প্রকাশিত: ১৭/১০/২০১৭ ৭:২৬ এএম , আপডেট: ১৭/০৮/২০১৮ ১২:১০ পিএম

ডেস্ক রিপোর্ট ::

এশিয়া-ইউরোপ সামিটভুক্ত (আসেম) দেশগুলোর ১৩তম সম্মেলনে যোগ দিতে মিয়ানমার যাচ্ছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এএইচ মাহমুদ আলী। দেশটির স্টেট কাউন্সেলর অং সান সু চির আমন্ত্রণে তিনি এই সম্মেলনে যোগ দিতে যাচ্ছেন। আগামী ২০ ও ২১ নভেম্বর মিয়ানমারের রাজধানী নেপিদোয় আসেমভুক্ত দেশগুলোর পররাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যায়ের এ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। এ সম্পর্কে সরকারের একজন কর্মকর্তা বলেন, ‘পররাষ্ট্রমন্ত্রী আসেমে যোগ দেবেন। আশা করি, তিনি ১৯ নভেম্বর মিয়ানমার যাবেন।’

এর আগে ২ অক্টোবর মিয়ানমারের ইউনিয়নমন্ত্রী টিন্ট সোয়ের সঙ্গে বৈঠকের পরে মাহমুদ আলী বলেছিলেন, ‘আমি মিয়ানমার যাব।’

এ প্রসঙ্গে ওই কর্মকর্তা  আরও বলেন, ‘ইউরোপীয় ইউনিয়ন সোমবার পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের এক বৈঠকে একটি রেজ্যুলেশন গ্রহণ করেছে। সেখানে আসেম সম্মেলনে মূল এজেন্ডার পাশাপাশি রোহিঙ্গা ইস্যু নিয়ে আলোচনার বিষয়টিও উঠে এসেছে।’

জাপানের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর ঢাকা সফর  

জাপানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ফোমিও কিশিদা দুই দিনের সফরে আগামী মাসে ঢাকা আসার কথা রয়েছে।

এ প্রসঙ্গে সরকারের একজন কর্মকর্তা বলেন, ‘জাপানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ১৮ অক্টোবর ঢাকা আসবেন। তার পরদিন ঢাকা থেকে মিয়ানমারে যাবেন।’ তিনি বলেন, ‘জাপান নিরাপত্তা পরিষদের সদস্য। রোহিঙ্গা ইস্যুতে তাদের সমর্থন চাইবে বাংলাদেশ।’

সরকারের এই কর্মকর্তা আরও বলেন, ‘রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে নিরাপত্তা পরিষদের ভূমিকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। কারণ এই সংস্থার চাপে প্রয়োগের ক্ষমতা আছে। আমরা নিরাপত্তা পরিষদের সব সদস্যের সঙ্গে নিবিড় যোগাযোগ রক্ষা করে চলেছি। আশা করি, এ বিষয়ে নিরাপত্তা পরিষদে আরও আলোচনা হবে।’

উল্লেখ্য, চলতি বছরের ২৫ আগস্ট রোহিঙ্গাদের ওপর মিয়ানমারের সামরিক বাহিনীর নির্যাতন শুরু হলে চার বার রুদ্ধদ্বার ও উন্মুক্ত আলোচনা হয় নিরাপত্তা পরিষদে। এরপর থেকে প্রায় পাঁচ লাখ ৫০ হাজার রোহিঙ্গা বাংলাদেশে পালিয়ে এসেছে। এছাড়া এর আগে থেকেই বাংলাদেশে চার লাখের মতো রোহিঙ্গা অবস্থান করছিল।

পাঠকের মতামত

সেনাবাহিনীর প্রধান হলেন লেফটেন্যান্ট জেনারেল ওয়াকার-উজ-জামান

সেনাবাহিনী প্রধান হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন লেফটেন্যান্ট জেনারেল ওয়াকার-উজ-জামান। আগামী ২৩ জুন তিনি সেনাপ্রধান হিসেবে দায়িত্ব ...