প্রকাশিত: ১১/০৬/২০১৭ ১১:৩৯ এএম , আপডেট: ১৭/০৮/২০১৮ ৪:৪২ পিএম

উখিয়া নিউজ ডেস্ক::
কক্সবাজারের রামুর ইয়াবা ডন মিজান ধরা পড়েছে। তাও ধরা পড়ার দীর্ঘ দশ ঘণ্টা পর কক্সবাজারের ডিবি পুলিশের তরফে স্বীকৃতি মিলেছে।

ইয়াবা ডন মিজান বহু সংখ্যক মাদক মামলার পলাতক আসামি। কক্সবাজারের ডিবি পুলিশের কয়েকটি দল প্রতিদিন ইয়াবা অভিযানে নামে। শনিবার সকালে ডিবির এক নম্বর টিম রামুর খুনিয়া পালং ইউনিয়নের দারিয়ারদিঘীর বড়ঢেবা লিয়াকত আলীর ফার্নিচারের দোকান ঘিরে ফেলে। শনিবার সকাল সাড়ে দশটার দিকে ডিবির টিম ফার্নিচারের দোকানে লুকিয়ে থাকা ইয়াবা ডন মিজানকে আটক করে। ডিবির টিম প্রধান এস,আই কামাল মিজান ডনকে ধরে গাড়িতে তুলে নেয়।

অভিযোগ উঠেছে, মিজান ডনকে ছাড়িয়ে নিতে অর্ধ লক্ষ টাকার দাবি করা হয়। শেষাবধি ত্রিশ লাখে গিয়ে কারবারি সর্দ্দারগন গিয়ে থামে। কিন্তু শনিবার ব্যাংক বন্ধ থাকায় এত বিপুল অংকের নগদ টাকা মিলবে কিভাবে ? এ কারণে ইয়াবা ডন মিজানের কারবারি সঙ্গীরা মরিচ্যা বাজারের বিভিন্ন দোকানে হানা দেয় নগদ টাকা হাওলাতের জন্য। ততক্ষণ পর্যন্ত ডিবি কামালের হেফাজতে ছিল ইয়াবা ডন মিজান।

শনিবার রাত ৮টার দিকে জেলা পুলিশের গোচরিভ’ত হয় ইয়াবা ডন মিজানের আটকের সংবাদটি। অবৈধ লেনদেনের পর্ব শেষ হবার আগেই জেলা পুলিশের হস্তক্ষেপে শেষ পর্যন্ত মিজান ডনকে ছেড়ে দেওয়া যায়নি।

শনিবার রাতে জেলা ডিবি পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মনিরুল ইসলাম জানান, মিজানুর রহমান প্রকাশ ইয়াবা মিজানের বিরুদ্ধে বহু সংখ্যক মাদকের মামলা রয়েছে। সে দীর্ঘদিন ধরে পলাতক ছিল। তাকে আটকের পর জিজ্ঞাসা করা হচ্ছে। সুত্র, কালেরকন্ঠ

পাঠকের মতামত

মিয়ানমারের আরেক গুরুত্বপূর্ণ শহর বিদ্রোহীদের দখলে

মিয়ানমারের বিদ্রোহীরা দেশটির আরও একটি গুরুত্বপূর্ণ শহরের দখল নিয়েছে। মিয়ানমারের জান্তাবিরোধী সশস্ত্র রাজনৈতিক গোষ্ঠী তা’আং ...

চট্টগ্রাম-কক্সবাজার ও দূরপাল্লার ট্রেন পটিয়া স্টেশনে যাত্রা বিরতির দাবি

চট্টগ্রাম–কক্সবাজার ও দূরপাল্লার ট্রেন পটিয়া স্টেশনে যাত্রা বিরতিসহ বিভিন্ন দাবিতে রেলমন্ত্রী জিল্লুল হাকিমকে স্মারকলিপি দিয়েছেন ...