধরে অবস্থান করছেন। ভারতে অনুপ্রবেশের দায়ে শিলং আদালতে মামলা চলমান এবং শিলংয়ের বাইরে যেতে নিষেধাজ্ঞা থাকায় তাকে সেখানেই অবস্থান করতে হচ্ছে।

শিলংয়ে অবস্থানকালে সালাহউদ্দিন ইতিমধ্যেই দুটি ঈদ সেখানে কাটিয়েছেন। এবার ঈদুল আজহাও শিলংয়ে কাটবে তার। পরিবার-পরিজন থেকে দূরে, ভিনদেশের মাটিতে অনেকটা একাকিত্বের মধ্য দিয়েই ঈদ কাটাবেন সাবেক এই প্রতিমন্ত্রী।

গত বছরের ১০ মার্চ ‘নিখোঁজ’ হন সালাহউদ্দিন। তখন তার পরিবার অভিযোগ করেছিল, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী তুলে নিয়ে গেছে তাকে। এর ৬৩ দিন পর ওই বছরের ১২ মে ভারতের শিলংয়ের গলফ লিঙ্ক এলাকা থেকে সালাহউদ্দিনকে আটক করে ভারতীয় পুলিশ। অসংলগ্ন আচরণের কারণে প্রথমে তাকে মানসিক হাসপাতালে এবং পরে সিভিল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

অনুপ্রবেশের অভিযোগে ভারতের ফরেনার্স অ্যাক্টের ১৪ নম্বর ধারায় তার বিরুদ্ধে মামলা হয়। শিলংয়ের বাইরে যেতে পারবেন না এমন শর্তে সেই মামলায় সালাহউদ্দিন জামিনে রয়েছেন। সালাহউদ্দিন গত বছরের জুলাইয়ে ঈদুল আজহা পালন করেন শিলংয়ে।

এ ছাড়া চলতি বছরের জুলাইয়ে ঈদুল ফিতর শিলংয়ে কাটান। এবার আরেকটি ঈদ নিঃসঙ্গ অবস্থায় শিলংয়ে কাটাবেন। দু-এক জন স্বজন তার সঙ্গে থাকতে পারেন বলে জানা গেছে।

কিন্তু স্ত্রী হাসিনা আহমেদ ছেলেমেয়েদের পড়ালেখা ও পারিবারিক ব্যস্ততায় স্বামীর সঙ্গে ঈদ করতে শিলংয়ে যাচ্ছেন না বলে জানা গেছে। তবে ঈদের পর স্বামীকে দেখতে শিলংয়ে যাওয়ার কথা তার।

এদিকে শিলংয়ে অবস্থান করলেও দেশের রাজনীতি থেকে দূরে নন সালাহউদ্দিন। দেশের রাজনীতির বিভিন্ন খবরাখবর নিয়মিতই রাখেন। টিভি দেখে ও

বাংলাদেশের বিভিন্ন অনলাইন নিউজ পোর্টাল পড়ে এবং তার সঙ্গে দেখা করতে যাওয়া নেতা-কর্মীদের কাছ থেকে দেশের রাজনীতির ভিতর-বাইর জানার চেষ্টা করেন সালাহউদ্দিন। এ ছাড়া ফোনের মাধ্যমে রাজনীতির অন্দর মহলের বিভিন্ন খবর জানতে সচেষ্ট তিনি।

এদিকে শিলংয়ে সালাউদ্দিনের সঙ্গে দেখা করতে যাওয়া নেতা-কর্মীদের ঐক্যবদ্ধ থাকতে বিভিন্ন দিকনির্দেশনা দিয়ে যাচ্ছেন তিনি। দলের ক্রান্তিলগ্নে সব বিভেদ ভুলে ঐক্যবদ্ধ থাকার নির্দেশনাও দিচ্ছেন। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকেও সরব সালাহউদ্দিন আহমেদ। আওয়ামী লীগ সরকারের বিভিন্ন ব্যর্থতা ও দুর্বলতা ফেসবুকে তুলে ধরেন তিনি।

এদিকে সালাহউদ্দিন আহমেদ ঠিক কবে দেশে ফিরতে পারবেন, তা নিশ্চিত নয়। শিলংয়ের আদালতে মামলা চলমান থাকায় তার দেশে ফেরা অনিশ্চিত রয়েছে।

তবে সালাহউদ্দিনের ঘনিষ্ঠ সূত্র জানিয়েছে, আপাতত দেশে ফেরার চিন্তা করছেন না তিনি। ভারতের আদালতে মামলা শেষ হওয়ার অপেক্ষায়ই দিন গুনছেন।

পাঠকের মতামত

যেভাবে ভুয়া জন্মসনদ এনআইডি ও পাসপোর্ট পাচ্ছে রোহিঙ্গা ও দাগি আসামিরা

ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জের সাদিয়া সুলতানা সাথি। পেশায় গৃহিণী। বিদেশ যাওয়ার কোনো স্বপ্ন নেই। নেই পাসপোর্টও। গৃহিণী ...

রাঙ্গামাটিতে স্পিডবোটে সন্তান প্রসব, ১০ হাজার টাকা পুরস্কার ও আজীবন যাতায়াত ফ্রি

গত রবিবার (২৫ ফেব্রুয়ারী) কাপ্তাই হ্রদে স্পিডবোটে এক শিশুর জন্ম হয়েছে। এঘটনায় ওই মা-শিশুর আজীবন ...