প্রকাশিত: ১৯/০৮/২০১৬ ৯:৩৬ পিএম

Rafiq Pic. 19.08.2016 [Max Width 320 Max Height 240]রফিক মাহামুদ, উখিয়া ::
দীর্ঘদিন মরণব্যাধি ক্যান্সার রোগে আক্রান্ত হয়ে অবশেষে মৃত্যু কাছে হার মানতে হয়েছে উখিয়া উপজেলার পালংখালী ইউনিয়নের থাইংখালী পন্ডিত পাড়া গ্রামের বাসিন্দা বিশিষ্ট সমাজ সেবক ও ব্যবসায়ী নুরুল আবছার। তিনি গত ১৮ আগস্ট দিবাগত রাত ২ টার সময় চট্টগ্রাম হাসপাতালে নেওয়ার পথে পটিয়া নামক স্থানে মৃত্যুবরণ করেন। (ইন্নাল্লিলা………..রাজিউন)। গত ১৯ আগস্ট বিকাল ৩ টায় থাইংখালী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে তাঁর নামাজে জানাযা অনুষ্ঠিত হয়েছে। জানাযা শেষে থাইংখালী কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ সংলগ্ন কবরস্থানে বাবার কবরের পাশে তাকে চির নিদ্রায় সমাহিত করা হয়। নুরুল আবছার থাইংখালীর বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মৃত আবুল কাশেম সওদাগরের পুত্র। তিনি দীর্ঘদিন ধরে মরণ ঘাতক ক্যান্সার ও কিডনি রোগে আক্রান্ত হয়ে ঢাকা, চট্টগ্রাম সহ বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা করে আসছিল। মৃত্যুর সাথে প্রায় ১ বছরেরও অধিক সময় লড়াই করে অবশেষে না ফেরার দেশে চলে যাওয়ায় তাঁর জন্মভূমি থাইংখালী এলাকায় শোকের মাতাম নেমে এসেছে। আবছার জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি রাজনীতির সাথে সংশ্লিষ্ট ছিল। আবছারের অকাল মৃত্যুর খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে প্রতিবেশী বন্ধু-বান্ধব, দূর-দূরান্তের আত্মীয়-স্বজন ও শুভাকাংখিরা সকাল থেকে তাঁর বাসভবনে ভীড় জমায়। তাঁর জানাযায় শোকাহত মানুষের ঢল নামে এবং উপস্থিত শোকাহত হাজার হাজার মানুষ অশ্রুসিক্ত হয়ে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন। নামাজের জানাযায় উপস্থিত হয়ে তাঁর বর্ণাঢ্য জীবনের স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন পালংখালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এম. গফুর উদ্দিন চৌধুরী। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৩০ বছর। তিনি মা, স্ত্রী, এক শিশু সন্তান, এক ভাই-বোন সহ অসংখ্য আত্মীয়-স্বজন, রাজনৈতিক সহযোদ্ধা, বন্ধু-বান্ধব রেখে যান। তাঁর নামাজে জানাযায় ইমামতি করেন থাইংখালী কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের ইমাম হাফেজ মৌওলানা নুরুল আকতার।

পাঠকের মতামত