প্রকাশিত: ১৪/০২/২০১৭ ৮:৫৭ পিএম

মুহাম্মদ জুবাইর, টেকনাফ::

চিরনিদ্রায় শায়িত হয়েছেন বিশিষ্ট সমাজ সেবক, শিক্ষানুরাগী সাবরাং ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি জাহেদ হোসেন। বাড়িতে লাশ পৌছার সংবাদ ছড়িয়ে পড়লে তাকে এক নজর দেখে শেষ বিদায় জানাতে শোকাহত জনতার ভিড় জমে।

১৪ ফেব্রুয়ারী মঙ্গলবার বেলা ২টায় সাবরাং উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে সাবরাং দারুল উলুম মাদ্রাসার মুহতামিম মাওঃ নুর আহমদের ইমামতিতে নামাজে জানাযা শেষে স্থানীয় কবরস্থানে তার জানাযা ও দাফন সম্পন্ন করা হয়েছে। তার হানাযায় শোকাহত মানুষের ঢল নেমেছে।

জানাযার পূর্বে বক্তব্য রাখেন, জেলা আওয়ামীলীগ সাধারন সম্পাদক মুজিবুর রহমান চেয়ারম্যান, সহ-সভাপতি রেজাউল করিম, সাংসদ আব্দুর রহমান বদি, সাবেক সাংসদ অধ্যাপক মোহাম্মদ আলী, উপজেলা চেয়ারম্যান জাফর আহমদ, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান ও জেলা পরিষদ সদস্য মো: শফিক মিয়া, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী হাবিবুর রহমান, আওয়ামীলীগ নেতা আবুল কালাম ও মরহুমের ছোট ভাই সাবরাং ইউপি চেয়ারম্যান নুর হোসেন প্রমুখ।

জানাযায় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো: শফিউল আলম, বিশিষ্ট শিল্পপতি ও সমাজ সেবক মো: ইয়াহিয়া, রামু উপজেলা আলীগ সভাপতি ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান সোহেল সরওয়ার কাজল, উপজেলা ভাইস-চেয়ারম্যান মাওঃ রফিক উদ্দীন,সাবেক ভাইস-চেয়ারম্যান এইচ, এম ইউনুছ বাঙ্গালী,প্যানেল মেয়র-১ মাওঃ মুজির্বুরহমান, জেলা যুবলীগ সহ-সভাপতি সোহেল আহমদ বাহাদুর, বিএনপি নেতা সুলতান আহমদ বিএ, টেকনাফ উপজেলা আওয়ামীলীগ সা: সম্পাদক নুরুল বশর, উপজেলা বিএনপি সাধারন সম্পাদক মো: আব্দুল্লাহ এলএলবি, পৌর আওয়ামীলীগ সভাপতি জাবেদ ইকবাল চৌধুরী, উপজেলা যুবলীগ সভাপতি নুরুল আলম চেয়ারম্যান, উপজেলা কৃষকলীগ সভাপতি এবিএম আবুল হোসেন রাজু, আওয়ামীলীগ-বিএনপি দলীয় নেতাকর্মীসহ সর্বস্থরের জনসাধারন, আলেম ওলামা সহ রাজনৈতিক ও সামাজিক নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।জানাযার পূর্বে সৃতি চারনে নেতৃবৃন্দ বলেন জাহেদ হোসেন এক ত্যাগী নেতা ছিলেন।তার ইন্তেকালে দল ও অত্র এলাকার অপুরনীয় ক্ষতি হয়েছে যা কখনো পুরন হবার নয়।আমরা তার বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করছি।

উল্লেখ্য লিভারসিরোসিস রোগে আক্রান্ত হয়ে ১২ ফেব্রুয়ারী বাংলাদেশ সময় সকাল সাড়ে ৭টার দিকে ভারতের দিল্লীর ইনস্টিটিউট অব লিভার এন্ড বিলিয়ারিটি সাইন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিঃশাষ ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে তিনি পিতা, ভাই-বোন, ৫ ছেলে, স্ত্রী, আতœীয়-স্বজন, রাজনৈতিক সহকর্মী ও শুভাকাংখী রেখে গেছেন।

পাঠকের মতামত

মিয়ানমারে সংঘাত/টেকনাফ সীমান্ত দিয়ে ঢুকল আরও ৯ বিজিপি সদস্য

মিয়ানমারের রাখাইনে সংঘাতময় পরিস্থিতিতে কক্সবাজারের টেকনাফ সীমান্ত দিয়ে বাংলাদেশে অনুপ্রবেশ করেছে মিয়ানমার সীমান্ত রক্ষী বাহিনী ...