প্রকাশিত: ১১/০৬/২০১৭ ৯:৪৫ এএম , আপডেট: ১৭/০৮/২০১৮ ৪:৪২ পিএম
ফাইল ছবি

তিনি এখন যে দিকে তাকান সেদিকেই নাকি তাঁকে আতঙ্ক গ্রাস করে। সমাজের সব সম্পর্ক তাঁর কাছে এখন মিথ্যে হয়ে গেছে। তিনি আর কাউকে বিশ্বাস করতে চান না। কিছুদিন আগে এমন হাহাকার ভরা উক্তিতে ভর্তি হয়ে গিয়েছিল ইংল্যান্ডের মামসনেট বলে একটি অনলাইন সাইট। ওই সাইটেই এক মা তাঁর আশ্চর্য কাহিনী শেয়ার করেছিলেন। আর সেই কাহিনী জেনে সবাই বিস্মিত। কারণ, ওই মা তাঁর হাহাকার ভরা বয়ানে লিখেছেন যে তাঁর মেয়ে নাকি বাবার সঙ্গেই যৌন সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েছে।

মা জানিয়েছেন, খুব অল্প বয়সেই তিনি কন্যা সন্তানের মা হয়েছিলেন। কিন্তু, কোনও কারণে তাঁর পার্টনারকে তিনি আর বিয়ে করেননি। মেয়ের যখন ১১ বছর তখন তিনি বিয়ে করেন বলে জানিয়েছেন ওই মা। যদিও, সেই স্বামী তাঁর মেয়েকে কখনও আইনগতভাবে দত্তক নেননি। কিন্তু, মেয়ে বাবার পদবি ব্যবহার করত।

মা জানান, তাঁর সেই স্বামী এবং মেয়ের মধ্যে যে কোনও রক্তের সম্পর্ক নেই তা তাঁদের দেখে বোঝার উপায় ছিল না। তাঁর সেই স্বামীকে মেয়ে বাবা বলেই ডাকত। মহিলার স্বামীও নাকি মেয়ে বলতে অজ্ঞান ছিলেন। বর্তমানে সেই স্বামীর সঙ্গে তাঁর বিচ্ছেদ হয়েছে।

হতাশগ্রস্ত সেই মা মামসনেটে আরও লিখেছেন, এখন তাঁর মেয়ে ৩১ বছর পার করেছে এবং সম্প্রতি তিনি মেয়ের প্রেমিককে আবিষ্কার করে হতবাক হয়ে যান। কারণ, মেয়ের প্রেমিক তাঁরই প্রাক্তন স্বামী। যাকে মেয়ে বাবা বলে ডাকত তাঁকে কীভাবে সে প্রেমিক হিসাবে বরণ করল?

হতবাক হয়ে যান মা। এমনকী, মেয়েকে চেপে ধরতে নাকি সে জানিয়েও দেয় প্রাক্তন বাবার সঙ্গে তার শারীরিক সম্পর্কও আছে। দুই জনে একাধিকবার শারীরিক সম্পর্কেও জড়িয়েছেন। দুইজনেই একে অপরের যৌন সংসর্গ উপভোগ করেন বলেও নাকি মাকে জানিয়েছে মেয়ে।

মামসনেটের দ্বারস্থ হওয়া ওই মা আরও জানান, তাঁর মেয়ের একটি ছেলেও আছে। সেই ছোট্ট ছেলেও তার সম্পর্কে হওয়া দাদুকে বাবা বলে ডাকছে। মেয়ের এবং প্রাক্তন স্বামীর এমন আচরণে কার্যত হতাশ ওই মা। তাঁর অবস্থা দেখে মামসনেটে অনেক শুভ্যানুধ্যায়ী নানা পরামর্শ দিয়েছেন। কিন্তু, হতাশায় সম্প্রতি নিজের সেই বয়ান নাকি মামসনেট থেকে ডিলিট করে দিয়েছেন ওই মা।

মামসনেট হল ব্রিটেনের অভিভাবকদের একটি কাউন্সেলিং সাইট। জনপ্রিয় এই অনলাইন সাইটে মায়েরা সন্তানদের নিয়ে অনেক কথা শেয়ার করেন এবং পরামর্শও চান। মা-এর একটাই কথা, যে মেয়ে ২০ বছরেরও বেশি সময় একজনকে বাবা বলে ডাকল তাঁর সঙ্গে কীভাবে সে যৌন সম্পর্কে জড়াতে পারে? যেহেতু তাঁর প্রাক্তন স্বামী এবং মেয়ের মধ্যে কোনও রক্তের সম্পর্ক নেই, সেক্ষেত্রে এটাকে হয়তে ইনসেস্ট বা পিতা-মাতার সঙ্গে সন্তানের যৌন সম্পর্ক স্থাপনের অপরাধের গণ্ডীতে বাধা যায় না, তবে এই সম্পর্ক নীতিগতভাবে কি অপরাধ বা মোরাল ইনসেস্ট নয়? সে প্রশ্নও তুলেছেন ওই মা।

পাঠকের মতামত

টেকনাফের পৌর কাউন্সিলর মনিরুজ্জামানের সম্পদ জব্দ দুদকের মামলা

টেকনাফ পৌরসভার কাউন্সিলর মো. মনিরুজ্জামানের সম্পদ জব্দ করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। কক্সবাজার জ্যেষ্ঠ স্পেশাল ...

রাজাপালং ইউপি’র উপ নির্বাচনে প্রতীক পেলেন চার চেয়ারম্যান প্রার্থী

উখিয়ার রাজাপালং ইউপির উপ নির্বাচনে অংশ নেওয়া চার চেয়ারম্যান প্রার্থী নির্বাচনী প্রতীক পেয়েছেন। বৃহস্পতিবার (১১ ...

আইনি লড়াইয়ে প্রার্থীতা ফিরে পেলেন হুমায়ুন কবির চৌধুরী

উখিয়া উপজেলার রাজাপালং ইউনিয়নের উপনির্বাচনে মহামান্য হাইকোর্টের রাযে কক্সবাজার জেলা নির্বাচন অফিস কর্তৃক বাতিলকৃত মনোনয়ন ...