মেয়াদ শেষে অব্যবহৃত মোবাইল ডাটা ফেরতের নির্দেশ

মেয়াদ শেষ হওয়ার পর অব্যবহৃত মোবাইল ডাটা কেটে না নিয়ে পরবর্তীতে কেনা ডাটা প্যাকেজের সঙ্গে ফেরত দিতে অপারেটরগুলোকে নির্দেশ দিয়েছেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার।
মেয়াদ শেষে অব্যবহৃত মোবাইল ডাটা ফেরতের নির্দেশ

তিনি বলেছেন, ‘তারা আগে ডাটা ফেরত দিত। আমি নিজেও ফেরত পেয়েছি। কিন্তু এখন কেন দেয় না এটা আমার প্রশ্ন।’

সোমবার (২ আগস্ট) দেশের মোবাইল অপারেটরদের কার্যক্রম তদারকি করতে যন্ত্রপাতি কেনা সংক্রান্ত এক চুক্তি শেষে সংবাদমাধ্যমকে এ কথা বলেন তিনি। কানাডাভিত্তিক আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠান টিকেসি টেলিকমের সঙ্গে টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি) এ চুক্তি করেছে।

মন্ত্রী বলেন, ‘আমি বলেছি আজেবাজে মেয়াদ যে প্যাকেজগুলো করা হয়, সেগুলো বাদ দিতে। একইসঙ্গে তাদের কল ড্রপের টাকাও ফেরত দিতে বলেছি। এসব যুক্তিসঙ্গতভাবে ভোক্তার অধিকার। কারণ, এটা ভোক্তাদের অধিকার।’

আজকের চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে বিটিআরসির চেয়ারম্যান শ্যাম সুন্দর সিকদার এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার, বিশেষ অতিথি হিসেবে ডাক ও টেলিযোগাযোগ সচিব মো. আফজাল হোসেন এবং সংস্থার ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড অপারেশন্স বিভাগের কমিশনার প্রকৌশলী মো. মহিউদ্দিন আহমেদ বক্তব্য দেন।

উল্লেখ্য, ৭৭ কোটি ৬৫ লাখ টাকা ব্যয়ে টেলিকম মনিটরিং সিস্টেম ক্রয়ের জন্য সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি অনুমোদন দিয়েছে।

এর আগে গত ৩১ জুলাই গ্রাহকদের অতিরিক্ত ব্যয় কমাতে ইন্টারনেট ডাটা ও টকটাইমের প্যাঁচ বন্ধের আহ্বান জানিয়েছিলেন বাংলাদেশ মুঠোফোন গ্রাহক অ্যাসোসিয়েশন। সংবাদমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে সংগঠনের সভাপতি মহিউদ্দিন আহমেদ এ দাবি জানান।

তিনি বলেছিলেন, ‘টাকা দিয়ে ডাটা বা টকটাইম কেনার পরে নির্দিষ্ট মেয়াদ শেষ হওয়ার পর অব্যবহৃত ডাটা ও টকটাইম পরবর্তী রিচার্জের সময় পাওয়া যাচ্ছে না কেন? হিসাবটা খুবই সহজ। উত্তর খুবই সহজ, অব্যবহৃত এমবি দিয়ে বিভিন্ন প্যাকেজ তৈরি করে পুনরায় বিক্রি করা হয়েছে গ্রাহকদের কাছে।

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন