ডেস্ক নিউজ
প্রকাশিত: ২৯/০৬/২০২৪ ৪:১৬ পিএম

মিয়ানমারের আরাকান রাজ্যের মংডুতে অবস্থিত ওয়ার্ল্ড ফুড প্রোগ্রাম (ডব্লিউএফপি) একটি চালের গুদাম জান্তা সৈন্যরা লুট করে নিয়ে গেছে। লুট করার পর সেই গুদামে ইচ্ছাকৃতভাবে আগুন লাগিয়ে দেয় তারা।

স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শীদের সূত্রে এই খবর জানিয়েছে আরাকানি সংবাদমাধ্যম নারিঞ্জারা নিউজ।
রাখাইন রাজ্যের মংডু শহরে ওয়ার্ল্ড ফুড প্রোগ্রামের (ডব্লিউএফপি) গুদাম লুট হওয়ার ঘটনা স্বীকার করেছে দেশটির সামরিক জান্তার কর্মকর্তারা।

জান্তার মুখপাত্র মেজর জেনারেল জাও মিন তুনও জানিয়েছেন, তারা ২ হাজার বস্তা চাল নিয়ে গেছে। জাও মিন তুন ২৭ জুন সামরিক মালিকানাধীন সংবাদপত্রের এই কথা স্বীকার করেন।

তিনি দাবি করেন, গত ২১ জুন চাল গুলো আরাকান আর্মির হাত থেকে বাঁচাতে এবং স্থানীয়দের মাঝে বিলিয়ে দিতেই সরিয়ে ফেলা হয়েছে, আর আগুন দেওয়ার বিষয়টি অস্বীকার করে একে আরাকান আর্মির ড্রোন হামলা বলে চালিয়ে দেন তিনি। তবে এই চাল সরানোর আগে ডব্লিউএফপির কাছে অনুমতি চাওয়া হয়েছে কিনা সে ব্যপারে কিছুই উল্লেখ করেননি তিনি।

একজন মুসলিম রোহিঙ্গা বাসিন্দা নারিঞ্জারা নিউজকে জানিয়েছেন, ২২ জুন, জান্তা সৈন্যরা মংডুর মুসলিম বাসিন্দাদের কাছ থেকে জান্তার জন্য সমর্থন চেয়ে চালের বস্তা বিতরণ করে। সেদিন ২০১৯ পরিবারের মাঝে এই চাল বিতরণ করা হয়।

ডব্লিউএফপি এক বিবৃতিতে এই ঘটনার নিন্দা জানিয়ে বলেছে, মংডুতে মানবিক সুবিধা ধ্বংস করে, খাদ্য ও অন্যান্য সামগ্রী লুট করে ডব্লিউএফপি-এর ত্রাণ প্রচেষ্টাকে দুর্বল করার প্রচেষ্টা অবিলম্বে বন্ধ করতে হবে। সুত্র’ বাংলানিউজ২৪

পাঠকের মতামত

স্বাভাবিক পথে সেন্টমার্টিনে যাচ্ছে খাদ্যপণ্য, টেকনাফে ফিরছে যাত্রী

অবশেষে স্বাভাবিক হচ্ছে টেকনাফ-সেন্টমার্টিন নৌরুটে নৌযান চলাচল। দীর্ঘ ৩৩ দিন পর টেকনাফ-সেন্টমার্টিন নৌরুটে যাতায়াত করছে ...