প্রকাশিত: ০৫/০৭/২০১৬ ২:৫৪ এএম , আপডেট: ০৫/০৭/২০১৬ ৩:৩৯ এএম

13509048_1089691267757845_2243682933544532084_n-3-368x400উখিয়া নিউজ ডেস্ক :

জঙ্গি “জঙ্গি দমনে একটি মিলিয়ন ডলারের প্রশ্ন” এর প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছে পুলিশ হেডকোয়ার্টার্স ঢাকায় বর্তমানে নিয়োজিত পুলিশ সুপার আবু আহম্মদ আল মামুন।

তার ফেসবুকে সোমবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে স্ট্যাটেটাসটি পোষ্ট করেছেন। তিনি লিখেছেন তাহা পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হলো।

ঈদ মোবারক!!! সবাইকে নিয়ে ঈদের ছুটির  ক’দিন এক টেবিলে ডিনার করি এবং নিচের বিষয়টি ভাবি।
এসপি Md Abdur Razzak স্যারের স্ট্যাটাসে “জঙ্গি দমনে একটি মিলিয়ন ডলারের প্রশ্ন” সংক্রান্তে যে প্রশ্নের উত্তর আপনি খুজেঁ ফিরছেন আমিও আমার ক্ষুদ্র জ্ঞানে অনেক আগে থেকেই Students’/Guardians’ Awareness Program (সামাজিক ও পারিবারিক সচেতনতামূলক প্রোগ্রাম) এর মাধ্যমেই খোঁজার চেষ্টা করছি।

আজ অতি অলস ব্যস্ত (Idle busy) ও মূল্যবোধহীন দায়িত্বের কারণে অভিভাবকরা বাচ্চাদের খোঁজ খবর নিতে ও সময় দিতে পারছেন না। তাই অভিভাবকরা নীচের প্রশ্নগুলোর সদুত্তর সন্তানদের নিকট থেকে নিতেও ব্যর্থ হচ্ছেন।
*আপনার সন্তান কোথায় যায় ?
*কাদের সাথে চলাফেরা করে ?
*লেখাপড়া বা বিশেষ কোন কোর্স করার নামে বাইরে থাকে কিনা ?
*নিয়মিত স্কুল/কলেজে যায় কিনা ?
*রাত জেগে ফোনে কথা বলে কিনা ?
*টাকা পয়সার জন্য মা-বাবাকে চাপ দেয় কিনা ?
*কাজে আগ্রহ আছে কিনা বা কাজ এড়িয়ে যায় কিনা?
*পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতায় অনিহা দেখায় কিনা
*পরিবারের সদস্যদের সাথে খারাপ ব্যবহার করা
*পোষাক/ফ্যাশনে পরিবর্তন
এ সব নেগেটিভ পরিবর্তন সন্তানের মাঝে দেখলেই বুঝতে হবে আপনার সন্তান কোন দেশদ্রোহী বা অসামাজিক কার্যকলাপে জড়িয়ে পড়েছে।

এখন পর্যন্ত গুলশানের জিম্মি ঘটনায় যে ক’জন সন্ত্রাসী বা জঙ্গি নিহত হয়েছে তাদের অন্যতমরা অভিজাত পরিবারের সন্তান ও দুই একজন মূল ধারার রাজনীতিবিদেরও সন্তান বলে বিভিন্ন মাধ্যমে জানা যায়।

আদর্শ পরিবারের সন্তানদের এ রকম অনাদর্শে উদ্বুদ্ধ হওয়া শুধু ব্যক্তি নয়; এর ছোবল বিষাক্ত করছে সমাজ ও রাষ্ট্রকে। দেশকে হেয় করেছে আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে।

তার স্ট্যাটেটাসে তিনি জঙ্গিবাদ প্রতিরোধে করণীয়/পরামর্শ দেন।
১) সকলের সমন্বিত ও সামাজিক সচেতনতা ( Social Awareness) সামাজিক মূল্যবোধ তৈরী করবে ও অভিভাবকদের দায়িত্বশীলতা বাড়াবে। অভিভাবকদের এ বিষয়ে অনন্য ভূমিকায় অবতীর্ণ হতে হবে।
২) যুবসমাজকে খেলাধুলা ও সৃষ্টিশীল কাজের সুযোগ করে দিতে হবে, সচেতনতা বাড়াতে হবে।
৩) ব্যাধি ঠেকাতে প্রথম প্রতিরোধ পরিবার থেকেই আসতে হবে।
৪) সন্তানের বন্ধু বা পারিপার্শ্বিকতা মা হিসেবে আমলে নিতে হবে। কারণ মা সন্তানের পরিবর্তন আগেই বুঝতে পারে।
৫) একজন মা হিসেবে আপনিই হচ্ছেন তার জন্য পৃথিবীর সবচেয়ে নিরাপদ আশ্রয়। উপরে উল্লেখিত যে কোনো নেগেটিভ পরিবর্তন সন্তানের মাঝে দেখলেই সন্তানকে বুকে টেনে নিয়ে বুঝাতে হবে।
৬) পারিবারিক বন্ধন ও শিক্ষা, ধর্মীয় অনুশাসন, সৎ উপার্জন ইত্যাদি পারে এ ব্যাধি থেকে বাঁচাতে ।
৭) সরকারি উদ্যোগে (উপযুক্ত কর্তৃপক্ষ কর্তৃক) Awareness Program শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ভিত্তিক বাড়াতে হবে।
পরিশেষে, মিলিয়ন ডলারের প্রশ্নের উত্তর অভিভাবকরাই দিতে পারবেন, সন্তানকে সময় দিয়ে পারিবারিক বন্ধনে আবদ্ধ করে বলে আমার SGAP এর বিশ্বাস। ধন্যবাদ।
Courtesy : Students’/Guardians’ Awareness Program

(Superintendent of Police at Police Headquarters, Dhaka, Bangladesh) স্ট্যাটেটাস থেকে সংগৃহিত।

পাঠকের মতামত

সপ্তাহজুড়ে বৃষ্টির আভাস

আবহাওয়া অধিদপ্তর আগামী সপ্তাহজুড়ে সারাদেশে বৃষ্টি হতে পারে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে। সেই সঙ্গে সপ্তাহজুড়ে বৃষ্টির ...