প্রকাশিত: ১৪/০১/২০১৭ ১১:১৭ এএম

হাফেজ মুহাম্মদ কাশেম, টেকনাফ:

বিদ্যুৎ ও মোবাইল নেটওয়ার্ক নিয়ে অসহ্য যন্ত্রণায় ভুগছেন টেকনাফবাসী। গত কয়েক দিন ধরে রাত-দিন ২৪ ঘন্টার মধ্যে ২ ঘন্টাও বিদ্যুৎ পাওয়া যাচ্ছেনা। বিদ্যুতের এই আসে, এই যায় অবস্থা। ৪-৫ ঘন্টা পর হঠাৎ করে এসে বড় জোর আধ ঘন্টার বেশী স্থায়ী হয়না। শীত মৌসুমে এধরণের ভয়াবহ বিদ্যুৎ পরিস্থিতি সর্বসাধারণকে ক্ষুদ্ধ করে তুলছে। বিদ্যুতের অভাবে মোবাইল ফোন, কম্পিউটার ও ল্যাপটপে চার্জ রাখা দুস্কর হয়ে পড়েছে। সংবাদকর্মীগণ যথাসময়ে নিউজ পাঠাতে পারছেননা। বিদ্যুৎ নির্ভর কার্যক্রমে চরম অচলাবস্থা দেখা দিয়েছে। জুমাবার ১৩ জানুয়ারী সারা দিনের মধ্যে মাত্র কয়েক মিনিট বিদ্যুৎ ছিল। রাত ৯টায় এ রিপোর্ট লেখার সময়ও বিদ্যুৎ আসেনি।

মোবাইল নেটওয়ার্ক নিয়েও চলছে একই লুকোচুরি খেলা। দীর্ঘক্ষণ চেষ্টার পর সংযোগ পেয়ে চিল্লা-চিল্লি করে কোন রকমে কথা বলা গেলেও ইন্টারনেট ব্যবহারে চরম ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে। টেকনাফ পৌর এলাকা এবং উপজেলা পরিষদ এলাকার পরিস্থিতি কিছুটা ভাল হলেও গ্রামাঞ্চলের অবস্থা খুবই ভয়াবহ। একাধিক মোবাইল ফোন কোম্পানীর সিম কিনেও গ্রাহকগণ সুফল পাচ্ছেননা বলে জানা গেছে।

এনিয়ে মিডিয়াকর্মীগন সোচ্চার হলেও জনপ্রতিনিধি, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, প্রশাসন ও সুশীল সমাজ মোটেও তৎপর নন। বিদ্যুৎ বিষয়ে জানতে চাইলে টেকনাফের ডিজিএম বলেন ‘টেকনাফ-কক্সবাজার জাতীয় গ্রীড লাইনে সমস্যা দেখা দিয়েছে। এই ক্রুটি সারাতে ১৪ জানুয়ারী শনিবার সকাল ৭টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত সারা দিন টেকনাফে বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ থাকবে’। আর মোবাইল ফোনের নেটওয়ার্ক বিপর্যয় বিষয়ে কোন বক্তব্যই পাওয়া যাচ্ছেনা।

পাঠকের মতামত