ডেস্ক নিউজ
প্রকাশিত: ১০/০৭/২০২৪ ১০:৫৪ এএম , আপডেট: ১০/০৭/২০২৪ ১০:৫৪ এএম
রাতের রোহিঙ্গা ক্যাম্প

কক্সবাজারের টেকনাফে নাজিম উদ্দিন (৪৭) নামে একজনের হাত-পা বিচ্ছিন্ন অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার (৯ জুলাই) সন্ধ্যায় উপজেলার হোয়াইক্যং ইউনিয়নের রোহিঙ্গা ক্যাম্প সংলগ্ন পাহাড়ি এলাকা থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। টেকনাফ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুহাম্মদ ওসমান গনি এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

নিহত নাজিম উপজেলার চাকমারকূল ২১ নম্বর রোহিঙ্গা ক্যাম্পের বি-২ ব্লকের মোহাম্মদের ছেলে।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় চাকমারকূল রোহিঙ্গা ক্যাম্পের সীমানা থেকে ৩০০ মিটার দূরে পাহাড়ে একজনের মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে পুলিশকে খবর দেয়া হয়। পরে পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থল থেকে মরদেহটি উদ্ধার করে।

পুলিশ বলছে, নিহত নাজিমের ডান হাত-পা শরীর থেকে বিচ্ছিন্ন ছিল। মরদেহ পচে দুর্গন্ধ বের হচ্ছিল। ধারণা করা হচ্ছে, অন্তত ৮ থেকে ১০ দিন আগে তাকে হত্যা করে পাহাড়ে ফেলে যায় দুবৃর্ত্তরা।

মরদেহ উদ্ধারের পর পরিচয় শনাক্তে পুলিশ বিভিন্নভাবে খোঁজ নেয়া শুরু করে। একপর্যায়ে সাহুদা খাতুন নামের এক রোহিঙ্গা নারী মরদেহের কোমরে থাকা রশি ও পাশে পড়ে থাকা জামা-কাপড় দেখে তার স্বামী বলে পরিচয় দেন।

ওসি ওসমান গনি বলেন, ‘কারা, কি কারণে হত্যা করেছে তা এখনই বলা যাবে না। ঘটনার কারণ অনুসন্ধানের পাশাপাশি জড়িতদের গ্রেফতারে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে।’

নিহতের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে বলে ওসি জানিয়েছেন

পাঠকের মতামত

আইনি লড়াইয়ে প্রার্থীতা ফিরে পেলেন হুমায়ুন কবির চৌধুরী

উখিয়া উপজেলার রাজাপালং ইউনিয়নের উপনির্বাচনে মহামান্য হাইকোর্টের রাযে কক্সবাজার জেলা নির্বাচন অফিস কর্তৃক বাতিলকৃত মনোনয়ন ...

ড্রেন ও ফুটপাত থেকে অবৈধ স্থাপনা সরাতে মাঠে নামলো কক্সবাজার পৌরসভা

চলতি বর্ষা মৌসুমে জলাবদ্ধতায় ডুবে ছিল কক্সবাজার শহরের নিম্নাঞ্চল। বিশেষ করে টানা বৃষ্টিপাতে হোটেল—মোটেল জোনের ...