টেকনাফে গর্জন বাগান থেকে এক গৃহবধূর মৃতদেহ উদ্ধার

আব্দুস সালাম,টেকনাফ(কক্সবাজার):
কক্সবাজারের টেকনাফ বাহারছড়ার গর্জন বাগান থেকে এক গৃহবধূর মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল রবিবার রাত আটটার দিকে উপজেলার বাহারছড়া ইউনিয়নের জাহাজপুরা গর্জন বাগান এলাকা থেকে ওই গৃহবধূর মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।
সোমবার সকালে মৃতদেহটি ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।
ওই গৃহবধূর নাম নুরুন্নাহার (৩৫)। সে উপজেলার বাহারছড়া ইউনিয়নের জাহাজপুরা গ্রামের বাসিন্দা মৃত মোহাম্মদ হোসেনের মেয়ে ও মৃত আবুল কাশেমের স্ত্রী। নুরুন্নাহার তাঁর ছেলে রুবেলকে নিয়ে বসবাস করেন এবং দিনমজুরের কাজ করেন।

ওই গৃহবধূর ভাই ছৈয়দুল আমিন ও নুরুল মোস্তফা জানান, গতকাল সকালে রুবেল ভাত খেয়ে নৌকা নিয়ে সাগরে মাছ শিকারে যান। নুরুন্নাহার নিজেই গতকাল সকালে রান্না করেছিলেন। রুবেল বাড়ি থেকে যাওয়ার কিছুক্ষণ পর নুরুন্নাহারও কাজের সন্ধানে বাড়ি থেকে বের হন। তবে কাজ শেষে নুরুন্নাহার গতকাল সন্ধ্যায় সময়মতো বাড়ি না ফেরায় তাঁর দুই ভাই খোঁজাখুঁজি শুরু করেন। অনেক খোঁজাখুঁজির পর তাঁদের বাড়ি থেকে পাশের জাহাজপুরা গর্জন বাগানের পাহাড়ি এলাকায় নুরুন্নাহারের নিথর মৃতদেহ পাওয়া যায়। খবর পেয়ে বাহারছড়া তদন্তকেন্দ্রের পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে মৃতদেহটি উদ্ধার করে।

এ ব্যাপারে বাহারছড়া পুলিশ তদন্তকেন্দ্রের পুলিশ পরিদর্শক নূর মোহাম্মদ জানান, মৃতদেহটির শরীরের বিভিন্ন স্থানে ক্ষতের চিহ্ন থাকায় স্বাভাবিক মৃত্যু বলে মনে হচ্ছে না। ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন পেলে মৃত্যুর প্রকৃত কারণ নিশ্চিত হওয়া যাবে। আজ সকালে মৃতদেহটি ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় একটি অপমৃত্যু মামলা রুজু করা হয়েছে।

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন