প্রকাশিত: ০৬/০২/২০১৭ ৮:১৫ এএম , আপডেট: ০৬/০২/২০১৭ ৮:১৬ এএম

এ.এম হোবাইবসজীব,চকরিয়া:

কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলার বদরখালীতে লবণের বাম্পার উৎপাদনের ধুম পড়েছে। জেলার সব উপকূলীয় এলাকার লবণ মাঠে চাষিরা লবণের সঠিক দাম পেলে ও বদরখালী লবণ মাঠে উৎপাদিত লবণের ন্যায্য মূল্য পাচ্ছেন চাষিরা। বদরখালী লবণ চাষি নুরুল আলম জানান, বিদেশ থেকে লবণ আমদানির কারণে এত দিন তাঁরা মাঠে উৎপাদিত লবণের ন্যায্যমূল্য পায়নি। গত কয়েক মাস ধরে সরকার লবণ আমদানি বন্ধ ঘোষণা দিলে মাঠে উৎপাদিত লবণের দাম দ্রুত বেড়ে যায়। তবে অন্যন্য লবণ মাঠে এখন প্রতি মণ লবণ বিক্রি হচ্ছে ২৫০ থেকে ২৬০ টাকায়। বদরখালী বিক্রি হচ্ছে ২০০ থেকে ২২০ টাকায়। লবণের ন্যায্য মূল্য দাবি চাষিদের।

অপরদিকে বদরখালী লবণ শিল্পকে ধবংসের পায়তারায় মাঠে নেমেছে প্রভাবশালী চার দালাল সিন্ডিকেট বলে অভিযোগ উঠেছে। জানা গেছে, বদরখালী সমিতির ১নং লটারী ঘোনা, পশ্চিম নতুন ঘোনা, এ চার দালাল সিন্ডিকেট করে লবণের ন্যায মূল্য দিচ্ছেনা লবণ চাষিদের। সরকারের নির্ধারণ করা প্রতি মণ সাদা লবণ বিক্রি হচ্ছে মাঠে ২৫০ থেকে ২৬০ টাকায়। অথচ বদরখালী এসব লবণ মাঠে চাষিদের উক্ত দালাল সিন্ডিকেট বিভিন্ন অজুহাত দেখিয়ে নয় ছয় করে তাদেরকে সাদা লবণ মণ প্রতি দাম দিচ্ছেন ২’শ থেকে ২’শ ২০ টাকা পর্যন্ত।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন লবণ চাষি জানান, উক্ত দালাল সিন্ডিকেটের কাছে এসব মাঠের লবণ চাষিরা জিম্মি হয়ে পড়েছেন। অনুসন্ধানে জানা গেছে, পাশ্ববর্তী উপকূলীয় ইউনিয়ন দরবেশকাটা এলাকার লবণ মাঠে সাদা লবণ বিক্রি হচ্ছে মণ প্রতি ২’শ ৫০ থেকে সাড়ে ২’শ ৬০ টাকায়। অথচ বদরখালী লবণ মাঠে তার উল্টো। শুক্রবার সকালে সরেজমিন বদরখালী লবণ মাঠ ঘুরে দেখা গেছে, হাজার হাজার একর জমিতে চাষিরা সমুন্দ্রের লোনা পানি ঢুকিয়ে সূর্য তাপে সেই পানি শুকিয়ে উৎপাদন করছেন সাদা সোনা খ্যাত লবণ। বিকেলে সেই লবণ চাষিরা ঘরে তুলছেন। অথচ মাথার ঘাম পাঁয়ে পেলে কষ্টে অর্জিত লবণের সঠিক দাম পাচ্ছেনা অত্র এলাকার লবণ চাষিরা। তারা ক্ষোভ আর হতাশায় ভোগছেন। তাই সংশ্লিষ্ট লবণ চাষিরা লবণের ন্যায মূল্য নিশ্চিত করার জন্য বিসিক কর্মকর্তাসহ প্রশাসনের শীর্ষ কর্মকতাদের সু-দৃষ্টি কামনা করেছেন।

পাঠকের মতামত

উখিয়ার বন কর্মকর্তা সাজ্জাদুজ্জামান হত্যা: পালিয়েও শেষ রক্ষা হলোনা ঘাতক বাপ্পীর!

উখিয়া রেঞ্জের দোছড়ি বিট কর্মকর্তা মো. সাজ্জাদুজ্জামান সজলকে সরকারি দায়িত্ব পালনকালে গত ৩১মার্চ রাত আনুমানিক ...

মুখোমুখি সংঘর্ষ থেকে রক্ষা পেল কক্সবাজার এক্সপ্রেস ও পর্যটক এক্সপ্রেস

দুই ট্রেনচালকের সতর্কতায় বড় ধরনের দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পেয়েছে কক্সবাজার এক্সপ্রেস ও পর্যটক এক্সপ্রেস। স্টেশনমাস্টার ...

মিয়ানমারে বন্দি ১৪ বাংলাদেশি জেলে, ভিক্ষা করে চলছে মুবিনার সংসার!

কক্সবাজারের টেকনাফের সাবরাং ইউনিয়নের শাহপরীর দ্বীপের জালিয়াপাড়া। নাফ নদী সংলগ্ন বেড়িবাঁধ এলাকার বাইরে অবস্থিত গ্রামটিতে ...

উখিয়া থেকে অপহৃত স্কুলছাত্রী চট্টগ্রামে উদ্ধার, অপহরণকারী গ্রেপ্তার

কক্সবাজারের উখিয়ায় অপহৃত স্কুলছাত্রীকে চট্টগ্রাম থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। এসময় অপহরণকারীকে গ্রেপ্তার করা হয়। গত ...