যে দোয়া পড়ে বিশ্বের রাজত্ব পেয়েছিলেন সোলায়মান নবী

দোয়া মুমিনের ইবাদত ও বড় সহযোগী। মুমিন যখন দোয়া করে, তখন আল্লাহ তাআলা খুশি হন। আল্লাহর কাছে না চাইলে তিনি অসন্তুষ্ট হন। এ জন্য রাসুলুল্লাহ দোয়াকে ইবাদতের মগজ বলেছেন। পবিত্র কোরআনে নবী-রাসুলদের বিভিন্ন দোয়া উদ্ধৃত হয়েছে। এসব দোয়া একদিকে প্রার্থনা সম্পর্কে সচেতন করে, অন্যদিকে দোয়ার শিষ্টাচার শিক্ষা দেয়।

নিম্নে কোরআনে বর্ণিত সোলায়মান (আ.)-এর দুটি দোয়া হলো—

এক. আরবি :

قَالَ رَبِّ اغْفِرْ لِي وَهَبْ لِي مُلْكًا لَّا يَنبَغِي لِأَحَدٍ مِّن بَعْدِي ۖ إِنَّكَ أَنتَ الْوَهَّابُ

উচ্চারণ : রাব্বিগ ফিরলি ওয়াহাবলি মুলকাল্ লা-য়ামবাগি লিআহাদিম মিন বা’দি, ইন্নাকা আনতাল ওয়াহহাব।

তিনি বলেন, ‘হে আমার রব! আমাকে ক্ষমা করুন এবং আমাকে এমন এক রাজ্য দান করুন, যার অধিকারী আমি ছাড়া আর কেউ যেন না হয়। আপনি তো পরম দাতা।’ (সুরা : সাদ, আয়াত : ৩৫)
দুই. আরবি :

قَالَ رَبِّ أَوْزِعْنِي أَنْ أَشْكُرَ نِعْمَتَكَ الَّتِي أَنْعَمْتَ عَلَيَّ وَعَلَىٰ وَالِدَيَّ وَأَنْ أَعْمَلَ صَالِحًا تَرْضَاهُ وَأَدْخِلْنِي بِرَحْمَتِكَ فِي عِبَادِكَ الصَّالِحِينَ

উচ্চারণ : রাব্বি আওজি’নি আন-আশকুরা নি’মাতাকাল্লাতি আনআমতা আলাইয়া ওয়া আ’লা ওয়ালিদাইয়্যা, ওয়া আন আ’মালা সালিহান তারদ্বাহু, ওয়া আদখিলনি বিরাহমাতিকা ফি ইবা-দিকাস সালিহিন।

অর্থ : তিনি বলেন, ‘হে আমার রব! আপনি আমাকে সামর্থ্য দিন, যাতে আমি আপনার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করতে পারি—আমার প্রতি ও আমার মা-বাবার প্রতি আপনি যে অনুগ্রহ করেছেন তার জন্য। আর আমি যেন সৎকাজ করতে পারি, যা আপনি পছন্দ করেন। আপনার অনুগ্রহে আমাকে আপনার সৎকর্মপরায়ণ বান্দাদের অন্তর্ভুক্ত করুন।’ (সুরা : নামল, আয়াত : ১৯)

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন