প্রকাশিত: ১৫/০৮/২০১৬ ৭:২৮ এএম

ccমোঃ রেজাউল করিম, ঈদগাঁও::

ঈদগাঁওতে সিসি ক্যামেরা ও সোলার প্যানেল স্থাপিত হয়েছে। বাজার ও বাসস্টেশন সংলগ্ন এলাকায় গত এক সপ্তাহ যাবত এ প্রকল্পের কাজ চলছে। প্রকল্পটি সমাপ্ত হওয়ায় রামু- কক্সবাজার আসনের সাংসদ সাইমুম সরওয়ার কমলের প্রদত্ত প্রতিশ্রুতি পালিত হয়। প্রাপ্ত তথ্যে প্রকাশ, জেলার দ্বিতীয় বৃহত্তম বাণিজ্য কেন্দ্র ঈদগাঁও বাজারের নিরাপত্তা নিয়ে বিভিন্ন সময় সমস্যা ও সংকট দেখা দেয়। বাজারবাসীর নিরাপত্তা রক্ষার্থে এক সময় কমিউনিটি পুলিশীং ব্যবস্থা থাকলেও বর্তমানে তা কার্যকর নেই। তবে ব্যবসায়ীদের ব্যক্তিগত উদ্যোগে বাজারের একাধিক পয়েন্টে এখনো নিরাপত্তা রক্ষায় প্রহরীরা কাজ করছে। বছর কয়েক আগে ঈদগাঁও বাজার ব্যবসায়ী পরিচালনা পরিষদ গঠিত হয়। উক্ত পরিষদের উদ্যোগে আয়োজিত ব্যবসায়ী প্রতিনিধিদের মত বিনিময় সভায় সাংসদ সাইমুম সরওয়ার কমল প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাজারে সিসি ক্যামেরা ও সোলার প্যানেল স্থাপনের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন। মাঝখানে বাজারের বিভিন্ন পয়েন্টে একাধিক দোকানে দূর্ধর্ষ চুরির ঘটনা অব্যাহত থাকায় ব্যবসায়ীদের মধ্যে স্বস্তির পরিবর্তে উদ্বেগ ও উৎকণ্ঠা কাজ করছিল। কয়েকদিন আগেও বাজারের খান বাহাদুর মোজাফ্ফর আহমদ চৌধুরী মার্কেট, ফরাজী ফার্মেসীর সম্মুখস্থ নাহার ফার্মেসী এবং স্টেশন এলাকায় একটি দোকানে অভিনব কায়দায় দূর্ধর্ষ চুরির ঘটনা ঘটে। এতে নগদ টাকা ও মালামালসহ কয়েক লক্ষ টাকার জিনিসপত্র চুরি হয় বলে দোকান মালিকরা জানান। জেলার বৃহত্তর এ বাজারে ছোট-বড়-মাঝারী মিলে-দেড় সহস্রাধিক দোকান পাট রয়েছে। সপ্তাহের দু’হাটের দিন তথা শনি ও মঙ্গলবার জেলার বিভিন্ন স্থান থেকে সওদাপাতির জন্য লোকজন এ বাজারে আসেন। তাছাড়া অন্যান্য দিনেও লোক সমাগমে পুরো বাজার মুখরিত থাকে। বাজারে বিভিন্ন সমস্যার অন্যতম হচ্ছে নিরাপত্তা ব্যবস্থা না থাকা। পার্শ্বে পুলিশ তদন্ত কেন্দ্র থাকলেও বাজারে তাদের সার্বক্ষনিক ডিউটি থাকে না। সে কারণে সংঘবদ্ধ চোরের দল সুযোগ পেলেই দূর্ধর্ষ চুরির ঘটনা ঘটায়। বিষয়টি ব্যবসায়ীদের জন্য মারাত্মক বিরক্তিকর ব্যাপার হয়ে দাড়িয়েছে। বাজার ও বাজারবাসীর নিরাপত্তা এবং ব্যবসায়ীদের স্বার্থ রক্ষায় অবশেষে সাংসদ তার প্রুতিশ্রুতি পূরণ করলেন। গত এক সপ্তাহ যাবত তাঁর নিজস্ব বরাদ্ধের কয়েক লক্ষ টাকা ব্যয়ে বাজার ও বাসস্টেশনসহ সংলগ্ন এলাকায় ক্লোজ সার্কিট (সিসি) ক্যামেরা এবং সোলার প্যানেল তথা সৌর বিদ্যুৎ স্থাপন