প্রকাশিত: ২৩/১০/২০১৬ ৭:৪৯ এএম , আপডেট: ২৩/১০/২০১৬ ৭:৪৯ এএম

file-11আবুল কালাম আজাদ, টেকনাফ ::
টেকনাফে পানির সংকট দেখা দেওয়ায় দেদারচ্ছে বিক্রি হচ্ছে মিনারেল ওয়াটার নামের দূষিত পানি। যে পানি খেয়ে লোকজন বিভিন্ন পানি বাহিত রোগে আক্রান্ত হচ্ছে। ঢাকা ও চট্রগ্রাম শহরের ন্যায় ইদানিং টেকনাফ পৌরসভায় কণ্টিনার ভর্তি করে ২টি প্রতিষ্টান পানি বিক্রি করে চলেছে। এর মধ্যে একটি হল পৌরসভার পুরান পল্লান পাড়ার রহমানিয়া ড্রিংকিং ওয়াটার ও পৌরসভার ১নং ওয়ার্ডের নাইট্যং পাড়া গ্রামের নাফ ড্রিংকিং ওয়াটার। এ দুটো প্রতিষ্টান (বিএসটিআই) এর কোন লাইসেন্স পত্র ছাড়াই এই র্দূষিত পানি বিক্রি করে চলেছে। গত ২০ অক্টোবর টেকনাফ উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি অফিস সংলগ্ন বাহার ছড়া ইউনিয়ন ভূমি অফিসের ইউনিয়ন ভূমি উপ-সহকারী কর্মকর্তা নুরুল ইসলাম জানান, আমার অফিসে প্রতিদিন একটি একটি করে পানির কণ্টিনার নিচ্ছি। কিন্তু খেয়ে দেখা যাচ্ছে ইহা প্রকৃত মিনারেল ওয়াটার নহে। যার ফলে আমি এই পানি নেওয়া বন্ধ করে দিয়েছি। একটি কণ্টিনার অর্ধেক পানি ভর্তি রেখে দিয়েছি। পানির মালিক রহমানিয়া ড্রিংকিং ওয়াটারকে ফোন করেছি অফিসে আসার জন্য। তিনি আসলে তাকে পানি খাওয়াব। কিন্তু তিনি বারংবার ফোন করার পরও আসচ্ছেনা। এভাবে প্রতিটি অফিস আদালত ও দোকান পাটে এ র্দূষিত পানি বিক্রি করে চলছে। এ ব্যাপারে রহমানিয়া ড্রিংকিং ওয়াটারের মালিক আবদুল মুনাফের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান আমরা এখনও (বিএসটিআই) এর লাইসেন্স করিনি। স্থানীয় কারিগর দিয়ে বোতলজাত করে পানি বিক্রি করছি।

পাঠকের মতামত

সিভিল সার্জন কার্যালয়ে স্বাস্থ্য সহকারী পরীক্ষায় প্রক্সি দিতে গিয়ে আটক ১

চট্টগ্রাম সিভিল সার্জন কার্যালয়ে স্বাস্থ্য সহকারী নিয়োগের লিখিত পরীক্ষায় প্রক্সি দিয়ে উত্তীর্ণ হলেও মৌখিকে ধরা ...

গহীন পাহাড়ে কঠোর প্রশিক্ষণ, যা বললেন কুকি চিনের আকিম বম

বান্দরবানে পাহাড়ি সশস্ত্র সংগঠন কুকি–চিন ন্যাশনাল ফ্রন্টের (কেএনএফ) সামরিক প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত নারী শাখার বান্দরবান সদর ও ...