প্রকাশিত: ০৯/১১/২০১৭ ৭:১৬ পিএম , আপডেট: ১৭/০৮/২০১৮ ১১:২৩ এএম

চীফ রিপোর্টার,উখিয়া নিউজ ডটকম::
রোহিঙ্গা ক্যাম্প ও সীমান্ত এলাকায় সন্দেহভাজনদের গতিবিধি লক্ষ্য করে পুলিশকে সহযোগিতা করার পরামর্শ দিয়ে কক্সবাজার পুলিশ সুপার ড. একেএম ইকবাল হোসেন বলেছেন, উখিয়া-টেকনাফে সাড়ে ৫লক্ষ মানুষের উপর অতিরিক্ত বোঝা হয়ে দাড়িয়েছে ১০লক্ষাধিক রোহিঙ্গা। এসব রোহিঙ্গাদের নিয়ন্ত্রণ করতে পুলিশ বাহিনী নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছে। এ ক্ষেত্রে স্থানীয়রা সহযোগিতা না করলে আইনশৃংখলা রক্ষা করা পুলিশের পক্ষে দুরহ ব্যাপার হয়ে দাড়াবে। ইতিমধ্যে স্থানীয়রা বিভিন্ন ভাবে সহযোগিতা করে যে আন্তরিকতা পুলিশের প্রতি দেখিয়েছে তা ভাষাহীন। বৃহস্পতিবার বিকাল ৪টায় উখিয়া থানা কম্পাউন্ডে আয়োজিত অনুষ্টানে প্রধান অতিথি’র বক্তব্যে পুলিশ সুপার আরো বলেন, মিয়ানমার থেকে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের আশ্রয় ও মানবিক সেবা দিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যে উদারতা দেখিয়েছে তার জন্য তিনি মাদার অব হিউমিনিটি খেতাব পেয়েছেন। পাশাপাশি উখিয়াবাসি রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়ে যে মানবিকতার পরিচয় দিয়েছে তা সারা বিশ^বাসি দেখেছে। তিনি বলেন, দেশের ভাবমুর্তি ও আইনশৃংখলা পরিবেশ স্বাভাবিক রাখতে হলে ক্যাম্প ভিত্তিক ও সীমান্ত এলাকায় যে সব এনজিওরা অপতৎপর রয়েছে তাদের দিকে নজর রাখতে হবে। তাদের গতিবিধি সন্দেহজনক মনে হলে পুলিশের সহযোগিতা নিতে হবে। আঞ্জুমানপাড়া এলাকায় ২ বিদেশী নাগরিককে আটক করে পুলিশের হাতে সোপর্দ করে স্থানীয় মেম্বার সুলতান আহমদ যে সহযোগিতা করেছে একই ভাবে এলাকার প্রতিটি নাগরিককে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিতে হবে। বিদেশী নাগরিকদের বাড়ী ভাড়া দেওয়ার ব্যাপারে সতর্ক থাকার ইঙ্গিত দিয়ে প্রধান অতিথি বলেন, সীমান্ত এলাকায় বাড়ী ভাড়া নিয়ে অপরাধ সংঘঠিত করতে পারে এমন লোকজনদের ব্যাপারে পুলিশ আগাম তথ্য দেওয়ার পরামর্শ দেন। কোন অবস্থাতেই সীমান্ত এলাকায় বিদেশীদের অবস্থান কাম্য নয় বলে তিনি মন্তব্য করেন। এসময় তিনি কমিউনিটি পুলিশিং এর সদস্য ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধের সহযোগিতা করে অন্যায়ের বিরুদ্ধে রুখে দাড়াবার উদ্বাত্ত আহবান জানান।
উখিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আবুল খায়েরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ওপেন হাউজ ডে’তে বক্তব্য উপস্থিত ছিলেন সিনিয়র সহকারি পুলিশ সুপার নাদিরা ও রায়সুল ইসলাম। বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার, উখিয়া সার্কেল চাইলাউ মার্মা, কবি আদিল উদ্দিন চৌধুরী, উখিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও ইউপি চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরী, কমিউনিটি পুলিশের সভাপতি শফিউল আলম বাবুল, সাংবাদিক রফিকুল ইসলাম, রাশেল উদ্দিন সুজন, ইউপি সদস্য মোহাম্মদ মুছা, রূপন বড়ুয়া, কাশেদ নুর, জাহাঙ্গীর আলম প্রমূখ। অনুষ্টান সঞ্চালনা করেন উপ-পরিদর্শক প্রিয়তোষ বড়ুয়া। এর আগে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন মাওলানা আবুল কাশেম।

পাঠকের মতামত

নিজের সম্মানির টাকা মেধাবী শিক্ষার্থীকে দিলেন নাইক্ষ্যংছড়ির ইউএনও

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ির উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাকারিয়া নিজের প্রাপ্ত সম্মানির টাকা আর্থিক অনুদান হিসেবে প্রদান করলেন ...