প্রকাশিত: ০৭/০৯/২০১৭ ৩:২৫ পিএম , আপডেট: ১৭/০৮/২০১৮ ১:৫৬ পিএম

আবুল আলী,টেকনাফ (কক্সবাজার) :
কক্সবাজারে টেকনাফের উপজেলার বিভিন্ন এলাকার থেকে আরও ১১ রোহিঙ্গা নারী ও শিশুর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার ভোররাত ৪টা থেকে সকাল সাড়ে ৮টার মধ্যে রোহিঙ্গাবাহী দুটি নৌকা ডুবে যায়।

টেকনাফ মডেল থানার ওসি মাইন উদ্দিন খান জানান, মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্য থেকে বাংলাদেশে পালিয়ে আসার পথে নাফ নদীতে নৌকাডুবিতে তাদের মৃত্যু হয়। মরদেহ ভাসতে দেখে স্থানীয়রা থানায় খবর দিলে পুলিশ গিয়ে এলাকাবাসীর সহায়তায় বৃহস্পতিবার সাবরাং ইউনিয়নে নাফ নদীর শাহপরীর দ্বীপ ২জন শিশু, ২জন নারী, টেকনাফ সদর ইউনিয়ন থেকে ৩জন শিশু. ১জন নারী, ও বাহারছড়া ইউনিয়ন ২জন শিশু, ১জন নারী, পয়েন্ট থেকে মরদেহগুলো উদ্ধার করা হয়।

মিয়ানমারের রাখাইনে দেশটির নিরাপত্তা বাহিনীর সহিংস অভিযানের মুখে নাফ নদী ও বঙ্গোপসাগর পাড়ি দিয়ে প্রতিদিনই শত শত রোহিঙ্গা বাংলাদেশে আসছে। ঝুঁকিপূর্ণ এই পারাপারে নৌকা ডুবে প্রাণহানি ঘটছে।

পাঠকের মতামত

জটিল রোগে আক্রান্ত হচ্ছে রোহিঙ্গারা -এমএফএফ-এর সমীক্ষা

বাংলাদেশের রোহিঙ্গা শরণার্থী শিবিরে অপর্যাপ্ত হেপাটাইটিস সি চিকিৎসা ব্যবস্থা এর কারনে আক্রান্তের সংখ্যা উদ্বেগজনক হওয়া ...

শপথ নিলেন উখিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যানরা!

কক্সবাজারের উখিয়া উপজেলা পরিষদের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরী, ভাইস চেয়ারম্যান রাসেল চৌধুরী এবং মহিলা ...