প্রকাশিত: ১৭/০৯/২০১৭ ৮:৪১ এএম , আপডেট: ১৭/০৮/২০১৮ ১:২৬ পিএম

ডেস্ক রিপোর্ট::
রোহিঙ্গা শিবিরে ত্রাণ দিতে এসে এক লংকাকাণ্ড ঘটিয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে ছাত্রলীগ নামধারী কিছু উচ্ছৃঙ্খল তরুণদের বিরুদ্ধে। ৩০/৩৫ জন তরুণের দলটি ছাত্রলীগ পরিচয়ে কক্সবাজারের উখিয়া উপজেলা সদরের সরকারি মডেল প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও একজন সহকারী শিক্ষককে বেদম মারধর করেছে।

এ ঘটনায় ছাত্রলীগ নামধারী তরুণদের ব্যবহৃত একটি পাজেরো জীপ ভাংচুর করা হয়েছে এবং অপর একটি মাইক্রোবাস পুলিশ আটক করেছে। ছাত্রলীগ নামধারী তরুণের দল জনতার রোষে পড়ে পালিয়ে গেছে। গতকাল শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৫টার দিকে এ ঘটনা ঘটেছে।

উখিয়া সরকারি মডের প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হারুন অর রশিদ কালের কণ্ঠকে জানান, গতকাল বিকালের দিকে চট্টগ্রাম শহর থেকে ত্রাণবাহী কয়েকটি বাস ও ট্রাক নিয়ে রোহিঙ্গাদের জন্য নিয়ে আসেন বেশ কিছু তরুণ। তারা রোহিঙ্গাদের মাঝে ত্রাণ বিতরণকালে নিজেদের ব্যবহৃত পাজেরো ও নোয়া মাইক্রোবাস বিদ্যালয়ের মাঠে রাখার জন্য গেইটের তালা ভেঙ্গে ফেলে।

এ সময় প্রধান শিক্ষক ও সহকারী শিক্ষক মোহাম্মদ শাহজাহান উপস্থিত হয়ে গেইটের তালা ভাঙ্গার কারণ জানতে চাইলে তরুণরা বলে, ‘আমরা কে চিনস নাই’? একথা বলে শিক্ষক দুইজনের উপর চড়াও হয়। তারা প্রধান শিক্ষকের পাঞ্জাবীর কলার ধরে টানা হ্যাঁচড়াসহ মারধর করে।

এ ঘটনা ঘটিয়েই ছাত্রলীগ নামধারী তরুণরা নিজেদেও ব্যবহৃত যানবাহনে পালাতে থাকেন। কিন্তু শিক্ষককে মারধরের কথা জানাজানি হলে এলাকার ক্ষুব্ধ লোকজন ধাওয়া দিয়ে পাজেরো জীপটিতে হামলা চালিয়ে ভাংচুর করে।

অপর একপিট মাইক্রোবাস পুলিশ আটক করে।
এ প্রসঙ্গে উখিয়া থানার উপ-পুলিশ পরিদর্শক মাইনুদ্দিন রাতে জানিয়েছেন, তরুণরা চট্টগ্রাম মহানগরি ছাত্রলীগের নেতাকর্মী বলে তিনি জানতে পেরেছেন। তবে তরুণের দল সবাই পালিয়ে যাওয়ায় এসব বিষয়ে বিস্তারিত জানা যায়নি। এ বিষয়ে শিক্ষকদেও পক্ষে একটি অভিযোগ জমা দেওয়া হয়েছে পুলিশের কাছে। সুত্র: কালেরকন্ঠ

পাঠকের মতামত

ছু'রি'কা'ঘাতে মৃ'ত্যুর পথযাত্রী যুবক,টাকা লুট অনিরাপদ ঘুমধুমের টিভি টাওয়ার গরুর হাট

কক্সবাজার-টেকনাফ মহাসড়ক লাগোয়া নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুমধুমের টিভি টাওয়ার গরুর হাটে প্রতিনিয়তই ঘটছে অপ্রীতিকর ঘটনা। হাট ...

নিজের সম্মানির টাকা মেধাবী শিক্ষার্থীকে দিলেন নাইক্ষ্যংছড়ির ইউএনও

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ির উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাকারিয়া নিজের প্রাপ্ত সম্মানির টাকা আর্থিক অনুদান হিসেবে প্রদান করলেন ...