প্রকাশিত: ২৯/০১/২০১৭ ৮:৪৮ পিএম

প্রেস বিজ্ঞপ্তি

উখিয়া বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ ছাত্রলীগ নেতা শাহীনের প্রথম মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে গতকাল রোববার সকালে বিশ্ববিদ্যালয় প্রাঙ্গনে শত শত ছাত্রলীগ নেতা কর্মী ও শিক্ষার্থীরা কালো বেইজ ধারন করে বিশ্ববিদ্যালয় এলাকার বিভিন্ন সড়ক শোক র‌্যালী সহকারে প্রদক্ষিন করে উখিয়া বিশ্ববিদ্যালয় মিলনায়তনে মিলত হয়। ওই সময় কলেজ মিলনায়তনে কলেজ ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক সাইদুল আমিন টিপুর সভাপতিত্বে এক স্মরন সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্টিত হয়। উক্ত স্মরন সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, উখিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক ও গণ মানুষের প্রিয় মূখ অন্যায়ের প্রতিবাদী , রাজপথের সাহসী সৈনিক মকবুল হোসাইন মিথুন, বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় তাঁতীলীগের নির্বাহী সদস্য কাজী জাফর আলম ভুলু, উখিয়া উপজেলা যুবলীগের সহ সভাপতি অহিদুল হক চৌধুরী, উপজেলা যুবলীগের প্রচার সম্পাদক, বশির আহম্মদ, ত্রান ও দূর্যোগ বিষয় সম্পাদক তহিদুল আলম, মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক মাসুদ আমিন শাকিল, উপজেলা তাঁতীলীগের সভাপতি নুরুল আলম, সাধারন সম্পাদক হেলাল উদ্দিন, রাজাপালং ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারন সম্পাদক রাসেল উদ্দিন সুজন, উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ন সম্পাদক আবু বক্কর ছিদ্দিক, আলমগীর আলম নিসা, উপজেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ইব্রাহিম আজাদ, শাহরিয়া শাকিল, তথ্য প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক ইফতেকারুল ইসলাম হিরু, মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক নুরুল হাসান, ত্রান ও দূর্যোগ বিষয়ক সম্পাদক খুরশেদ আলম, গণ শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক সাইফুল, উপÑ দপ্তর সম্পাদক মোঃ রাসেল, উপ শিক্ষা ও পাঠচক্র বিষয়ক সম্পাদক আনিসুল মোস্তফা আনিছ, উপ মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক রাসেদ, উপ ত্রান ও দূর্যোগ বিষয়ক সম্পাদক হেলাল উদ্দিন, হলদিয়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক এস কে বি লিংকন, রাজাপালং ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক লুৎফুর রহমান, জালিয়াপালং ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক জসিম উদ্দিন শামিম, কলেজ ছাত্রলীগের প্রথম বর্ষের সভাপতি ইমাম হোসেন, সাধারন সম্পাদক ইসমাইল হাসান রানা, উখিয়া সরকারী উচ্চ বিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি নাছির সম্পাদক ইসহাক, কুতুপালং উচ্চ বিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি ইমরান, সাধারন সম্পাদক মাহমুদুল হক, শহর ছাত্রলীগ সভাপতি নাঈমুল ইসলাম প্রমূখ। এ সময় অতিথিরা বলেন, উখিয়া বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ ছাত্রলীগ নেতা শাহীন হত্যাকান্ডের ১ বছর পার হলেও হত্যাকান্ডে জড়িতদের প্রশাসন এখনো গ্রেপ্তার করতে পারেনি। উক্ত শাহীন হত্যাকান্ডে জড়িতরা দিবারাত্রি এলাকায় প্রকাশ্যে ঘুরলেও প্রশাসন রহস্যজনক কারনে তাদেরকে গ্রেপ্তার করছেনা। নিহত শাহীনের মামা কাজী জাফর আলম ভুলু কান্না জড়িত কন্ঠে বলেন, ভাগিনা শাহীন হত্যাকান্ডে জড়িতরা শাহীনকে হত্যা করে ক্ষান্ত না হয়ে ফের আমার বোন ও মামলার বাদীকে আগামী ১ সাপ্তাহের মধ্যে হত্যা মামলা থেকে তাদেরকে অব্যাহতি দেওয়া না হলে শাহীনের মত তার মাকেও হত্যা করা হবে বলে হুশিয়ারী উচ্চারন করেন।

পাঠকের মতামত