প্রকাশিত: ২৭/০৯/২০১৭ ৯:১৩ পিএম , আপডেট: ১৭/০৮/২০১৮ ১:০০ পিএম

উখিয়া নিউজ ডেস্ক::
রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ বলেছেন, বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে মিয়ানমারকে বাধ্য করতে হবে । একই সঙ্গে রোহিঙ্গাদের সহযোগিতা করতে সবার প্রতি আহ্বান জানান তিনি। শারদীয় দুর্গাপূজা উপলক্ষে বুধবার (২৭ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর রামকৃষ্ণ মিশন ও মঠে পূজা পরিদর্শনে গিয়ে এক অনুষ্ঠানে বক্তব্যে এসব কথা বলেনে তিনি।

রাষ্ট্রপতি বলেন, রোহিঙ্গাদের সম্মানজনক স্বদেশ প্রত্যাবর্তন ও তাদের নাগরিক অধিকার নিশ্চিত করতে বিশ্বের সকল দেশ ও আন্তর্জাতিক সংস্থাকেও এগিয়ে আসতে হবে। মিয়ানমারকে তাদের নাগরিকদের স্বদেশে ফিরিয়ে নিতে বাধ্য করতে হবে। বন্যার কারণে হাওরাঞ্চলসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় হিন্দু সম্প্রদায়ের অনেকের আনন্দের সঙ্গে দুর্গোৎসব উদযাপন করতে না পারার বিষয়টি উল্লেখ করেন প্রেসিডেন্ট।

তিনি বলেন, কেউ যাতে উৎসবের আনন্দ থেকে বঞ্চিত না হয় সে লক্ষ্যে আপনারা দুর্গোৎসবের আনন্দকে সবার মাঝে ছড়িয়ে দিতে উদ্যোগী হবেন। ধর্মের বিভেদকে দূরে সরিয়ে রাখার আহ্বান জানিয়ে মো. আবদুল হামিদ বলেন, আজ বিশ্বজুড়ে হিংসা, বিদ্বেষ আর ধ্বংস আমাদের সামনে এক ভয়াবহ অশনি সঙ্কেত হয়ে দেখা দিয়েছে। এ হত্যা আর ধ্বংস প্রতিরোধে আমাদেরকে ধর্মের অহিংস ও শান্তির অমিয় বাণী বিশ্ব জনতার কাছে তুলে ধরতে হবে।

রামকৃষ্ণ মিশনে প্রেসিডেন্ট পৌঁছালে তাকে অভ্যর্থনা জানান মঠের অধ্যক্ষ স্বামী ধ্রুবেশানন্দ মহারাজ। এ সময় স্থানীয় সংসদ সদস্য কাজী ফিরোজ রশীদ, বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ ও মহানগর সার্বজনীন পূজা উদযাপন কমিটির পরিষদের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। এর আগে প্রেসিডেন্ট মো. আবদুল হামিদ জাতীয় ঢাকেশ্বরী মন্দিরের দুর্গাপূজা পরিদর্শন করেন। ঢাকেশ্বরী মন্দিরে তিনি শারদীয় দুর্গোৎসবের সার্বজনীনতার কথা তুলে ধরেন। একই সঙ্গে বিভিন্ন সময়ে হিন্দু সম্প্রদায়ের উপর হামলা ঠেকাতে নিজের সরাসরি অংশ নেওয়ার বিষয়টিও উল্লেখ করেন তিনি।

পাঠকের মতামত

সেনাবাহিনীর প্রধান হলেন লেফটেন্যান্ট জেনারেল ওয়াকার-উজ-জামান

সেনাবাহিনী প্রধান হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন লেফটেন্যান্ট জেনারেল ওয়াকার-উজ-জামান। আগামী ২৩ জুন তিনি সেনাপ্রধান হিসেবে দায়িত্ব ...