প্রকাশিত: ০৮/১০/২০১৭ ৮:০০ এএম , আপডেট: ১৭/০৮/২০১৮ ১২:৩৩ পিএম

উখিয়া নিউজ ডেস্ক::
টেকনাফ ও কক্সবাজারে রোহিঙ্গা শরনার্থী ক্যাম্পগুলোতে ছড়িয়ে পড়েছে বাংলাদেশের মোবাইল সিমকার্ড। এসব সিম নামে বেনামে নিবন্ধন করা হয়েছে। প্রকাশ্যে এসব সিম বিক্রি না হলেও নানা কৌশলে স্থানীয় ব্যবসায়ীদের মাধ্যমে সিমগুলো রোহিঙ্গাদের কাছে পৌঁছে যাচ্ছে।

সরেজমিনে জানা গেছে, ক্যাম্পগুলোর প্রতিটি ঘরেই অন্তত একটি মোবাইল ব্যবহার হচ্ছে। যা দিয়ে রোহিঙ্গারা আত্মীয়স্বজনদের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। সরকারিভাবে তাঁদের জন্য টেলিসেবা চালু হলেও এর তোয়াক্কা না করে নামে বেনামে ব্যবহার হচ্ছে এসব সিম।

কীভাবে রোহিঙ্গাদের হাতে এসব সিম চলে আসে জানতে ক্যাম্পের পাশে বালুখালি ও থাইনখালি বাজারে মোবাইল সিম বিক্রির দোকানে গেলে জানা যায়, সেখানে টাকার বিনিময়ে রোহিঙ্গাদের মোবাইল চার্জ দেওয়া হচ্ছে। কিন্তু ওই দোকানদার জানান পরিচয়পত্রছাড়া সেখানে সিম বিক্রি হয় না।

সেখানকার দোকানদার জানান, জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি কার্ড) ছাড়া রোহিঙ্গাদের কাছে কেউই সিম বিক্রি করেন না। আরেক দোকানদার বলেন, সিম বিক্রির সময় আঙ্গুলের ছাপ ও এনআইডি কার্ডের ফটোকপি ছাড়া সিম বিক্রি করাই যাবে না।

কিন্তু রোহিঙ্গাদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, সিম কিনতে কোনো কাগজ লাগে না। দোকানদারদের কাছে গেলে সিম দিয়ে দেন তাঁরা। আরেকজন জানান যে দোকান থেকে মোবাইল সেট কিনেছেন সেখানকার দোকানদার তাঁকে এই সিমটি দিয়েছেন। এইজন্য আলাদা কোনো কাগজ কিংবা টিপসই দিতে হয়নি বলে জানালেন তিনি।

এই বিষয়ে স্থানীয় ফটোকপির দোকানের এক কর্মচারী জানালেন, কিছু অসাধু দোকানদার কেউ সিম কিনতে গেলে আঙ্গুলের একাধিক ছাপ রাখেন। আর আইডি কার্ড কেউ ফটোকপি করাতে আসলে অসাধু দোকানদাররা এর আরেকটি কপি নিজেদের কাছে রেখে দেন। এভাবেই ফটোকপির দোকান ও সিম বিক্রির দোকানের যোগসাজসে এই অবৈধ সিম বিক্রি চলে।

এদিকে স্থানীয়রা জানালেন প্রতিদিনই বাজারে রোহিঙ্গারা সিম কিনতে ভীড় জমান। যদিও এসব সিম যার নামে কেনা হচ্ছে সে ব্যক্তি হয়তো জানছেনই না তাঁর নামে সিম কিনে চালাচ্ছেন অপর এক ব্যক্তি। এই পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ না করা গেলে এ নিয়ে ভবিষ্যতে আইনশৃংখলা পরিস্থিতির অবনতি হতে পারে বলে আশংকা জানান তাঁরা।

পাঠকের মতামত

ছু'রি'কা'ঘাতে মৃ'ত্যুর পথযাত্রী যুবক,টাকা লুট অনিরাপদ ঘুমধুমের টিভি টাওয়ার গরুর হাট

কক্সবাজার-টেকনাফ মহাসড়ক লাগোয়া নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুমধুমের টিভি টাওয়ার গরুর হাটে প্রতিনিয়তই ঘটছে অপ্রীতিকর ঘটনা। হাট ...

নিজের সম্মানির টাকা মেধাবী শিক্ষার্থীকে দিলেন নাইক্ষ্যংছড়ির ইউএনও

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ির উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাকারিয়া নিজের প্রাপ্ত সম্মানির টাকা আর্থিক অনুদান হিসেবে প্রদান করলেন ...