ঘুমধুমের ৩ কেন্দ্রে চেয়ারম্যান প্রার্থীর এজেন্ট ছাড়া নির্বাচন!

বান্দরবান জেলার নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুমধুম ইউনিয়ন নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বি এক চেয়ারম্যান প্রার্থীর এজেন্ট বের করে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। তিন কেন্দ্রে কোন এজেন্ট বসতে দেওয়া হয়নি বলে তার অভিযোগ। ঘোড়া প্রতীকের স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী রশিদ আহমদ সাংবাদিকদের জানান, তিনি বিপুল ভোটের ব্যবধানে জয় লাভ করার এক মাত্র বাধা হলো, নৌকা প্রতীকের প্রার্থী জাহাঙ্গির আজিজের সমর্থকরা তার নির্বাচনী ৩ কেন্দ্র থেকে তার সকল এজেন্ট বের করে দিয়েছেন।তার কোন প্রতিনিধি ছাড়াই এ ৩ কেন্দ্রে নির্বাচন শেষ হয়। যা নজির বিহীন ঘটনা। তার এজেন্টদের অনুপস্থিতিতে নির্বাচনের দায়িত্বে থাকা লোকজনের সহায়তায় জাহাঙ্গির আজিজ বহিরাগতদের দিয়ে তিনি ভোট নিয়েছেন। যাদের মধ্যে রোহিঙ্গাও আছে। নচেৎ তার এজেন্ট বের করে দেয়া হলো কেন? তিনি আরও জানান- সরকার স্বচ্ছ ও নিরপেক্ষ চাইলেও এখানে তা হয় নি। এ কারণে তিনি তার নির্বাচনী এলাকায় এ ৩ কেন্দ্রের পূনরায় নির্বাচনের দাবি জানান।
অপর দিকে নৌকা প্রতীকের জাহাঙ্গির আজিজ বলেন- ঘোড়ার এজেন্ট তিনি বের করে দেননি। দিয়েছেন অফিসাররা। তিনি এ তিন কেন্দ্রের নির্বাচন সুষ্ঠু হওয়ার দাবি করেন।
অপর দিকে অভিযুক্ত তুমব্রু ও ভাজাবুনিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার দ্বিতীয়ময় চাকমা ও মো. শাহ আলম জানান, তারা ঘোড়া প্রতীকের এজেন্ট বের করে দিয়েছেন উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে। কেননা তারা অন্য ওয়ার্ডের লোক ছিলো।
উপজেলা নির্বাচন অফিসার আবু জাফর ছালেহ জানান, তাদেরকে বের করে দেয়ার বিষয়টি হলো, প্রথমে তারা অভিযুক্ত ছিলো। দ্বিতীয়ত তারা অন্য ওয়ার্ডের ভোটার ছিলো।

সুত্র: পার্বত্যনিউজ

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন