ডেস্ক নিউজ
প্রকাশিত: ১৭/০৫/২০২৪ ৮:২৬ এএম

যাত্রী চাহিদার কথা বিচেনা করে চট্টগ্রাম–কক্সবাজার–চট্টগ্রাম রুটে চলাচলরত ‘কক্সবাজার স্পেশাল’ ট্রেনটির সময় আরো ২০ দিন বৃদ্ধি করা হয়েছে। একই সাথে ট্রেনটি ১০ বগির স্থলে ১৫ বগিতে চলার জন্য রেল ভবন থেকে অনুমোদন দেয়া হয়েছে।

চট্টগ্রাম থেকে কক্সবাজার রুটে চলাচলরত ‘কক্সবাজার স্পেশাল’ ট্রেনটি যাত্রী চাহিদার কথা বিবেচনা করে আগামী ২০ মে থেকে আবারো সময়সূচি বর্ধিত করার জন্য রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের বিভাগীয় রেলওয়ে ব্যবস্থাপকের দপ্তর থেকে পূর্বাঞ্চলের জিএম–এর মাধ্যমে মহাপরিচালকের কাছে প্রস্তাব পাঠানো হয়। এই প্রস্তাবনার আলোকে গতকাল রেল ভবন থেকে বাংলাদেশ রেলওয়ের মহাপরিচালক দপ্তরের ট্রাফিক ট্রান্সপোর্টেশন শাখা থেকে এক অফিস আদেশে কক্সবাজার স্পেশাল ট্রেনটি আগামী ২০ মে থেকে আগামী ১০ জুন পর্যন্ত চালুর সময়সীমা বৃদ্ধি করা হয়েছে।

ট্রাফিক ট্রান্সপোর্টেশন শাখার উপপরিচালক মো. শওকত জামিল মোহসী স্বাক্ষরিত অফিস আদেশে বলা হয়, রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের মহাব্যবস্থাপকের দপ্তরের পত্রের আলোকে যাত্রীদের চাহিদার কথা বিবেচনা করে ট্রেনটির লোড বৃদ্ধি করে আগামী ১০ জুন পর্যন্ত সময় বর্ধিত করার প্রস্তাবনা এবং ১০ বগির স্থলে ১৫ বগি নিয়ে চালুর অনুমোদন দেয়া হয়েছে। এই ব্যাপারে রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের বিভাগীয় রেলওয়ে ম্যানেজার (ডিআরএম) প্রকৌশলী সাইফুল ইসলাম বলেন, চট্টগ্রাম–কক্সবাজার রুটে চলাচলরত কক্সবাজার স্পেশাল ট্রেনটি আগামী ২০ মে থেকে ১০ জুন পর্যন্ত আরো ২০ দিন সময় বৃদ্ধি করা হয়েছে। এরপর কোরবানি ঈদেও চলবে। আস্তে আস্তে এটি নিয়মিত হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। আমি এই ব্যাপারে একটি প্রস্তাবনা দিয়েছি। তিনি বলেন, গত ঈদে যাত্রী সাধারণ ও পর্যটকদের ভ্রমণের সুবিধার্থে ৮ এপ্রিল থেকে চট্টগ্রাম–কক্সবাজার রুটে একজোড়া স্পেশাল ট্রেন চালু করা হয়। যা এখনো চালু আছে। চট্টগ্রাম ও কক্সবাজারের মধ্যে প্রচুর যাত্রী চাহিদা থাকায় দুইবার মেয়াদ বর্ধিত ট্রেনটি ২০ মে পর্যন্ত পরিচালনার সিদ্ধান্ত হয়। এখন আরো ২০ দিন সময় বৃদ্ধি করে ১০ জুন পর্যন্ত ট্রেনটি চালুর সময়সীমা নির্ধারণ করা হয়েছে।

গত সপ্তাহে রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের বিভাগীয় রেলওয়ে ম্যানেজারের (ডিআরএম) দপ্তর থেকে চট্টগ্রাম–কক্সবাজার রুটের স্পেশাল ট্রেনটি এক ট্রিপের পরিবর্তে দুই ট্রিপ (দুই জোড়া) চালানো এবং ১০ বগির স্থলে ১৮ বগিতে চালালে যাত্রী চাহিদা পূরণের পাশাপাশি রেলওয়ের ভাবমূর্তি ও রাজস্ব আয় বৃদ্ধি পাবে প্রস্তাবনায় উল্লেখ করা হয়েছে।

এই ব্যাপারে ডিআরএমএর দপ্তার থেকে পাঠানো প্রস্তাবনায় বলা হয় গত ৮ এপ্রিল থেকে ৫ মে পর্যন্ত চট্টগ্রাম–কক্সবাজার রুটে কক্সবাজার স্পেশাল ট্রেনটি মোট ২৫ দিন ট্রেনটি (৩দিন চলাচল বন্ধ ছিল) চলাচল করেছে। এই ২৫ দিনে এই লোকাল স্পেশাল ট্রেনটি থেকে ৫১ লাখ ২৫ হাজার ৩৬২ টাকার রাজস্ব আয় হয়েছে। উপর্যুক্ত বিষয় বিবেচনা করে পর্যটন নগরী কক্সবাজার ও বন্দর নগরী চট্টগ্রামে যাতায়াতকারী যাত্রী সাধারণের ভ্রমণের সুবিধার্থে বর্তমানে ১০/২০ লোডে (১০ বগিতে) পরিচালিত কক্সবাজার স্পেশাল ট্রেনটির লোড বৃদ্ধি করে ১৮ বগিতে নিয়মিত চালুর পাশাপাশি ১৮/৩৬ লোডের এক রেকের ডাবল ট্রিপ দিয়ে রেলওয়ের টাইম টেবিল–৫৩ অনুযায়ী ট্রেনটি পরিচালনা করা করা হলে যাত্রী চাহিদা পূরণের পাশাপাশি রেলওয়ের ভাবমূর্তি ও রাজস্ব আয় বৃদ্ধি পাবে।

পাঠকের মতামত

ঈদের ছুটিতে পর্যটক বরণে প্রস্তুত কক্সবাজার কক্সবাজার প্রতিবেদক

পবিত্র ঈদুল আজহার টানা ছুটিতে ভ্রমণপিপাসুদের বরণে পুরোপুরি প্রস্তুত হয়েছে সমুদ্র শহর কক্সবাজার। আগত পর্যটকের ...

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে বড় চ্যালেঞ্জ জন্মনিয়ন্ত্রণ

কক্সবাজারে রোহিঙ্গা আশ্রয়শিবিরগুলোতে বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে দেখা দিয়েছে জন্মনিয়ন্ত্রণ। সরকারি-বেসরকারি নানা উদ্যোগের পরও ক্যাম্পগুলোয় জন্মহার ...

চোরাই গরু থেকে টোলের নামে চাঁদাবাজির অভিযোগ ইউ পি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে

রামু ও বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি সীমান্তে মিয়ানমারের চোরাই গরু বানিজ্যে জড়িয়ে পড়ার অভিযোগ উঠেছে দুই ইউপি ...

উখিয়ার নব নির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যানের সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত

উখিয়া উপজেলা পরিষদের নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যানগণের সংবর্ধনা সভা উখিয়া উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ...