প্রকাশিত: ০৯/১১/২০১৬ ৪:১১ পিএম

ডেস্ক রিপোর্ট : কক্সবাজারের দ্বীপ উপজেলা মহেশখালীকে ডিজিটাল আইল্যান্ড হিসেবে গড়ে তোলা হবে বলে জানিয়েছেন তথ্য ও প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমদ পলক।

তিনি বলেছেন, ‘দ্বীপ উপজেলা মহেশখালী হবে স্বপ্নের দ্বীপ। যার পরিচিত হবে ডিজিটাল আইল্যান্ড হিসেবে।’

বুধবার (০৯ নভেম্বর) সকালে রাজধানীর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশনে অনুষ্ঠিত এক কর্মশালায় এসব কথা বলেন তিনি।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, মহেশখালীতে বসবাসরত ৫ লাখ মানুষ বাংলাদেশের সঙ্গে ফিজিক্যালি ডিসকানেক্টেড। প্রযুক্তির মাধ্যমে তাদের বাংলাদেশ এবং বিশ্বের সঙ্গে যুক্ত করাই হবে ডিজিটাল আইল্যান্ডের প্রধান লক্ষ্য। যা পরবর্তীতে উন্নয়নশীল দেশগুলোর জন্য রোল মডেল হয়ে থাকবে।’

তিনি বলেন, ‘এই প্রকল্পের মাধ্যমে নতুন নতুন প্রযুক্তিগুলো পরীক্ষা করা হবে এবং কোরিয়া তাদের নতুন প্রযুক্তিগুলো পরীক্ষামূলকভাবে এখানে প্রথম চালু করবে।’

অনুষ্ঠানে পলক জানান, এ প্রকল্প বাস্তবায়নে কোরিয়ার সরকার বাংলাদেশের সহায়ক হিসেবে কাজ করবে। যার অংশ হিসেবে কোরিয়া সরকার বাংলাদেশকে বড় অংকের অনুদান দেবে।

তিনি জানান, ১ বিলিয়নের এ প্রকল্পটি বাস্তবায়নে কোরিয়া সরকার ত্রিশ থেকে চল্লিশ কোটি টাকা বাংলাদেশকে অনুদান হিসেবে দেবে। তবে প্রথমে আট থেকে সাত কোটি টাকা দিয়ে প্রকল্পের কাজ শুরু করা হবে।

ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে ই-গভর্নমেন্ট মাস্টারপ্ল্যান প্রণয়নের লক্ষে দিনব্যাপী এ কর্মশালার আয়োজন করা হয়।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশে নিযুক্ত কোরিয়ান দূতাবাসের ডেপুটি চিফ অব মিশন কেওয়াক সাম-জু।

বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের নির্বাহী পরিচালক এস এম আশরাফুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, আইসিটি বিভাগের অতিরিক্ত সচিব হারুনুর রশিদ, প্রকল্প পরিচালক মো. এনামুল কবির প্রমুখ।

পাঠকের মতামত