প্রকাশিত: ০৮/০৪/২০১৭ ১০:৩২ পিএম

ফারুক আহমদ, উখিয়া::
উখিয়ার হলদিয়াপালংয়ে ৫ সন্তানের জননী বাড়ী থেকে উধাও হয়ে গেছে। স্বামী মোহাম্মদ আকতার ড্রাইভার স্ত্রী ছমুদা খাতুনকে ১৫ দিন ধরে বিভিন্ন জায়গায় খোঁজাখুঁজি করার পরও সন্ধান মেলাতে পারেনি। অনেকের অভিমত পরকীয়া প্রেমে আসক্ত হয়ে স্বামীর ঘর ছেড়ে পালিয়েছে স্ত্রী ছমুদা।
জানা যায়, উখিয়া উপজেলার হলদিয়াপালং ইউনিয়নে রুমখাঁ নতুন পাড়া গ্রামের মৃত রশিদ আহমদের পুত্র মোহাম্মদ আকতার ড্রাইভারের সাথে সদর উপজেলার পিএমখালী গ্রামের মৃত মোহাম্মদ হোছনের কন্যা ছমুদা খাতুনের মধ্যে বিবাহ হয়। তাদের সংসারে বর্তমানে ৫ সন্তান রয়েছে। স্বামী আকতার ড্রাইভার অভিযোগ করে বলেন, আমার ছোট বাচ্চাদের ফেলে স্ত্রী ছমুদা গত ১৫ দিন পূর্বে কাউকে না জানিয়ে অদৃশ্য হয়ে যায়। অনেক খোঁজাখুঁজির পরও তার হদিস মেলেনি। তবে অজ্ঞাত মোবাইল ফোন থেকে তাকে দেখে নেওয়ার হুমকি দেয়। তিনি অভিযোগ করে আরও বলেন, ইতিপূর্বে আরও ৪ বার বাড়ী থেকে পালিয়ে গেলেও স্থানীয় চেয়ারম্যান, মেম্বারের সহযোগিতায় বাড়ীতে ফিরে এনে সংসার করানোর আপ্রাণ চেষ্টা করা হয়। কিন্তু অসৎ চরিত্রের এ মহিলাটি কঁচিকাঁচা নিজ অবুজ সন্তানদের বাড়ীতে ফেলে রেখে আবারও উধাও হয়ে চলে যায়। স্বামীর অভিযোগ পর পুরুষের সাথে পরকীয়া প্রেমে আসক্ত হয়ে তিনি পালিয়ে গেছে। পালিয়ে যাওয়ার সময় বাড়ীর মূল্যবান জিনিস পত্র, স্বর্ণালংকার ও নগদ টাকা পয়সা নিয়ে যায়।

পাঠকের মতামত