প্রকাশিত: ১১/০৪/২০১৭ ৬:২৯ পিএম

উখিয়া নিউজ ডটকম::

উখিয়া উপজেলার ক্রাইম জোন খ্যাত পালংখালী ইউনিয়নের থাইংখালী তাজনিমারখোলা বড় ঘোনা পাহাড়ী এলাকা থেকে একটি দেশীয় তৈরি অস্ত্র সহ ৫ ডাকাতকে স্থানীয় জনতার সহযোগিতায় আটক করেছে পুলিশ । মঙ্গলবার ভোর ৪ টার দিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পালংখালী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এম গফুর উদ্দিন চৌধুরী স্থানীয় জনতার সহযোগিতায় ডাকাতদের ঘেরাও করে রাখে,পরে উখিয়া থানা পুলিশের উপ- পরিদর্শক মোঃ আনিছুর রহমান নেতৃত্বে একদল পুলিশ অভিযান চালিয়ে একটি দেশীয় তৈরি অস্ত্র, একটি ধারালো কিরিচ গোলাবারুদ সহ ৫ ডাকাতকে আটক করতে সক্ষম হয়।
সুত্রে জানা যায়, উপজেলার পালংখালী ইউনিয়নের তাজনিমারখোলা বড় ঘোনা পাহাড়ে রাত ৩ টার দিকে সশস্ত্র ডাকাত দলের সদস্যরা ডাকাতির প্রস্তুতিকালে স্থানীয় লোকজন টের পেয়ে চেয়ারম্যান এম গফুর উদ্দিন চৌধুরীকে খবর দেয়, এসময় স্থানীয় চেয়ারম্যান গফুর উদ্দিনের নির্দেশে এলাকাবাসী ডাকাতদের ঘেরাও করে রাখে। পরে থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে তাজনিমারখোলা গ্রামের আবুল কাশেম পাল্টুর ছেলে অস্ত্র কারিগর নুরুল বশর প্রকাশ বশর ডাকাত, তেলখোলা গ্রামের মোজাহের মিয়ার ছেলে আব্দুস ছালাম(২৪), ঘোনার পাড়া গ্রামের আবুল কালামের ছেলে জুবাইদুল ইসলাম (২৫), তাজনিমারখোলা গ্রামের মৃত ফরিদ আলমের ছেলে নুরুল আবছার(২২), তাজনিমারখোলা গ্রামের আব্দুল মজিদের ছেলে ফরিদুল আলম(৪৮) কে আটক করে। স্থানীয় সুত্র জানায়, সম্প্রতি তেলখোলা সড়ক ডাকাতিসহ নানা অপরাধ জনক কর্মকান্ডের সাথে আটককৃত ডাকাত দলের সদস্যরা জড়িত বলে জানা গেছে। স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান এম গফুর উদ্দিন চৌধুরী বলেন, দীর্ঘ দিন ধরে আটককৃত ডাকাত দলের সদস্যরা সড়ক ডাকাতি, নিরহ লোকজন কে গতিরোধ করে টাকা ছিনতাই, বাড়াী ঘর ডাকাতি সহ নানা অপরাধ মূলক কর্মকান্ড চালিয়ে আসছিল। খবর পেয়ে এলাকাবাসী ও থানা পুলিশের সহযোগিতায় উক্ত ডাকাতদের আটক করে থানা পুলিশের নিকট সুপর্দ করিলাম। তাদের গ্রেপ্তারে এলাকার ভুক্তভোগী মানুষের মাঝে শস্তির ণিঃশ্বাস ফিরে আসে এবং এলাকায় মিষ্টি বিতরন করা হয়।

পাঠকের মতামত