ইয়াবা নিয়ে উখিয়ার রুবেল ও তার ২ সহযোগী র‍্যাবের হাতে আটক

আবদুল্লাহ আল আজিজ::
মাদক পাচার প্রতিরোধে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে যাচ্ছে র‍্যাপিড একশ্যান ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব) সদস্যরা।

তারই ধারাবাহিকতায় ০২ নভেম্বর (শনিবার) ইয়াবা ক্রয়-বিক্রয়ের গোপন সংবাদের তথ্য অনুযায়ী সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে দিকে কক্সবাজার জেলার রামু থানাধীন চেইন্দ্যা ইন্টারন্যাশনাল এমিউজমেন্ট পার্ক এন্ড রিসোর্ট এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে ২ হাজার ৮৪০ পিস ইয়াবাসহ ৩ মাদক কারবারিকে আটক করতে সক্ষম হয়।

আটককৃত মাদক কারবারীরা হচ্ছে, উখিয়া উপজেলার সোনারপাড়া এলাকার আজিজুল হকের ছেলে সাইদুল হক রুবেল (৩০), নড়াইলের লোহাগড়া এলাকার চর মল্লিকপুরের কাজি এমদাদুল হকের ছেলে কাজি আবদুল্লাহ (২৩) এবং একই জেলার কুমড়ি মধ্যপাড়া এলাকার দাউদ সরদারের ছেলে শের আলী সরদার (২২)।

অভিযানের সত্যতা নিশ্চিত করে র‍্যাব-১৫ সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) আবদুল্লাহ মোহাম্মদ শেখ শাদী জানান, গোপন সংবাদের মাধ্যমে র‍্যাব জানতে পারে যে, টেকনাফ থেকে লেগুনা যোগে একটি ইয়াবার চালান বিক্রয়ের উর্দ্দেশ্যে কক্সবাজারের দিকে আসছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে র‍্যাবের চৌকস আভিযানিক দল রাত ৬ টায় চেইন্দ্যা সাকিনস্থ ইন্টারন্যাশনাল এমিউজমেন্ট পার্ক এন্ড রিসোর্ট এলাকায় চেকপোস্ট স্থাপন করে এবং চেকপোস্ট চলাকালীন সময় সন্ধ্যা ৭টা ৩০ মিনিটের দিকে লেগুনাটিকে থামিয়ে যাত্রীদেরকে তল্লাশী করে তিন মাদক ব্যবসায়ী আটক করা হয়। পরে উপস্থিত সাক্ষীদের সামনে ধৃত তিন মাদক ব্যবসায়ীর দেহ তল্লাশি করে ২হাজার ৮৪০ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। উদ্ধারকৃত ইয়াবার আনুমানিক মূল্য ১৪লক্ষ ২০হাজার ৫শ টাকা।

তিনি আরো জানান, জেলার আনাছে কানাচে লুকিয়ে থাকা অনেক মাদক কারবারী বিভিন্ন কৌশল অবলম্বন করে ইয়াবা পাচার অব্যাহত রেখেছে। সেই সমস্ত মাদক কারবারীদের আইনের আওয়তাই নিয়ে আসতে আমাদের র‍্যাব সদস্যদের চলমান এই অভিযান অব্যাহত আছে এবং থাকবে।

আটক তিন মাদক ব্যবসায়ীকে সংশ্লিষ্ঠ ধারায় মামলা দায়ের করে কক্সবাজার সদর মডেল থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে বলেও জানান র‍্যাবের এই কর্মকর্তা।

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন