প্রকাশিত: ০৩/০৫/২০১৭ ১০:১৬ পিএম

ফারুক আহমদ, উখিয়া ::
উখিয়ার রাজাপালংয়ে হরিণমারা গ্রামে ইউপি মেম্বারের নেতৃত্বে তান্ডবলীলা চালিয়ে এক অসহায় পরিবারের বসত বাড়ী গুড়িয়ে দিয়েছে। এসময় বাঁধা দিতে গিয়ে মা-মেয়ে সহ ৪ জন গুরুতর আহত হয়েছে। আহতদেরকে উখিয়া হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ঘটনাটি ঘটেছে গত মঙ্গলবার বিকেলে। উখিয়া থানার এসআই মিন্টন দে সহ একদল পুলিশ গতকাল দুপুরে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে বলে জানা গেছে।
গ্রামবাসীরা জানায় উপজেলার হরিণমারা গ্রামে মৃত নুরুল ইসলামের পুত্র মোহাম্মদ আলম এক খন্ড পিএফ জায়গায় বসত বাড়ী তৈরি করে পরিবার পরিজন নিয়ে বসবাস করে আসছে। নিরহ মোহাম্মদ আলম অভিযোগ করে বলেন, স্থানীয় ইউপি মেম্বার মোহাম্মদ শাহজাহানের নেতৃত্বে ভূমিদস্যু আবুল কালাম দীর্ঘদিন ধরে তাকে উচ্ছেদ করে জায়গা জবর দখল করার জন্য অপচেষ্টা চালিয়ে আসছিল। এমনকি ওই জায়গায় বসবাস করতে চাইলে তাদেরকে চাঁদা দিতে হবে মর্মে হুমকি দেয়। অন্যতায় থাকতে দেওয়া হবে না।
এদিকে এ ঘটনার জের ধরে গত মঙ্গলবার একদল দুর্বৃত্ত অবৈধ অস্ত্র নিয়ে তান্ডবলীলা চালিয়ে বাড়ী গুড়িয়ে দিয়ে মালামাল লুটপাট করে নিয়ে যায়। এসময় বাঁধা দিতে গিয়ে স্ত্রী রহিমা বেগম (২৮), শ্বাশুড়ি সোনা মেহের (৬০), মেয়ে শারমিনা আক্তার তুফা (১২) ও খোরশিদা বেগম (২৫) দুর্বৃত্তদের হামলায় গুরুতর আহত হয়। আহত গৃহবধু রহিমা বেগম জানান, স্বামীর অনুপস্থিতির সুযোগে দুর্বৃত্তরা বাড়ীতে ডুকে মালামাল লুটপাট ও একমাত্র বসত বাড়ীটি ভাংচুর করে গুড়িয়ে দেয়। এমনকি মহিলাদের উপর ন্যাক্কার জনক ভাবে হামলা করে শীলতা হানি করে স্বর্ণলংকার ছিনিয়ে নেয়।
এ ব্যাপারে মোহাম্মদ আলম বাদী হয়ে মেম্বার শাহজাহান, আবুল কালাম ও আরিফুল হক সুজনসহ ১১ জনকে আসামী করে উখিয়া থানায় এজাহার দায়ের করেছে। তদন্তকারী অফিসার মিলটন দে ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

পাঠকের মতামত

মিয়ানমারের আরেক গুরুত্বপূর্ণ শহর বিদ্রোহীদের দখলে

মিয়ানমারের বিদ্রোহীরা দেশটির আরও একটি গুরুত্বপূর্ণ শহরের দখল নিয়েছে। মিয়ানমারের জান্তাবিরোধী সশস্ত্র রাজনৈতিক গোষ্ঠী তা’আং ...

চট্টগ্রাম-কক্সবাজার ও দূরপাল্লার ট্রেন পটিয়া স্টেশনে যাত্রা বিরতির দাবি

চট্টগ্রাম–কক্সবাজার ও দূরপাল্লার ট্রেন পটিয়া স্টেশনে যাত্রা বিরতিসহ বিভিন্ন দাবিতে রেলমন্ত্রী জিল্লুল হাকিমকে স্মারকলিপি দিয়েছেন ...