নাসির-তামিমার বিয়ে বিতর্ক, আগের স্বামীর আইনি নোটিশ

প্রতারণার হাত থেকে বাঁচতে বিয়ে ও ডিভোর্স রেজিস্ট্রেশন প্রক্রিয়া ডিজিটাল করার নির্দেশনা চেয়ে আইনি নোটিশ পাঠিানো হয়েছে। আইন বিচার ও সংসদবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব, তথ্য ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের সচিব এবং ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সচিবের বরাবর এ নোটিশ পাঠানো হয়।

সোমবার ক্রিকেটার নাসিরের সদ্য বিবাহিতা স্ত্রী তামিমার আগের স্বামী রাকিব হাসান এবং আরো দুই ব্যক্তি ও একটি প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে এটি পাঠানো হয়। অন্যরা হলেন, ‘এইড ফর ম্যান ফাউন্ডেশন’ নামে একটি সংগঠন, ভুক্তভোগী সোহাগ হোসেন ও কামরুল হাসান। লিগ্যাল নোটিশটি সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ইশরাত হাসানের মাধ্যমে পাঠানো হয়।

এর আগে ক্রিকেটার নাসির তার সদ্য বিবাহিতা স্ত্রী তামিমা এবং তার আগের স্বামী রাকিবকে নিয়ে সংবাদমাধ্যমে চলমান বিতর্ক যখন তুঙ্গে তখন রাকিবের পাশে দাঁড়ানোর কথা জানিয়েছে পুরুষের অধিকার নিয়ে কাজ করা সংগঠন ‘এইড ফর মেন’। এক সাক্ষাৎকারে এ তথ্য নিশ্চিত করেন সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম নাদিম।

তিনি বলেন, রাকিব হাসানের স্ত্রী তামিমা তাম্মি তার স্বামীকে ডিভোর্স না দিয়েই ক্রিকেটার নাসিরকে বিয়ে করেছেন। যা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ। এ ইস্যুতে নাসির ও তামিমা প্রভাবশালী হওয়ায় রাকিবকে বিভিন্ন রকমের হুমকি ধমকি দিচ্ছেন। এমন পরিস্থিতিতে আমরা রাকিব হাসানের পাশেই আছি।

তিনি আরও বলেন, রোববার সন্ধ্যায় আমরা সংগঠনের পক্ষ থেকে ভিক্টিম রাকিব হাসানের সঙ্গে দেখা করি এবং তার পাশে থাকার আশ্বাস দিয়েছি।

গত রোববার ভ্যালেন্টাইনস ডেতে কেবিন ক্রু তামিমা তাম্মিকে বিয়ে করেন নাসির। কিন্তু এক সপ্তাহ পূর্ণ না হতেই জানা যায় নাসিরপত্নীর আগে আরেকটি বিয়ে হয়েছিল। ৮ বছর বয়সী মেয়ে ও স্বামী রাকিব হাসানকে ফেলে নাসিরকে জীবন সঙ্গী করেন তাম্মি।

রাকিবের দাবি, তামিমা তাকে ডিভোর্স না দিয়েই নাসিরকে বিয়ে করেছেন।

এ ঘটনায় গত বৃহস্পতিবার রাতে উত্তরা পশ্চিম থানায় একটি জিডি করেন রাকিব। উত্তরা পশ্চিম থানার ওসি শাহ মো. আক্তারুজ্জামান ইলিয়াস জিডির বিষয়টি এরই মধ্যে গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন।

Loading...
ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন