ডেস্ক নিউজ
প্রকাশিত: ০৩/০৬/২০২৩ ৯:৪৪ এএম

উখিয়ার রাজাপালং ইউনিয়নের পুর্ব দরগা বিল দক্ষিণপাড়া স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদ্রাসার ৩০ লাখ টাকা ব্যয়ে নতুন ভবন নির্মাণ কাজের শুভ উদ্বোধন করলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও রাজাপালং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরী। ।

শুক্রবার (২জুন) জুমার নামাজ শেষে ধর্মপ্রাণ শত শত মুসল্লিদের উপস্থিতিতে মসজিদ প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন মাদ্রাসার সাবেক সুপার মাওলানা সৈয়দ আকবর মেম্বার।

স্থানীয় ৪নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি দাতা সদস্য সাবেক ছাত্রনেতা শাহজাহান মুন্সীর সঞ্চালনায় এতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরী বলেন, দরগাহবিল এলাকার মানুষদের আমার পরিবারের সদস্য মনে করি। এই মাদ্রাসা নিজ প্রতিষ্ঠানে হিসেবে এখানে যা যা প্রয়োজন বা অপূরণ রয়েছে অতীতে তা পূরণ করে আসছি।

তাই ২০২৩-২৪অর্থবছরের ইউনিয়ন পরিষদের পক্ষ থেকে সবচেয়ে বড় বাজেট ৩০ লাখ টাকা এখানে বরাদ্দ দেওয়া হয়। যা অতীতে কেউ চিন্তাও করেনি। আগামী জাতীয় নির্বাচনে আওয়ামী লীগের নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী হিসেবে আপনাদের সকলের কাছে দোয়া কামনা করছি
বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এলজিইডির উখিয়ার উপ-সহকারী প্রকৌশলী সোহরাব আলী,স্থানীয় ইউপি সদস্য ইকবাল বাহার।

অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন মাদ্রাসা পরিচালনা কমিটির সদস্য আদর্শবান ও নিষ্ঠাপরায়ন শিক্ষক ফজলুল করিম, স্থানীয় প্রবীণ মুরব্বি হাজী জালাল আহমদ, হাজি নাজির হোসেন, মাদ্রাসার বর্তমান ভারপ্রাপ্ত সুপার মাওলানা সুলতান আহমদ, প্রবীণ ব্যক্তি আবুল হোছন মুন্সি, উখিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ন আহবায়ক মহিউদ্দিন জয় প্রমূখ।

এসময় উপস্থিত ছিলেন বিশেষ অতিথি রাজাপালং ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সাবেক ছাত্রনেতা শিক্ষক ও এডভোকেট এটিএম রশিদ, সুশাসনের জন্য নাগরিক সুজন উখিয়ার সভাপতি সাংবাদিক নূর মোহাম্মদ সিকদার,উখিয়া প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক রতন কান্তি দে, ৬ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি বিআরডিবি উখিয়ার চেয়ারম্যান মুফিজ কন্ট্রাক্টর, রাজাপালং ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সাইফুল ইসলাম , 8 নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হামিদুল হক ভান্ডারী সহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

মাদ্রাসা কমিটির পক্ষ থেকে বক্তৃতায় বলা হয় জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরী ইতিপূর্বে পরিষদের পক্ষ থেকে ২ লাখ টাকা এবং ব্যক্তিগতভাবে মাদ্রাসার শিক্ষার্থীদের জন্য পোষাক, বাউন্ডারি ওয়ালের জন্য নগদ অর্থ সহ অনেক সহায়তা করেন।

এছাড়া তার বড় ভাই কক্সবাজার জেলা পরিষদের সদস্য অধ্যাপক হুমায়ুন কবীর চৌধুরী ও জেলা পরিষদ থেকে ১লাখ টাকার অনুদান বরাদ্দ দেন। তাদের আন্তরিক সহযোগিতার কারণে বর্তমানে মসজিদ ও মাদ্রাসার শিক্ষাসহ সার্বিক সুন্দর পরিবেশ বিরাজ করছে। তাদের প্রতি মাদ্রাসা ও মসজিদ কমিটি ও এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে ধন্যবাদ সহ কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করা হয়।

অনুষ্ঠানের শুরুতে প্রধান অতিথি সহ অন্যান্যদের মসজিদ-মাদ্রাসা কমিটির পক্ষ থেকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান। পরে নতুন ভবন নির্মাণ কাজের শুভ উদ্বোধন এবং মোনাজাত করা হয়।

পাঠকের মতামত

উখিয়ায় অনুমোদন বিহীন ব্যানার-ফেস্টুন অপসারণ শুরু

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে নির্বাচনে সম্ভাব্য প্রার্থীগণের অনুমোদন বিহীন ব্যানার-ফেস্টুন অপসারণে অভিযান শুরু করেছে ...