প্রকাশিত: ২৬/০৮/২০১৬ ৯:১৬ এএম , আপডেট: ২৬/০৮/২০১৬ ৯:৫৬ এএম

selina akther [Max Width 320 Max Height 240]সেলিম উদ্দিন, ঈদগাঁও (কক্সবাজার) প্রতিনিধি:: কক্সবাজারের খুটাখালীতে ছাগলকর্তৃক ক্ষেত নষ্ট করার জের ধরে গৃহবধু সেলিনা আকতার(২৮)কে কুপিয়ে জখম করা হয়েছে। সে বর্ণিত ইউনিয়নের সেগুনবাগিচা ৬নং ওয়ার্ডের রাজু মিয়ার স্ত্রী। তাকে মুমুর্ষ অবস্থায় চকরিয়া উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বর্তমানে তার অবস্থা আশংকাজনক বলে জানিয়েছেন চিকিৎসক। গত রবিবার দুপুর আড়াইটার সময় ঘটে এ ঘটনা। এঘটনায় দু’জনকে আসামী করে বিজ্ঞ-সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালত চকরিয়ায় ফৌজদারী মামলা দায়ের করা হয়েছে।

মামলার বিবরণে ও আহত সেলিনার অভিযোগে জানা যায়, বর্ণিত ইউনিয়নের সেগুনবাগিচার বাসিন্দা নুর নবীর বাড়িতে তার গৃহপালিত ছাগলটি বেধে রাখে। খবর পেয়ে তিনি ছাগলটি ছাড়িয়ে আনতে গেলে নুর নবীর ছেলেরা তাদের ক্ষেত নষ্ট করার অভিযোগ তুলে গালিগালাজ করেন। এক পর্যায়ে তাদের কাছ থেকে ছাগলটি ছাড়িয়ে বাড়িতে নিয়ে আসা হলে নুর নবীর পুত্র মুছা ও গফুর দা-লাটিসোটা নিয়ে সেলিনার বাড়িতে হামলা চালায়। তাদের বাধা প্রদান করলে দু’জনই সেলিনাকে মারধর করে মাথায় কুপ দিয়ে গলা থেকে একভরি ওজনের স্বর্ণের চেইন ছিনিয়ে নেয় । সেলিনার শোর চিৎকারে এলাকাবাসী এগিয়ে আসলে অভিযুক্তরা দ্রুত ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন। পরে স্থানীয়রা রক্তাক্ত অবস্থায় সেলিনাকে চকরিয়া উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করেন। বর্তমানে তার অবস্থা সংকটাপন্ন। এ ঘটনায় সেলিনা বাদী হয়ে গত সোমবার চকরিয়া বিজ্ঞ-সিনিয়র ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে দু’জনকে আসামী করে ফৌজদারী মামলা দায়ের করেন। মামলা নং সিআর ৯২২/১৬ইং। এতে আসামীরা হলেন, ইউনিয়নের সেগুনবাগিচা গ্রামের নুর নবীর পুত্র আবু মুছা (২০) ও তার ভাই আবদুল গফুর (২২)।

পাঠকের মতামত

উখিয়ায় ৩ জনের সিন্ডিকেট দ্রব্যমূল্য বাড়াচ্ছে, প্রশাসনের নজরদারি নেই

উখিয়ায় নিত্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী গুদামজাত করে রমজানে কৃত্রিম সংকট সৃষ্টির পায়তারা করে যাচ্ছে কয়েকজন পাইকারি ...