প্রকাশিত: ২৯/০৮/২০১৬ ৮:০০ পিএম

FB_IMG_1472479206169শামীম ইকবাল চৌধুরী,নাইক্ষ্যংছড়ি::

নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার সোনাইছড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সোমবার (২৯ আগষ্ট) দুপুরে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ঘোষিত মিড ডে-মিল কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন বান্দরবান জেলা বিজ্ঞ অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট মোঃ মুফিদুল আলম।
উদ্বোধনকালে মোঃ মুফিদুল আলম বলেন, সুস্থ দেহে সুস্থ মন। সুস্থ দেহ ও সুস্থ মনের সমন্বয়েই স্বাস্থ্যবান ও শিতি প্রজন্ম গড়ে তোলা সম্ভব। শিশুর প্রাতিষ্ঠানিক শিালাভের সূতিকাগার হচ্ছে প্রাথমিক বিদ্যালয়। পড়াশোনার পাশাপাশি শিশুর মন ও দেহের যেন সুষ্ঠু বিকাশ ঘটে সেদিকে ল্য রাখাও বিদ্যালয়ের দায়িত্ব। লেখা পড়ার পাশাপাশি মিড-ডে মিল অর্থাৎ দুপুরের খাবার প্রবর্তনও জরুরি।
এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মোঃ কামাল উদ্দীন, নির্বাহী কর্মকর্তা এএসএম শাহেদুল ইসলাম, উপজেলা শিক্ষা অফিসার আবু আহম্মেদ, উপজেলা এলজিইডি কর্মকর্তা কমল কান্তি পাল, নাইক্ষ্যংছড়ি থানা ইনচার্জ তৌহিদুুল কবির, উপজেলা সন্ত্রাস ও জঙ্গী প্রতিরোধ কমিটির সদস্য সচিব মোঃ জসিম উদ্দীন, উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ন আহ্বায়ক তছলিম ইকবাল চৌধুরী, সদস্য সচিব মোঃ ইমরান মেম্বার,সোনাইছড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যন বাহাইন মার্মা, নাইক্ষ্যংছড়ি প্রেসকাবের সভাপতি শামীম ইকবাল চৌধুরী, সাংবাদিক আমিনুল ইসলাম, মোঃ জাহাঙ্গীর আলম কাজল সোনাইছড়ি ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক এ্যনিং মার্মা, সোনাইছড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এএসএম আলমগীর র্মোশেদ,সহকারি শিক্ষিকা রেহেনা আক্তার প্রমূখ। এ সময় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এএসএম শাহেদুল ইসলাম ও অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট মোঃ মুফিদুল আলম- সোনাইছড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শতাধিক খুদে শিার্থীদের
মধ্যে খাবার বিতরণ করে মিড- ডে মিলের উদ্বোধন করেন। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এএসএম আলমগীর র্মেশেদ জানান, এখন সময় হয়েছে প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোয় মিড-ডে মিল অর্থাৎ দুপুরের খাবার নিশ্চিত করা। এটি মূলত প্রযোজ্য তৃতীয় থেকে পঞ্চম শ্রেণী পর্যন্ত অধ্যয়নরত শিার্থীদের জন্য, যারা দুপুর ১২টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত বিদ্যালয়ে অবস্থান করে। দুপুর ১টা ৩০ মিনিট থেকে ২টা পর্যন্ত বিরতিতে তারা এ খাবার গ্রহণ করবে। সরকারি বা ব্যক্তিগত অর্থায়নে বিপুলসংখ্যক শিার্থীর জন্য মিড-ডে মিল স্থায়ী করা সম্ভব নয়, সাময়িকভাবে এটি চলতে পারে। এটি স্থায়ী করা সম্ভব নিজস্ব উদ্যোগেই, যদি বিদ্যালয় কর্তৃপ দ ব্যবস্থাপনা নিশ্চিত করতে পারে।

পাঠকের মতামত

মিয়ানমারে সংঘাত/টেকনাফ সীমান্ত দিয়ে ঢুকল আরও ৯ বিজিপি সদস্য

মিয়ানমারের রাখাইনে সংঘাতময় পরিস্থিতিতে কক্সবাজারের টেকনাফ সীমান্ত দিয়ে বাংলাদেশে অনুপ্রবেশ করেছে মিয়ানমার সীমান্ত রক্ষী বাহিনী ...