উখিয়া নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: ২৭/০৬/২০২৩ ১০:৪৪ এএম

পেট্রল, ডিজেল ও অকটেনের মতো জ্বালানি দিয়ে চলে যানবাহন। কিন্তু নিরন্তর ব্যবহারের ফলে একসময় এসব জ্বালানির বৈশ্বিক ভান্ডার শেষ হয়ে যাবে। তাই ভবিষ্যতে জ্বালানি তেলের বিকল্প হিসেবে বিদ্যুতে চলবে এমন গাড়ি নির্মাণের পরিকল্পনা করছে মার্সিডিজ বেঞ্জ, টেসলার মতো বিশ্বখ্যাত গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠানগুলো।

এদিকে বিষয়টিকে মোকাবিলা করার জন্য জ্বালানি তেলের নতুন আরেকটি বিকল্প হাজির করেছে ভারতীয় কর্তৃপক্ষ। শুধুমাত্র ইথানল ব্যবহার করেই চলতে পারবে এমন গাড়ি বাজারে আনার পরিকল্পনা করেছে দেশটি। ভারতের সড়ক পরিবহন ও হাইওয়ে মন্ত্রী নিতিন গড়কড়ি এই ঘোষণা দেন।

এ বিষয়ে সোমবার দ্য হিন্দুর এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত রোববার মহারাষ্ট্রের নাগপুরে মার্সিডিজ বেঞ্জ-এর চেয়ারম্যানের সঙ্গে দেখা হয় নিতিন গড়কড়ির। এ সময় মার্সিডিজ বস মন্ত্রীকে তাঁদের নতুন বৈদ্যুতিক গাড়ি নামানোর বিষয়ে অবহিত করেন। পরে নিতিন গড়কড়ি তাঁকে ইথানলে চলতে সক্ষম গাড়ি বাজারে আনতে ভারতীয় পরিকল্পনার কথা জানান।

মন্ত্রী বলেন, ‘আমরা এমন গাড়ি আনতে যাচ্ছি, যা সম্পূর্ণরূপে ইথানলে চলবে। শিগগিরই শতভাগ ইথানলে চলতে সক্ষম স্কুটার বাজারে আনতে যাচ্ছে বাজাজ, টিভিএস ও হিরো কোম্পানি।’

এ ছাড়া আগামী আগস্টেই শতভাগ ইথানলে চলতে সক্ষম টয়োটা কোম্পানির একটি প্রাইভেটকার বাজারে আসবে বলেও জানান নিতিন। শুধু তাই নয়, ওই গাড়িটিতে ৪০ শতাংশ বিদ্যুৎও সরবরাহ করবে ইথানল।

তিনি জানান, ভারতে বর্তমানে জ্বালানি তেলের দাম ১২০ রুপি লিটার। অন্যদিকে এক লিটার ইথানল পাওয়া যায় ৬০ রুপিতে। তবে ইথানলের উৎপাদন বাড়িয়ে এই মূল্য ১৫ রুপির মধ্যে নিয়ে আসার পরিকল্পনার কথাও বলেন তিনি। এ হিসেবে বাংলাদেশি মুদ্রায় এক লিটার ইথানলের দাম হবে মাত্র ২০ টাকা।

উল্লেখ্য, ইথানল হলো এক ধরনের দাহ্য রাসায়নিক; যাকে স্পিরিট নামেও চেনেন অনেকে।

পাঠকের মতামত