প্রকাশিত: ২৫/১০/২০১৬ ৮:০৫ এএম

উখিযা নিউজ ডটকম::

কক্সবাজার সদর হাসপাতাল বার্ন ইউনিট না থাকায় কাক্সিক্ষত সেবা পাচ্ছে না জেলার অগ্নিদগ্ধরা। প্রায় সময় আগুনে পুড়ে নানা বয়সী মানুষ এ হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসেন। তাদের মধ্যে কিছু রোগীদের চিকিৎসা করেন সার্জারি বিভাগের চিকিৎসকরা। বার্ন ইউনিট না থাকায় বেশি মাত্রায় অগ্নিদগ্ধদের পাঠানো হয় চট্টগ্রাম বা ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। কক্সবাজার থেকে চট্টগ্রামের দূরত্ব প্রায় ১৬০ এবং ঢাকা প্রায় সাড়ে চারশ কি.মিটার পথ অতিক্রম করে চিকিৎসা নিতে পারে না অগ্নিদগ্ধ রোগীরা। এই দীর্ঘপথ পাড়ি দিতে গিয়ে গুরুতর অগ্নিদগ্ধরা অনেক সময় পথেই মারা যান। কিংবা হাসপাতালে নেয়ার পর বাঁচানো কঠিন হয়ে পড়ে। জেলার শিক্ষিত নাগরিক সমাজ সদর হাসপাতালে একটি বার্ন ইউনিট স্থাপনের দাবি জানিয়ে আসছে দীর্ঘদিন ধরে। এ পর্যন্ত কাজের কাজ কিছুই হয়নি। অগিদগ্ধদের চিকিৎসার জন্য এখানে একটি বার্ন ইউনিট স্থাপন জরুরি হয়ে দাঁড়িয়েছে বলে জানান সচেতন মহল।
সচেতন মহল বলেন, তাৎক্ষণিকভাবে অগ্নিদগ্ধদের চট্টগ্রাম বা ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসা করানো এখানকার মানুষের জন্য খুবই কঠিন। জেলার প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে অগ্নিদগ্ধরা তাৎক্ষণিক উন্নত চিকিৎসা পাওয়ার আশায় কক্সবাজারে ছুটে আসলেও কিন্তু কোনো সেবা পচ্ছে না তারা। বার্ন ইউনিট ছাড়া কখনোই একজন অগ্নিদগ্ধের পূর্ণাঙ্গ চিকিৎসাসেবা হতে পারে না। কক্সবাজার জেলার সিভিল সার্জন ডা. পুচনু বলেন, কক্সবাজার সদর হাসপাতালে বার্ন ইউনিট প্রতিষ্ঠার বিষয়টি মানুষের প্রাণের চাওয়া। এটি বাস্তবায়নে আমরা উদ্যোগ নিয়েছি। আশা করছি, খুব শিগগির এ সংক্রান্ত প্রকল্প প্রস্তাবনা মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হবে।

পাঠকের মতামত

উখিয়ায় বৌদ্ধ আশ্রমে অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে শিশুকে নির্যাতনের অভিযোগ

কক্সবাজারের উখিয়ায় একটি বৌদ্ধ আশ্রমে শিশুকে অমানবিক নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে সেখানকার অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে। ভুক্তভোগীর শিশুটির ...

বান্দরবানে কেএনএফের আস্তানায় যৌথ বাহিনীর অভিযান, নিহত ৩

বান্দরবানের রুমা উপজেলার রনিন পাড়ার কাছে ডেবাছড়া এলাকায় কেএনএফের একটি আস্তানায় সেনাবাহিনীর নেতৃত্বে যৌথ বাহিনীর ...