প্রকাশিত: ০৩/১০/২০১৬ ৯:২৩ এএম

টেকনাফ প্রতিনিধি ::
টেকনাফের নয়াপাড়া ক্যাম্পের রোহিঙ্গা শরণার্থীরা দু’দিন ধরে রেশন গ্রহণ থেকে বিরত রয়েছে। বিশ্ব খাদ্য সংস্থার সহায়তায় শরণার্থীদের মধ্যে ফুড কার্ডের মাধ্যমে জনপ্রতি ৭৫০ টাকার পরিমাণ খাদ্য সামগ্রী নির্দিষ্ট পয়েন্ট থেকে সরবরাহ করা হয়। নয়াপাড়া ক্যাম্পে ৭টি ব্লকে প্রায় ১৫ হাজার শারণার্থী অবস্থান করছে। যেখানে মাসের প্রথম দিন থেকে শরণার্থীরা ফুড কার্ড ব্যবহার করে রেশন গ্রহণ করে থাকে। কিন্তু অক্টোবর মাসের শুরু থেকে শরণার্থীরা ৭৫০ টাকার পরিবর্তে ১শ’ টাকা কম নিয়ে ৬৫০ টাকার পরিমাণ খাদ্য পণ্য সরবরাহ করতে গেলে ঘটে বিপত্তি। কোরবানির সময় দেওয়া খয়রাতি বা দানের পণ্যের মূল্য রেশনের সাথে যুক্ত করায় এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। নয়াপাড়া শরণার্থী ক্যাম্পের বাসিন্দা খতিজা, সব্বির আহমদ ও রোকসানা জানান, এমনিতে খাদ্য পণ্যসহ নিত্যপণ্যের দাম দিন দিন বাড়ছে। সেখানে ফুড কার্ডে টাকার পরিমাণ বৃদ্ধি করা ছিলো যুক্তিযুক্ত। সেখানে কেন ১শ’ টাকা কর্তন করা হচ্ছে তার কোন সঠিক উত্তর দিতে পারছে না সংশ্লিষ্টরা। ফলে রেশন নেওয়া বন্ধ রেখেছে তারা। এতে যে সংকট তৈরি হয়েছে তা সরানোর উদ্যোগও নেওয়া হচ্ছে না। এতে যেকোনো মুহূর্তে শারণার্থী ক্যাম্পের অবস্থা অস্থির হয়ে উঠতে পারে বলেও আশংকা করছেন অনেকে। এ প্রসঙ্গে বিশ্ব খাদ্য সংস্থার মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তা মহিউদ্দিনের সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি সংস্থার প্রকল্প ফোকাল পার্সনের মুঠোফোনের নম্বর দিয়ে তার সাথে কথা বলার পরামর্শ দেন। পরে ফোকাল পার্সনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি ছুটিতে আছেন এবং এ ব্যাপারে তিনি অবগত নন বলে জানান।

পাঠকের মতামত

বান্দরবানে কেএনএফের আস্তানায় যৌথ বাহিনীর অভিযান, নিহত ৩

বান্দরবানের রুমা উপজেলার রনিন পাড়ার কাছে ডেবাছড়া এলাকায় কেএনএফের একটি আস্তানায় সেনাবাহিনীর নেতৃত্বে যৌথ বাহিনীর ...