উখিয়া নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯/০৭/২০২৩ ৪:১৭ পিএম

কারিগরি ত্রুটির কারণে নাগরিকদের তথ্য ফাঁস হয়েছে, সাইট হ্যাক হয়নি বলে দাবি করেছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। রোববার (৯ জুলাই) সকালে রাজধানীর আগারগাঁওয়ে আইসিটি টাওয়ারে এক অনুষ্ঠানে এ দাবি করেন তিনি।

প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, সরকারি গুরুত্বপূর্ণ ২৯টি ওয়েবসাইটের একটি থেকে তথ্য ফাঁস হয়েছে। সেখানে যে ধরনের নিরাপত্তা প্রয়োজন ছিল, তা ছিল না। এ বিষয়ে আগামীকাল সোমবার জরুরি বৈঠকে বসবে প্রশাসন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, সাইবার ক্রিমিনালরা কোনো তথ্য নিয়ে গেছে বলে আমরা এখনও প্রমাণ পাইনি। আমরা যেটা পেয়েছি যে সরকারের সেই ওয়েবসাইটটিতে যান্ত্রিক দুর্বলতা ছিল। যার ফলে তথ্যটা খুব সহজেই দেখা যাচ্ছিল।

তবে নিরাপত্তার তাগিদে ওই ওয়েবসাইটের নাম প্রকাশ করেননি আইসিটি প্রতিমন্ত্রী। পরে তিনি জরুরি তথ্য সংরক্ষণে সরকারের ডেটা সিকিউরিটি অ্যাক্টের খসড়ার কাজ শেষের দিকে বলেও জানান।

গত ৭ জুলাই বাংলাদেশের লাখ লাখ মানুষের ব্যক্তিগত তথ্য ফাঁসের সর্বশেষ ঘটনার খবর জানায় যুক্তরাষ্ট্রের তথ্যপ্রযুক্তিভিত্তিক অনলাইন সংবাদমাধ্যম টেকক্রাঞ্চ।

টেকক্রাঞ্চের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, বাংলাদেশে এবারের তথ্য ফাঁসের ঘটনা ঘটেছে সরকারি একটি সংস্থার ওয়েবসাইটের মাধ্যমে। কোনো ওয়েবসাইট, তা নিরাপত্তার জন্য তারা প্রকাশ করেনি।

পাঠকের মতামত

রোহিঙ্গাদের জন্য ৭ হাজার কোটি টাকা অনুদান ঘোষণা বিশ্বব্যাংক এমডির

রোহিঙ্গাদের জন্য ৬৫ কোটি ডলার অনুদান নিয়ে আলোচনা করেছেন বিশ্বব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) অ্যানা বেজার্ড। ...

নির্দেশনা না মানলে হাসপাতালের নিবন্ধন বাতিল -স্বাস্থ্যমন্ত্রীর

বেসরকারি হাসপাতাল, ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার পরিচালনায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হাসপাতাল ও ক্লিনিক শাখার ১০ দফা ...