প্রকাশিত: ০৩/০৬/২০১৭ ৯:০৪ পিএম , আপডেট: ১৭/০৮/২০১৮ ৫:০৬ পিএম

উখিয়া নিউজ ডটকম::
গত ২৯ মে ঘুর্ণিঝড় মোরা”র আঘাতে ক্ষতিগ্রস্তদের পূর্ণবাসন ও ত্রান বিতরন কাজে কক্সবাজারের প্রশাসন ব্যস্ত থাকার সুযোগ কে কাজে লাগিয়ে উখিয়া সীমান্তের শীর্ষ ইয়াবা কারবারীরা তাদের সিন্ডিকেটের মাধ্যমে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে ইয়াবা পাচারের দৌড়ঝাঁপ দেখা দিয়েছে।

সম্প্রতি কক্সবাজার জেলা আওয়ামীলীগ আয়োজিত জনসভায় বাংলাদেশ সরকারের প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা কঠোর হুশিয়ারী উচ্চারন করে বলেন, দেশের যুব ও ছাত্র সমাজ ধ্বংসকারী মরণ নেশা ইয়াবা ব্যবসায়ীদের তালিকা তৈরি করে তাদেরকে কঠোর হস্তে দমন করার নির্দেশ দেন। শুধু তাই নয়, মাদক ও ইয়াবা ব্যবসায়ীরা যতবড়ই ক্ষমতাধর হোক না কেন, কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না।

তারই সূত্র ধরে গত ২৪ মে টেকনাফে জঙ্গী ও মাদক বিরোধী সমাবেশে বাংলাদেশ পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) একে এম শহিদুল হক ইয়াবা ও মাদক ব্যবসায়ীদের উদ্দেশ্য বলেন ইয়াবা ব্যবসা ছেড়ে দিন। অন্যতায় দেশ ছাড়তে হবে।

এ ব্যাপারে কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না বলে হুশিয়ারী উচ্চারন করলেও প্রশাসনের নিঃস্কৃতার ফলে অদ্যবদি পর্যন্ত ইয়াবা কারবারীরা ধরা ছোয়ার বাইরে। এ নিয়ে সাধারন জনগনের মাঝে মিশ্র প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে।

উখিয়া সীমান্তের চিহ্নিত ইয়াবা গডফাদার উপজেলার রাজাপালং ইউনিয়নের হিজোলীয়া তেলী পাড়া গ্রামের বাবুল আলম, তার চেইন অব কমান্ড আক্তার মিয়া , থাইংখালী পন্ডিত পাড়া গ্রামের হেলাল উদ্দিন, সে দীর্ঘ দিন ধরে ফার্ম মুরগীর ঔষুধের দোকানের আড়ালে ইয়াবা পাচার করে রাতারাতি শূণ্যে থেকে কোটিপতির খাতায় নাম লিখেছেন। যার এক সময়ে নুন আনতে পানতা লাগতো সে এখন কাড়ি কাড়ি টাকার মালিক।

হিজোলীয়া তেলী পাড়া গ্রামের নুরুল হাকিম, জালিয়াপালং ইউনিয়নের সোনাইছড়ি এলাকার শামশুল আলম সোহাগ, সোনার পাড়া এলাকার ছমি উদ্দিন, মোনাফ মার্কেট এলাকার জয়নাল প্রকাশ ইয়াবা জয়নাল, উখিয়ার দোছড়ি এলাকার আবুইল্ল্যা, সোনার পাড়া মোনাফ মার্কেট এলাকার জালাল, ঘুমধুম জলপাইতলী এলাকার ইমাম হোসেন, থাইংখালী রহমতেরবিল গ্রামের জামাল উদ্দিন প্রকাশ দাড়ী জামাল, সিকদারবিল এলাকার সাহাব উদ্দিন, মরিচ্যা পাতাবাড়ী এলাকার সদ্য গ্রেপ্তার হওয়া ইদ্রিস, পাতাবাড়ী সোনাঘোনা গ্রামের কাদের হোসেন, একই গ্রামের শফুর মিয়া, খেওয়াছড়ি এলাকার মোঃ রশিদ, একই গ্রামের ফিরোজ মিয়া, একই এলাকার বাঘ গোইল্ল্যা, পাতাবাড়ী এলাকার উলা সুরুত আলম প্রকাশ ভুট্রো, একই এলাকার অলী আহম্মদ, টাইপালং গ্রামের গিয়াস সিকদার, উখিয়ার সিকদারবিল গ্রামের ইয়াবা সিরাজ, কুতুপালং শরণার্থী ক্যাম্পের জিয়াবুল প্রকাশ ইয়াবা জিয়াবুল, লম্বাঘোনা এলাকার মাহমুদুল করিম খোকা, পালংখারী ফারিরবিল গ্রামের জসিম উদ্দিন, বালুখালী গ্রামের জাহাঙ্গীর আলম ও কথিত জনপ্রতিনিধি, রাজনৈতিক নেতা নামধারী দালাল সহ উখিয়া সীমান্তের প্রায় ৫শতাধিক ইয়াবা কারবারীরা গ্রেপ্তার এড়াতে নিজ এলাকা ছেড়ে অন্যত্রে পালিয়ে বেড়াচ্ছে বলে জানা গেছে।

এ ব্যাপারে উখিয়া থানার ওসি মোঃ আবুল খায়ের ইয়াবা ও মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলে তিনি জানান।

পাঠকের মতামত

মিয়ানমারের আরেক গুরুত্বপূর্ণ শহর বিদ্রোহীদের দখলে

মিয়ানমারের বিদ্রোহীরা দেশটির আরও একটি গুরুত্বপূর্ণ শহরের দখল নিয়েছে। মিয়ানমারের জান্তাবিরোধী সশস্ত্র রাজনৈতিক গোষ্ঠী তা’আং ...

চট্টগ্রাম-কক্সবাজার ও দূরপাল্লার ট্রেন পটিয়া স্টেশনে যাত্রা বিরতির দাবি

চট্টগ্রাম–কক্সবাজার ও দূরপাল্লার ট্রেন পটিয়া স্টেশনে যাত্রা বিরতিসহ বিভিন্ন দাবিতে রেলমন্ত্রী জিল্লুল হাকিমকে স্মারকলিপি দিয়েছেন ...