প্রকাশিত: ১৬/০৫/২০১৭ ৫:৪৫ এএম

উখিয়া নিউজ ডেস্ক::
রামুতে মরিয়ম বেগম (২৩) নামে এক কলেজ ছাত্রীকে অপহরণ করা হয়েছে। মরিয়ম বেগম রামু খুনিয়াপালং ইউনিয়নের পূর্ব ধেচুয়াপালং ,ধুমকাটা এলাকার মৃত নজরুল ইসলামের ছেলে সৌদিয়া প্রবাসী সাহাব উদ্দিনের স্ত্রী।
সাহাব উদ্দিন জানান, বিয়ের পরে আমাদের দাম্পত্য জীবনে মোকরিমা জান্নাত (রিমা) নামে একটি কন্যা সন্তানের জন্ম হয়। আমি জীবিকার তাগিদে সৌদিআরব অবস্থান করি।কিন্তু আমার স্ত্রীর জীবন আরো সখোময় করার জন্য আমি বিয়ের পরেও লেখা পড়া বন্ধ করিনি। অপহৃত মরিয়ম বেগম নিয়মিত রামু কলেজে লেখা পড়া চালিয়ে যাচ্ছিল।গত ৫মে আনুমানিক তিনটার সময় কলেজ থেকে আসার পথে পূর্বপরিকল্পিত ভাবে ৫/৬ জন সন্ত্রাসীরা আমার স্ত্রীকে অপহরণ করে নিয়ে যায়।
জানাগেছে ,উখিয়া থানার পূর্ব হলদিয়া পালং,নলবনিয়া এলাকার মৃত আব্দুল মোনাফের ছেলে মরিচ্যা ফরিদ সওদাগরের ছোট ভাই মোহাম্মদ ছৈয়দ (৩০) আরো ৫/৬জন ভাড়াটিয়া নিয়ে মরিয়ম বেগমকে অপহরণ করে নিয়ে যায়।এদিকে সাহাবউদ্দিন বাংলাদেশে না থাকায় থানায় মামলা করতে বিলম্ব হয়। স্ত্রী অপহরণের খবর পেয়ে সাহাব উদ্দিন গত ১০ মে বাংলাদেশে এসে রামু থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করে।এদিকে একাধিক সূত্রে জানা গেছে, ছৈয়দের সাথে ওই মেয়েটির প্রেমের সম্পর্ক ছিল। হয়তো এই সম্পর্কের সূত্র ধরে পালিয়েছে। অনেকেই অপহরন নয় বলে দাবি করেন।

পাঠকের মতামত

মিয়ানমারের আরেক গুরুত্বপূর্ণ শহর বিদ্রোহীদের দখলে

মিয়ানমারের বিদ্রোহীরা দেশটির আরও একটি গুরুত্বপূর্ণ শহরের দখল নিয়েছে। মিয়ানমারের জান্তাবিরোধী সশস্ত্র রাজনৈতিক গোষ্ঠী তা’আং ...

চট্টগ্রাম-কক্সবাজার ও দূরপাল্লার ট্রেন পটিয়া স্টেশনে যাত্রা বিরতির দাবি

চট্টগ্রাম–কক্সবাজার ও দূরপাল্লার ট্রেন পটিয়া স্টেশনে যাত্রা বিরতিসহ বিভিন্ন দাবিতে রেলমন্ত্রী জিল্লুল হাকিমকে স্মারকলিপি দিয়েছেন ...