প্রকাশিত: ১৭/১০/২০১৬ ১০:২৮ পিএম

arrest-pic-coxb20161017215918উখিয়া নিউজ ডেস্ক::

ল্যাপটপের মাদারবোর্ডের খালি অংশে বিশেষ কায়দায় ইয়াবা নিয়ে বিমানে ঢাকা যেতে কক্সবাজার বিমান বন্দরে এসেছিলেন বরিশালের যুবক কবির হোসেন (২৮)। কিন্তু নিরাপত্তা স্ক্যানারটি তার সঙ্গে বেরসিকতা করে ল্যাপটপে ইয়াবা উপস্থিতি জানিয়ে বেকায়দায় ফেলে।

এ খবর জেনে বিমানবন্দর ব্যবস্থাপক সাধন কুমার মোহন্ত মুহূর্তে ঘটনা জানিয়ে দিলেন আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীকে। দ্রুত বিমানবন্দরে এসে ল্যাপটপসহ যুবক কবিরকে নিজেদের কবজায় নেন সদর থানা পুলিশের ওসি আসলাম হোসেন, বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী ও অপারেশন অফিসার আবদুর রহিম।

সোমবার বিকেল সাড়ে ৪টায় ঘটা এ ঘটনা পুরো এলাকায় চাঞ্চল্য সৃষ্টি করে।

বিমানবন্দরের পুলিশ কন্ট্রোল রুমে নিয়ে ল্যাপটপ খুলে বিশেষ কায়দায় রাখা ইয়াবার পুটলা থেকে ৭২০ পিস ইয়াবা জব্দ করা হয়।

কবির হোসেন বরিশাল সদরের সেকান্দর আলী হাওলাদারের ছেলে ও ঢাকার আশুলিয়া এক বায়িং হাউসের কর্মচারী।

কবির জানায়, তিনি গত শনিবার গাড়িতে করে কক্সবাজার বেড়াতে এসে সৈকত এলাকার এক কটেজে উঠেন। সেখানেই এক লোক ল্যাপটপটি ঢাকায় বিশেষ মানুষকে পৌঁছে দিলে এয়ারের টিকেট ও খরচের টাকা দেয়ার অপার করেন। বিমানে চড়া ও বেশ কিছু টাকার লোভে তিনি রাজি হয়ে বিমানবন্দরে আসেন। তবে তিনি সেই বিশেষ মানুষ ও এই খানের মানুষটির ব্যাপারে কিছু বলতে নারাজ ছিল।

এ ঘটনায় এসআই আবদুর রহিম বাদী হয়ে মাদক আইনে মামলা দায়ের করেছেন বলে জানিয়েছেন ওসি বখতিয়ার।

জাগো নিউজ

পাঠকের মতামত