ডেস্ক নিউজ
প্রকাশিত: ০৬/০৪/২০২৩ ৯:৫৪ এএম

প্রায় নির্জন কক্সবাজার। ছবি: আজকের পত্রিকা
রোজার কারণে কক্সবাজার এখন প্রায় নির্জন। নেই পর্যটক ও হকারের ভিড়। পর্যটক টানতে তাই হোটেল-মোটেল ও রিসোর্টগুলোতে চলছে বিশেষ ছাড়।

সমুদ্রসৈকতের লাবণী, সুগন্ধা ও কলাতলী পয়েন্টে সব সময় পর্যটকের ভিড় লেগে থাকে। পর্যটকদের পদচারণে মুখর থাকে এই তিন কিলোমিটার এলাকা। গত মঙ্গলবার বিকেলে এখানে দেখা গেছে সুনসান নীরবতা।

সৈকতের বালিয়াড়িতে চাপা পড়া সাগরলতা মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে। সৈকতে লাল কাঁকড়া, ডলফিনসহ বিভিন্ন সামুদ্রিক প্রাণী অবাধে বিচরণের সুযোগ পাচ্ছে।
ঈদের ছুটি সামনে রেখে কক্সবাজারের হোটেল-মোটেল ও রেস্তোরাঁগুলো সেজে উঠছে নতুন করে। প্রায় প্রতিটি হোটেল-রেস্তোরাঁয় চলছে বিভিন্ন রকমের ছাড়। তারকা মানের হোটেল ও রিসোর্টগুলোতে কক্ষ ভাড়ায় ৬০ থেকে ৭০ শতাংশ পর্যন্ত ছাড় চলছে।

কক্সবাজার সৈকতের কলাতলী হোটেল-মোটেল জোন, প্রধান সড়ক ও মেরিন ড্রাইভে প্রায় ৫০০ হোটেল, গেস্ট হাউস, কটেজ ও রিসোর্ট রয়েছে। ২০০ থেকে ২৫০টি রেস্তোরাঁ আছে এখানে।

পর্যটন ব্যবসায়ী জিকু পাল জানান, ঈদের ছুটিতে পর্যটক সমাগমের আশা করা হচ্ছে। সেভাবে প্রস্তুতিও নেওয়া হচ্ছে। পর্যটকদের থাকা-খাওয়ায় ছাড়ও আছে এখন। মার্চ মাসের পর থেকে বিশেষ ছাড় শুরু হয়েছে।

তারকা মানের হোটেল কক্স টুডের জেনারেল ম্যানেজার আবু তালেব শাহ জানিয়েছেন, এখন কক্ষ ভাড়ায় ৬০ শতাংশ পর্যন্ত ছাড় দেওয়া হচ্ছে। ভ্রমণে পর্যটকদের উৎসাহিত করতে এ সুযোগ দেওয়া হচ্ছে।

একইভাবে শহরের অভিজাত হোটেল ওশান প্যারাডাইস, সায়মন বিচ, সি গাল, সি প্যালেস, লং বিচ, মিডিয়া ইন্টারন্যাশনালসহ বিভিন্ন হোটেল, গেস্ট হাউস, কটেজ ও রিসোর্টে ৪০ থেকে ৭০ শতাংশ ছাড় দেওয়া হচ্ছে। তবে এ হোটেলগুলোর কর্তৃপক্ষ এখনো ঈদের ছুটিতে ছাড় দেওয়ার ঘোষণা দেয়নি। এ ক্ষেত্রে অনেকেই বিশেষ ছাড় দিতে পারেন বলে জানা গেছে।

পাঠকের মতামত

সেনাবাহিনীতে যোগ দিলে রোহিঙ্গাদের নাগরিকত্ব দেবে মিয়ানমারের সরকার

বিদ্রোহী গোষ্ঠী আরাকান আর্মির (এএ) বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্য সেনাবাহিনীতে যোগ দিলে রোহিঙ্গাদের নাগরিকত্ব দেওয়ার প্রস্তাব ...