প্রকাশিত: ০৯/০৫/২০১৭ ৩:১০ পিএম

দুটি হাতের উপর ভর করে স্কুলে গিয়ে করছে লেখাপড়া

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি ::

নাম মো: আপন আলী। বয়স ৮। সবার মত আপনও স্বাভাবিক ছিল। ৫ বছর বয়সে বাবা মা সাথে হাইওয়ে রাস্তা পাশ দিয়ে যাওয়ার সময় দৌড় দিলে চলন্ত ট্রাক আপনের পায়ের উওর দিয়ে চলে যায়। গুরুতর অবস্থায় প্রথমে বগুড়া তার পর ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে চিকিৎসা করে। তাতে আপনের দুটি পা হারিয়ে ফেলে।

অন্য দিকে ভুমিহীন বাবা ধার দেনা করে ছেলের চিকিৎসার জন্য প্রায় ২ লাখ টাকা খরচ করে ফেলে। আপনে বাবা ফিরোজ আলী সিরাজগঞ্জ জেলার উল্লাপাড়া উপজেলার দূর্রগানগর ইউনিয়নের মুধুপুর গ্রামে নানীর বাড়িতে থাকে পরিবার নিয়ে।

এতিম ভুমিহীন ফিরোজ আলী একজন দিন মুজুর। আপন পা না থাকলেও লেখাপড়া চালিয়ে যাচ্ছে ১ কিলোমিটার রাস্তা প্রতিদিন হাতের উপর ভর করে স্কুলে স্কুলে যায়।নার্সারি তে লেখাপড়া করছে। আপনের একটি বোন আছে ৩ বছর বয়স।

আপনের মা ঝড়না বেগম জানান, সবার ছেলে যখন হেটে হেটে স্কুলে যায় আর আমার ছেলে হাতের উপরে করে স্কুলে আমার খুব খারাপ লাগে। মাঝে আমি স্কুলে নামিয়ে দিয়ে আসি। কেউ যদি আমার ছেলে দুটি কৃএিম পা লাগিয়ে ও একটি হুইল চেয়ার দিত তাইলে আমার ছেলে আর এত কষ্ট করে স্কুলে যাওয়া লাগতো না। আপনের নামে একটি প্রতিবন্ধী কার্ড আছে।

সেদিনের দূরঘটনার কথা বলতে গিয়ে কেঁদে ফেলেন আপনের মা। আমার চোখের সামনে আপনের পায়ের উপর দিয়ে চলন্ত ট্রাক চলে যায় আমি কিছু করতে পারলাম না।

আপনের মা আরো জানান, আমরা তো ভুমিহীন, সরকার তো অনেক মানুষ কে জমি দেয়। দয়া করে যদি আমাদের একটু জায়গার ব্যবস্থা করে দেয় তাইলে আপন কে নিয়ে একটু শান্তিতে থাকতে পারতাম।

চাইলে আপনে সাহায্যর হাত বাড়িয়ে দিতে পারেন। যোগাযোগ করতে পারেন: সাংবাদিক মামুন বিশ্বাস 01722-378461 01777-283829 (বিকাশ পারসোনাল)।

পাঠকের মতামত

সপ্তাহজুড়ে বৃষ্টির আভাস

আবহাওয়া অধিদপ্তর আগামী সপ্তাহজুড়ে সারাদেশে বৃষ্টি হতে পারে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে। সেই সঙ্গে সপ্তাহজুড়ে বৃষ্টির ...