প্রকাশিত: ০৪/০৪/২০১৭ ১১:২৭ পিএম , আপডেট: ০৫/০৪/২০১৭ ১১:২১ এএম

হায়রে মা…

বিকাল ৪ টা,সী লাইন পরিবহনে কক্সবাজার যাচ্ছি,আমার ঠিক পেছনের সিটে ছেলেকে নিয়ে কক্সবাজার  যাচ্ছে বৃদ্ধ এক মহিলা। সম্ভবত অসুস্থ মহিলাটিকে চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার নিয়ে যাচ্ছে তার ছেলে। গাড়ীটি কিছুদূর যেতে না যেতেই হঠাৎ পেছেনের সিটে কান্নার রোল। পেছনে তাকিয়ে দেখি তার আরেক ছেলের সাথে মোবাইলে কথা বলতে বলতে বৃদ্ধ মহিলাটি অঝোর ধারায় কাঁদছে। মহিলাটির কথা ছিল ঠিক এরকম “বাবা আমি খুব অসুস্থ”তোর বৌ ও তুই আমার কোন খবরাখবর রাখিস না। আমি কক্সবাজার যাচ্ছি হাসপাতালে,বাচঁব কি মরব জানিনা,তোর কোন টাকা আমার লাগবেনা,তোকে খুব দেখতে ইচ্ছে বাবা,কতদিন তোকে দেখিনা,পারলে একটু আয় বাবা,তোকে একনজর একটু দেখব। কান্নার জন্য অস্পষ্ট কথাগুলো ঠিক আর বুঝা যায়নি। মনটা খারাপ হয়ে গেল। গাড়ী চলছে কক্সবাজারের উদ্দেশ্য। পেছনে আবারো থাকালাম,ছেলের সাথে মোবাইলে কথা শেষ করার পরও কালো বোরকা পড়া বৃদ্ধ মহিলাটি বারবার চোখ মুছচ্ছিল,আর একটু পরপর বলছিল ও বাপ,ও বাপ। মা এমনই হয়। “হাইরে মা”।  (সাংবাদিক সরওয়ার আলম শাহীনের ফেইসবুক ওয়াল থেকে নেওয়া)

পাঠকের মতামত

মিয়ানমারে সংঘাত/টেকনাফ সীমান্ত দিয়ে ঢুকল আরও ৯ বিজিপি সদস্য

মিয়ানমারের রাখাইনে সংঘাতময় পরিস্থিতিতে কক্সবাজারের টেকনাফ সীমান্ত দিয়ে বাংলাদেশে অনুপ্রবেশ করেছে মিয়ানমার সীমান্ত রক্ষী বাহিনী ...