প্রকাশিত: ১৫/০৮/২০১৭ ১১:১১ পিএম , আপডেট: ১৭/০৮/২০১৮ ৩:০৬ পিএম

উখিয়া নিউজ ডেস্ক::
কক্সবাজার কারাগারের হতভাগা এক হাজতি হাসপাতালে মৃত্যুর পরও ঘণ্টার পর ঘণ্টা পড়েছিলেন পায়ে ডাণ্ডাবেড়ি লাগানো অবস্থায়। একজন হাজতি মৃত্যুর পরও ডাণ্ডাবেড়িমুক্ত হতে না পারার ঘটনাকে কেন্দ্র করে নানা কথা উঠেছে। কারাগারে নির্যাতনে তার মৃত্যু হয় বলে অভিযোগ করেছেন তার পরিবারের সদস্যরা।

গতকাল সোমবার কক্সবাজার কারাগার থেকে জেলা সদর হাসপাতালে অসুস্থ অবস্থায় আনা হাজতির মৃত্যুর পরও দীর্ঘক্ষণ ধরে লাগানো ছিল ডাণ্ডাবেড়িটি। হাসপাতালে মৃত একজন হাজতির পায়ে লাগানো ডাণ্ডাবেড়ির ছবি ফেসবুকসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে পড়ে।

জানা গেছে, মোহাম্মদ রায়হান (২৪) নামের এক হাজতি গতকাল সোমবার দুপুরে কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে মারা যান। তিনি কক্সবাজার জেলা শহরের নূরপাড়ার বাসিন্দা মৃত আমির হোসেনের ছেলে। শহরে ভ্রাম্যমাণ ফল বিক্রি করে জীবিকা নির্বাহকারী ওই যুবককে পুলিশ কয়েকদিন আগে আটক করে কারাগারে পাঠায়। দুটি চুরির মামলার আসামি হিসেবে কারাগারে পাঠানো হয় তাকে।

হতভাগা ওই হাজতির ছোট ভাই আরমান আজ মঙ্গলবার কালের কণ্ঠকে জানান, সর্বশেষ গত রবিবার কারাগারে আটক তার ভাই রায়হানকে দেখতে গিয়েছিলেন তিনি। রায়হান তার ভাই আরমানকে জানিয়েছিলেন, কারা ওয়ার্ডে শোবার জায়গা নিয়ে অন্য হাজতিদের সঙ্গে তার ঝগড়া হয়েছিল।

ওই ঝগড়াকে কেন্দ্র করে কারারক্ষীরা তাকে বেদম মারধর করে। আরমান আরও জানান, রায়হানের পেটে অপারেশন ছিল। সম্ভবত রক্ষীদের মারধরের আঘাত লেগেছিল সেই পেটের ক্ষত স্থানে। এ কারণে রায়হান অসুস্থ হয়ে পড়েন।
কারাগারে অসুস্থ হয়ে পড়া রায়হানকে সোমবার বিকেলে কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে নেওয়া হয়। সদর হাসপাতালে নেওয়ার ঘণ্টা দেড়েকের মধ্যেই তার মৃত্যু হয়। জেলা সদর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা ডা. শাহীন আবদুর রহমান জানান, হাসপাতালে যখন ওই হাজতিকে আনা হচ্ছিল তখন তার অবস্থা ছিল অত্যন্ত সংকটাপন্ন। এ কারণে কিছুক্ষণের মধ্যেই ওই হাজতি মারা যান।

হাসপাতালে মৃত্যুর পরও রায়হানের পায়ে লাগানো ডাণ্ডাবেড়ি খুলে নেওয়া যায়নি। এমনকি ময়নাতদন্ত না হওয়া পর্যন্ত লাশের পায়ে লাগানো ছিল ডাণ্ডাবেড়িটি। ইতিমধ্যে ডাণ্ডাবেড়ি লাগানো হাজতির মৃতদেহের ছবি ফেসবুকসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে পড়ে।

তবে নির্যাতনে মৃত্যুর অভিযোগ অস্বীকার করে কক্সবাজার জেলা কারাগারের তত্ত্বাবধায়ক বজলুর রশীদ আজ মঙ্গলবার কালের কণ্ঠকে বলেন, “হাজতি রায়হান স্ট্রোকে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। আমাদের নিয়ম মতে কারাগারের বাইরে কাউকে নেওয়ার সময় পায়ে ডাণ্ডাবেড়ি লাগানো হয়। তাই তাকেও লাগানো হয়েছিল। ”

প্রসঙ্গত, কক্সবাজার কারাগারে গত এক সপ্তাহে দুইজন হাজতির মৃত্যু হয়েছে।

পাঠকের মতামত

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে পাঁচ মাসে ২৬ খুন

কক্সবাজারের উখিয়ার রোহিঙ্গা আশ্রয়শিবিরে খুন-অপহরণের মতো অপরাধ আশঙ্কাজনক হারে বেড়েছে। আশ্রয়শিবিরের নিয়ন্ত্রণ, আধিপত্য বিস্তার, মাদক ...

ছু'রি'কা'ঘাতে মৃ'ত্যুর পথযাত্রী যুবক,টাকা লুট অনিরাপদ ঘুমধুমের টিভি টাওয়ার গরুর হাট

কক্সবাজার-টেকনাফ মহাসড়ক লাগোয়া নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুমধুমের টিভি টাওয়ার গরুর হাটে প্রতিনিয়তই ঘটছে অপ্রীতিকর ঘটনা। হাট ...

নিজের সম্মানির টাকা মেধাবী শিক্ষার্থীকে দিলেন নাইক্ষ্যংছড়ির ইউএনও

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ির উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাকারিয়া নিজের প্রাপ্ত সম্মানির টাকা আর্থিক অনুদান হিসেবে প্রদান করলেন ...