ad

উখিয়া নিউজ’র জন্য যত ভালবাসা

মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :
সব কিছুতেই একটা ন্যূনতম নীতি, আদর্শ থাকে। ঠিক গণমাধ্যমেরও মনে হয় একটা নীতি আছে। যদিও গণমাধ্যমের সেই নীতি’র বিষয়ে অপদার্থের মোটেও কোন ধারণা নেই। ৯০ এর দশকে কক্সবাজারে আজকে যাঁরা সিনিয়র সাংবাদিক, আমার পরম শ্রদ্ধেয় মুরব্বি, তাঁদের সাথে আমি পিচ্চি বাংলাদেশ প্রেস ইনষ্টিটিউটের (পিআইবি) উদ্যোগে আয়োজিত বেশ ক’টা বুনিয়াদি প্রশিক্ষণ কোর্সে অংশ নিয়েছিলাম। সেখানে প্রশিক্ষক হিসাবে আসা দেশের প্রতিজযশা শীর্ষ সাংবাদিকদের গণমাধ্যমের নীতিমালা সম্পর্কে বলতে শুনেছি ও লেকচার নোটে পড়েছি, একজনের বাইনেমে প্রকাশ করা নিউজ, হুবহু কপি করে আরেকজনের নামে অন্য জায়গায় চালিয়ে দেয়া, গণমাধ্যমের নীতিমালা সেটাকে মোটেও সমর্থন করেনা। সে সুবাদে অধম যতটুকু দেখেছি, কক্সবাজারের বহুল প্রচারিত অনলাইন নিউজ পোর্টাল ‘উখিয়া নিউজ ডট কম’ গণমাধ্যমের সেই নীতিকে একটু কষ্ট হলেও ধরে রেখেছে। বিশ্বাস ও আস্থায় সমৃদ্ধ করেছে সম্মানিত পাঠকদের। একটা নিউজ পোর্টালের জন্য নিঃসন্দেহে এটা একটা বিশাল অর্জন। এই পোর্টালটি অন্য কোন পোর্টাল বা গণমাধ্যমে প্রকাশিত একটি নিউজ গুরুত্বপূর্ণ বা পাঠককে জানানো প্রয়োজন মনে করলে, সে নিউজটি যাঁর নামে, যে পোর্টাল বা গণমাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছে, হুবহু তাঁর নামে বা পোর্টালের নামে বা ডেস্ক নিউজ হিসাবে ছাপিয়ে পাঠককে উপহার দেয়। সম্ভবত এটাই গণমাধ্যমের নীতি। আমার ধারণা ভূল হতে পারে, তবে আমি মনে করি, উখিয়া নিউজ ডটকম গণমাধ্যমের এ ন্যূনতম নীতিকে বিসর্জন দেয়নি। এররকম একটি নিউজ পোর্টালের জম্মদিনে ভালবাসা না জানানোটাকে নিজের বিবেকের কাছে নিজেকেই কেন জানি ছোট মনে করছি। পোর্টালটি এগিয়ে যাক প্রেরণা ও প্রত্যয় নিয়ে। এক দশকে পা দেওয়ার প্রথম দিনে সবার মনের দর্পনে প্রোথিত হোক ‘উখিয়া নিউজ ডটকম’। এ পোর্টালটিকে নীতি মানার বিষয়ে আপোষহীনভাবে যাঁরা নিরন্তর কাজ করে যাচ্ছে-অনুজ প্রতিম সুপ্রিয় সম্পাদক ওবায়দুল হক চৌধুরী ও নির্বাহী সম্পাদক সরওয়ার আলম শাহীন সহ পোর্টালের সকল সাংবাদিক, পাঠক, শুভানুধ্যায়ীদের প্রতি রইল হৃদয় নিঙ্গড়ানো ভালোবাসা।

লেখক :
আইনজীবী, বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্ট, ঢাকা।

ad