প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হয়েছে। প্রকল্প সভাপতি মিজানুল হক মিজান জানান, বাজার ও বাসস্টেশনের বিভিন্ন পয়েন্টে নিরাপত্তার স্বার্থে ২০টি সিসি ক্যামেরা এবং তেলি পাড়া, পাল পাড়া ও কানিয়াছড়ার গুরুত্বপূর্ণ স্থানে ১০টি সোলার প্যানেল স্থাপন করা হয়েছে। প্রকল্পের তদারককারী এ যুবনেতা জানান, বাসস্টেশন, ডিসি সড়কের বিমান মৌলভীর ঘাটা, পুলিশ বিটের পশ্চিম পার্শ্বে, স্কুল গেইটের ত্রিমুখী স্থানে, হোটেল নিউ স্টারের সামনে, চাউল বাজার, ইউনিয়ন ভূমি অফিসের সামনে, জালালাবাদ স্বাস্থ্য কেন্দ্রের সামনে, তেলি পাড়া রোডের মাথায়, বাসঘাটা সড়ক, সুপারি গলি, কাপড়ের গলি ও মরিচ বাজারের বিভিন্ন পয়েন্টে সিসি ক্যামেরাগুলো স্থাপিত হয়েছে। অন্য দিকে ঈদগাঁও-ঈদগড় সড়ক সংলগ্ন পাল পাড়া, কানিয়াছড়া এবং জালালাবাদ তেলিপাড়ার বিভিন্ন পয়েন্টে সোলার প্যানেল স্থাপন করা হয়েছে। তিনি লোডশেডিংয়ের তীব্র যাঁতাকলে সোলার প্যানেল কিছুটা হলেও বাজারকে আলোকিত করবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন। ঈদগাঁও পুলিশ তদন্ত কেন্দ্র আইসি মো. মিনহাজ মাহমুদ ভূঁইয়া জানান, বাজারে স্থাপিত সিসি ক্যামেরা সমূহের ৩টি কন্ট্রোল রুম রয়েছে। একটি পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে, আরেকটি বাজার ব্যবসায়ী পরিচালনা পরিষদ কার্যালয়ে এবং অন্যটি তেলিপাড়া সড়কের খান ফার্মেসীতে। তিনি সিসি ক্যামেরা দ্বারা বাজারের দোকান পাটে সংঘটিত চুরি-ডাকাতিসহ যে কোন অঘটনের সাথে সম্পৃক্তদের স্বনাক্ত করা সম্ভব হবে বলে জানিয়ে বলেন, এ প্রযুক্তি ব্যবহার করে সন্দেহভাজন লোকদের গতিবিধি ও চলাচল পর্যবেক্ষণ করা যাবে। এ ব্যাপারে বাজার ব্যবসায়ী পরিচালনা পরিষদ সদস্য মো. শওকত আলম শওকতের দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে তিনি সিসি ক্যামেরা ও সোলার প্যানেল স্থাপন বিষয়ে অবহিত নন জানিয়ে বলেন তিনি বাজার কমিটির একটি গুরুত্বপূর্ণ বৈঠকে রয়েছেন। বিষয়টির ব্যাপারে তিনি বাজার কমিটির সদস্য তারেক আজিজের সাথে যোগাযোগের পরামর্শ দেন।

পাঠকের মতামত

মিয়ানমারের আরেক গুরুত্বপূর্ণ শহর বিদ্রোহীদের দখলে

মিয়ানমারের বিদ্রোহীরা দেশটির আরও একটি গুরুত্বপূর্ণ শহরের দখল নিয়েছে। মিয়ানমারের জান্তাবিরোধী সশস্ত্র রাজনৈতিক গোষ্ঠী তা’আং ...

চট্টগ্রাম-কক্সবাজার ও দূরপাল্লার ট্রেন পটিয়া স্টেশনে যাত্রা বিরতির দাবি

চট্টগ্রাম–কক্সবাজার ও দূরপাল্লার ট্রেন পটিয়া স্টেশনে যাত্রা বিরতিসহ বিভিন্ন দাবিতে রেলমন্ত্রী জিল্লুল হাকিমকে স্মারকলিপি দিয়েছেন ...