প্রকাশিত: ০৯/০৩/২০১৮ ৪:২২ পিএম , আপডেট: ১৭/০৮/২০১৮ ৫:৪০ এএম

আবদুল্লাহ আল আজিজ ::
রামু ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজের ৬ষ্ট শ্রেণীর মেধাবী ছাত্র মোহাম্মদ তাহসান চৌধুরী মিকাত জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ-২০১৭’র উপস্থিত বক্তৃতায় জাতীয় পুরস্কার পাওয়ার গৌরব অর্জন করেছে।

মঙ্গলবার বিকেলে রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে মহামান্য রাষ্ট্রপতি এ্যাডভোকেট মো. আবদুল হামিদ জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ-২০১৮ উপলক্ষে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রনালয় আয়োজিত জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা পদক-২০১৭ অনুষ্ঠানে মোহাম্মদ তাহসান চৌধুরী মিকাত কে মেডেল ও সনদ প্রদান করেন।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী এ্যাডভোকেট মো. মোস্তাফিজুর রহমান ফিজার এমপির সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অতিথি ছিলেন, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রনালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও সাবেক মন্ত্রী মো. মোতাহার হোসেন এমপি, প্রাথমিক ও গণ শিক্ষা মন্ত্রনালয়ের সচিব মো. আসিফ-উজ-জামান, প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহা-পরিচালক ড.মো. আবু হেনা মোস্তফা কামাল এনডিসি উপস্থিত ছিলেন।

মিকাত কক্সবাজারের উখিয়া উপজেলার রাজাপালং নিবাসী বিশিষ্ট ঠিকাদার জনাব মোহাম্মদ জহির উদ্দিন চৌধুরী ও রাজাপালং মোহছেন আলী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা জনাবা খালেদা বেগম এর দ্বিতীয় পুত্র এবং বিশিষ্ট সমাজ সেবক ইউনুছ চৌধুরী ও প্রয়াত ঠিকাদার মোক্তার চৌধুরীর ভাতিজা।

প্রসঙ্গত, মিকাত কক্সবাজার জেলাধীন উখিয়া উপজেলার প্রাথমিক পর্যায়ের সর্বোচ্চ বিদ্যাপীঠ উখিয়া মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের আন্তঃবিদ্যালয় সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতায় উপস্থিত বক্তৃতায় অংশগ্রহণ করে উপজেলা, জেলা ও বিভাগীয় পর্যায়ে শ্রেষ্ঠত্ব অর্জনের পর জাতীয় পর্যায়ে তৃতীয় হওয়ার গৌরব অর্জন করে এবং মাননীয় প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রী জনাব মোস্তাফিজুর রহমান মহোদয়ের কাছ থেকে পুরস্কার গ্রহণ করেছে।

রামু ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজের মেধাবী ছাত্র মিকাতের এখন থেকেই শুরু হলো তার আরেক সাফল্য যাত্রা। উখিয়া মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে সারা দেশে সাড়া জাগানো পুরস্কার পাওয়ার গৌরব অর্জন করলেন মোহাম্মদ তাহসান চৌধুরী মিকাত।

জাতীয় পর্যায়ে নজির সৃষ্টকারী গৌরব অর্জনে তার অনুভূতি কি জানতে চাইলে মিকাত বলেন, সময়ানুবর্তিতা ও সততার সাথে নিয়মিত পড়ালেখা এবং পরিশ্রম করলে ভালো ফল পাওয়া যাই। এছাড়া শিক্ষক ও মা-বাবারা ছিলেন আমার মূল অনুপ্রেরণা।

আর এই কৃতিত্বের জন্য আমি আমার উখিয়া মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সম্মানিত শিক্ষক শিক্ষিকা ও আমার প্রিয় শিক্ষক আতাহার হোসেন মাসুক এবং পরিজন,বন্ধু বান্ধব যারা আমার পাশে ছিল সকলের প্রতি আমি কৃতজ্ঞ। এই সফলতা আমার নয় তাদের,যারা আমাকে উৎসাহ দিয়ে এই পর্যন্ত পৌঁছতে এতটুকু আসতে অনুপ্রেরণা যুগিয়েছে।

তার এই সফলতার ধারাবাহিতা বজায় রাখতে সকলের কাছে দোয়া প্রার্থনা করেন।

এদিকে বিশিষ্ট ঠিকাদার জনাব মোহাম্মদ জহির উদ্দিন চৌধুরী ও রাজাপালং মোহছেন আলী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা জনাবা খালেদা বেগমের পুত্র মোহাম্মদ তাহসান চৌধুরী মিকাত জাতীয় পুরস্কার পাওয়ায় বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, পেশাজীবী ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ মিকাতকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন।

পাঠকের মতামত

বান্দরবানে কেএনএফের আস্তানায় যৌথ বাহিনীর অভিযান, নিহত ৩

বান্দরবানের রুমা উপজেলার রনিন পাড়ার কাছে ডেবাছড়া এলাকায় কেএনএফের একটি আস্তানায় সেনাবাহিনীর নেতৃত্বে যৌথ বাহিনীর ...

সিভিল সার্জন কার্যালয়ে স্বাস্থ্য সহকারী পরীক্ষায় প্রক্সি দিতে গিয়ে আটক ১

চট্টগ্রাম সিভিল সার্জন কার্যালয়ে স্বাস্থ্য সহকারী নিয়োগের লিখিত পরীক্ষায় প্রক্সি দিয়ে উত্তীর্ণ হলেও মৌখিকে ধরা ...